ব্রেকিং:
দাউদকান্দি শিশু ধর্ষণের অভিযোগ অপ্রতিরোধ্য বসুন্ধরা কুমিল্লায় নির্বিচারে শিশুশ্রম কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অচেতন করে ব্যাংক লুট বাঞ্ছারামপুর থানা থেকে লোক ছাড়াতে নেতা নিলেন দেড় লাখ টাকা! পদুয়ার বাজারে ফুটপাত ও সড়ক দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান বিডিআর বিদ্রোহ:অভিযুক্তদের পক্ষে কেন আইনি লড়াই করে বিএনপি? বিএনপি-জামায়াতের ষড়যন্ত্রের ফসল বিডিআর বিদ্রোহ একদিনে আরো পাঁচজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪১০ জাতীয় বিশ্ববিদ্যায়ের স্থগিত পরীক্ষাসমূহের নতুন সূচি ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রে অনিবন্ধিত বাংলাদেশিদের বৈধ করার আহ্বান মোমেনের সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৪০০ কোটি ছাড়াল মেট্রো রেল প্রকল্পে গড় অগ্রগতি ৫৬.৯৪% দেশে হচ্ছে আরও সাত নভোথিয়েটার আসছে তাৎক্ষণিকভাবে ভোটার হওয়ার সুযোগ শঙ্কা কেটে পুনরুদ্ধারের পথে অর্থনীতি করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ বিশ্বে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপণ করেছে শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসায় যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধুর দুর্নীতিবিরোধী ভাষণ দূরদর্শিতার প্রমাণ
  • শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪২৭

  • || ১৩ রজব ১৪৪২

অমানবিক ডাক্তার, ফি না দিতে পারায় মহিলার ঔষদ লিখেও কেটে দিলেন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

চিকিৎসকের দাবিমতো ফি দিতে না পারায় দরিদ্র, অসহায় বৃদ্ধাকে প্রেসক্রিপশনে লেখা ওষুধের নাম কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠল এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। অমানবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পঞ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের কালনায়। অভিযুক্ত চিকিৎসকের নাম জ্যোতির্ময় দাস। অভিযুক্ত চিকিৎসক কালনা মহকুমা হাসপাতালের প্রাক্তন চিকিৎসক।

জানা গেছে, বেশ কয়েক মাস ধরেই মাথা ও ঘাড়ের যন্ত্রণায় ভুগছিলেন কালনার নান্দাই গ্রামের বৃদ্ধা মালতী দেবনাথ। কিছুতেই সমস্যা মিটছিল না। একমাত্র রোজগেরে ছেলে কর্মসূত্রে মুম্বইয়ে থাকেন। বৌমা ও নাতনিকে গ্রামের বাড়িতে থাকেন অসুস্থ মালতী দেবী। এরপর গত ৪ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় বাসিন্দাদের সাহায্যে কালনা মহকুমা হাসপাতালের প্রাক্তন চিকিৎসক জ্যোতির্ময় দাসের বৈদ্যপুর মোড়ের চেম্বারে দেখাতে যান তিনি।

সেদিন চিকিৎসককে তার ফি মিটিয়ে দিয়েছিলেন মালতী দেবী। এরপর চিকিৎসকের নির্দেশমত বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করান তিনি। তারপর ১৩ ফেব্রুয়ারি মালতী দেবীর রিপোর্ট দেখাতে ফের জ্যোতির্ময় দাসের চেম্বারে যান তার এক প্রতিবেশী। রিপোর্টে জানা যায়, মালতী দেবী ব্রেন স্ট্রোক ও স্পন্ডাইলাইটিসে আক্রান্ত। সেইমতো প্রেসক্রিপশনে বেশ কিছু ওষুধ লেখেন চিকিৎসক জ্যোতির্ময় দাস।

অভিযোগ, এরপরই তার দাবি মত ফি দিতে না পারলে, প্রেসক্রিপশনে লেখা ওষুধের নাম কেটে দেন চিকিৎসক জ্যোতির্ময় দাস। এই অমানবিক ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। দরিদ্র, অসহায়, অসুস্থ বৃদ্ধাকে এভাবে সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করার কারণে যারপরনাই ক্ষুব্ধ কালনার মানুষ। এদিকে এই ঘটনার পর থেকেই এলাকা থেকে লাপাত্তা চিকিৎসক জ্যোর্তিময় দাস। সূত্র: জিনিউজ

কুমিল্লার ধ্বনি