ব্রেকিং:
বিয়ের দিন বাড়িতে হাজির প্রথম স্ত্রী হাসপাতালে ভর্তি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ৫০ থেকে একশ শয্যায় উন্নীত হবে সব হাসপাতাল সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ রাজমিস্ত্রির মজুতদারি করে কারসাজি করলে কঠোর ব্যবস্থা ইঞ্জিনে ওভার হিট, মহাখালীতে প্রাইভেটকারে আগুন ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন ট্রাম্প অবশেষে ঝুঁকিপূর্ণ তিন রাস্তার সংযোগস্থলে গতিরোধক স্থাপন বাঙালি বিশ্ব মোড়লদের ধার ধারে না: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী যেসব কারণে ব্যাপক চাপ থাকবে সড়কে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে সরকারের কোটা সংক্রান্ত পরিপত্র বলবৎ হয়েছে পানি নিষ্কাশনে ডিএনসিসির ৫ হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী কাজ করছে সময় টিভির সাংবাদিকদের উপর কোটা বিরোধীদের হামলা প্রধানমন্ত্রীর অন্তর্ভুক্তিমূলক সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি গাজায় ‘যুদ্ধাবসানের সময় এসেছে’: বাইডেন ন্যাটো-রাশিয়াকে সংঘাতের ব্যাপারে সতর্ক করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রাজধানীসহ সারাদেশে ভারী বৃষ্টি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুতে ইতিবাচক মিয়ানমার চীনা গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে এসে স্বর্ণ চুরি, চোর ধরা ডবলমুরিংয়ে

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৯ জুলাই ২০২৪  

কুমিল্লা থেকে বেড়াতে চট্টগ্রামের হালিশহরের আত্মীয়ের বাসায় আসেন সঞ্জয় দেবনাথ। তিনদিন থেকে আবারও কুমিল্লা চলে যান তিনি। কিন্তু যাওয়ার সময় অপুর আলমারিতে থাকা চার ভরি স্বর্ণ চুরি করে সঙ্গে নিয়ে যান। সেই স্বর্ণ কুমিল্লায় রেখে আবারও চট্টগ্রামে চলে আসেন সঞ্জয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি তার, ধরা পড়েন পুলিশের হাতে।

রোববার (৭জুলাই) রাত ২টার দিকে নগরীর ডবলমুরিং থানার দেওয়ানহাট এলাকা থেকে সঞ্জয় দেবনাথকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার তথ্যমতে কুমিল্লার কোতোয়ালী ও চান্দিনা থানা এলাকা থেকে চুরি হওয়া চার ভরি এক আনা স্বর্ণ উদ্ধার করে হালিশহর থানা পুলিশ।

অভিযানটি পরিচালনা করেন হালিশহর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) সহদেব কুমার সরকার, মো.ইয়াসিন ও এএসআই মো.হেলাল উদ্দিন।

গ্রেপ্তার সঞ্জয় (৩৭) কুমিল্লার হোমনা থানার চম্পক নগর এলাকার সন্তোষ দেবনাথের ছেলে।

এ বিষয়ে হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কায়সার হামিদ বলেন, ২৩ জুন আত্মীয় অপু চন্দ্র দেবনাথের বাসায় বেড়াতে আসেন সঞ্জয়। তিনদিন থেকে ২৬ জুন তিনি আবার কুমিল্লা চলে যায়। সঞ্জয় যাওয়ার পর অপু আলমারি খুলে দেখতে পান সেখানে থাকা চার ভরি সাত আনা স্বর্ণ নেই। পরে নিশ্চিত হয়ে থানায় অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, অভিযোগের পর আমরা সঞ্জয়কে খুঁজতে থাকি। তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় আমরা অভিযুক্ত সঞ্জয়ের অবস্থান নিশ্চিত করে তাকে ধরতে মধ্যরাতে অভিযান চালাই। দেওয়ানহাট থেকে তাকে ধরলেও স্বর্ণগুলো ছিল কুমিল্লায়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে কুমিল্লার দুটি এলাকা থেকে স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়।

আসামি সঞ্জয়কে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি কায়সার হামিদ।