ব্রেকিং:
এলপিএলের নিলামে পাঁচ টাইগার ক্রিকেটার, আছেন সাকিবও দেশে একদিনে ২২ মৃত্যু, শনাক্ত দেড় হাজারের বেশি ‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপনে ৩০ কোটি টাকা আত্মসাত করল সাদিয়া নারায়ণগঞ্জে মসজিদে আবারো বিস্ফোরণ, নিহত ১ এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে যা জানালো আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণে আসছে কঠোর আইন প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগকে সম্মাননা প্রদ নাইজেরিয়ায় ধর্ষককে খোজাকরণ আইন পাস চাকরির বয়স ১০ বছর হলে উচ্চতর গ্রেডে বাধা নেই অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রির অপরাধে ব্যবসায়ীদের জরিমানা আশুগঞ্জ মোকামে ধান সংকট, লোকসানে চাতাল মালিকরা বাসে তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ, অভিযুক্ত চালক-হেলপার গ্রেফতার রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ বাংলাদেশ বাড়লো একাদশে ভর্তির সময় সাত দেশ থেকে আসছে ৭৯ হাজার টন পেঁয়াজ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৯ লাখ ছাড়াল আখাউড়া স্থলবন্দরে বিএসএফ মহাপরিচালক মাদকের বড় চালানসহ বাবা ছেলে আটক দূর্গাপূজায় থাকছে না বর্ণিল আলোকসজ্জা স্বামী হত্যায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সুফিয়া গ্রেপ্তার
  • শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৭

  • || ৩০ মুহররম ১৪৪২

একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০  

কুমিল্লায় সরকারি নীতিমালা অমান্য করে সরকারি, এমপিও ও বেসরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। তবে সরকারের এই নীতিমালা লঙ্ঘন করে ফি আদায়ে সবচেয়ে বেশি অনিয়ম করছেন কুমিল্লা সদরসহ জেলার প্রত্যেকটি আধাসরকারি ও বেসরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট ও প্রশংসাপত্রে জন্য আর্থিক ও মানসিক ভাবে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের হয়রানির অভিযোগও রয়েছে। কিন্তু সরকারের এক পরিপত্রে উল্লেখ রয়েছে বৈশ্বিক করোনাভাইরাসের কারণে এবারের ভর্তিকার্যে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের থেকে একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্ট ও প্রশংসাপত্রসহ কোন প্রকার প্রমাণ্যপত্র জমা/ গ্রহণের প্রয়োজন নেই।

কুমিল্লা শহরের কয়েকটি কলেজ ঘুরে বিভিন্ন মহলের সঙ্গে কথা বলে অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড কর্তৃপক্ষও অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়টি স্বীকার করেন।

শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা যায়, এমপিও ভুক্ত মফস্বল/পৌর (উপজেলা) এলাকায় অবস্থিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে সেশন চার্জসহ একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি এক হাজার টাকা। পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার টাকা ভর্তি বাবদ আদায় করতে পারবে। কিন্তু সরকারের এই নীতিমালা মেনে জেলা সদর এবং উপজেলার কোন কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থী ভর্তি করছেন না। নিচ্ছেন সাড়ে তিন থেকে পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত। অতিরিক্ত ফি আদায় করছেন বিভিন্ন খাত দেখিয়ে।

জানা যায়, কুমিল্লার হাউজিং এস্টেট রূপসী বাংলা কলেজেও ভর্তি বাবদ অতিরিক্ত ফি আদায় করছেন। বেসরকারি এই প্রতিষ্ঠান একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তিসহ নামে-বেনামে বিভিন্ন খাতে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত ফি আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। অতিরিক্ত ফি আদায়ে অভিভাবকদের এই অভিযোগ শুধু সোনার বাংলা কিংবা রূপসী বাংলা কলেজের বিরুদ্ধে নয়। ঠিক একই অভিযোগ রয়েছে কুমিল্লা নগরীর রেসিডেন্সিয়াল কলেজ, কুমিল্লা কমার্স কলেজ, কুমিল্লা বিজ্ঞান কলেজ, ক্যামব্রিয়ান কলেজ (কোটবাড়ি), সিটি কলেজ (কোটবাড়ি), পাঠশালা কলেজ, মোশারফ হোসেন খান চৌধুরী কলেজ, নিমসার কলেজ, বুড়িচং এরশাদ কলেজ, আবু তাহের কলেজ, ড. মোশাররফ হোসেন কলেজ, ড. মোশাররফ ফাউন্ডেশন কলেজ, অধ্যক্ষ আবদুল মুজিদ কলেজসহ জেলার প্রত্যেকটি আধাসরকারি ও বেসরকারি কলেজগুলো নীতিমালা অমান্য করে এই অতিরিক্ত ফি আদায় করছে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে।

এ বিষয়ে সোনার বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম রেজা সৌরভ বলেন, নীতিমালা অনুযায়ী একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি বাবদ এক হাজার টাকাই নিচ্ছি। বাকী ৩ হাজার ৪০০ টাকা ডায়েরি, প্রসপেক্টরস, টিউটরিয়াল পরীক্ষার ফি এবং এক মাসের বেতনসহ আরও কিছু খাতের জন্য কলেজের গভর্নিং বডির সদস্যদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এই ফি আদায় করছি।

রূপসী বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াছিনুর রহমান ইয়াছিন বলেন, একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি বাবদ ৩ হাজার টাকা ফি আদায়ের জন্য আমরা কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে আবেদন করেছি। কিন্তু বোর্ড আমাদেরকে অনুমতি দেয়নি।

অভিভাবকদের অভিযোগ সাড়ে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকা ভর্তি ফি নিচ্ছেন এমন প্রশ্নের রূপসী বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ আরও বলেন, আমরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি বাবদ এক হাজার ৫০০ টাকা নিচ্ছি। এর বাহিরে কলেজের অন্যান্য খাত বাবদ তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার টাকা অতিরিক্ত ফি আদায় করছি। তবে কলেজের গভর্নিং বডির সদস্যদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক। এদিকে কুমিল্লা শহরের পাঁচটি সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ করেন একাধিক অভিভাবক। সরকারি পরিপত্র অনুয়ায়ী নির্ধারিত ফি চেয়ে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ, কুমিল্লা সরকারি কলেজ, কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজ, কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ এবং কুমিল্লা সরকারি সিটি কলেজ বিভিন্ন খাতে অতিরিক্ত ফি আদায় করছেন।

জানা যায়, ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি ফি বাবদ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজে এ বছর বিজ্ঞান বিভাগে ২ হাজার ৫০৯ টাকা, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ২ হাজার ৩৬৯ টাকা। এই বছর এই কলেজে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখা মোট এক হাজার ২০০ শিক্ষার্থী ভর্তি হবেন। কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজে এ বছর বিজ্ঞানে ভর্তি ফি ২ হাজার ৫২০ টাকা, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ২ হাজার ৪২০ টাকা।

এই ছাড়া কুমিল্লা সরকারি কলেজে এ বছর বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষাসহ তিন শাখায় ভর্তি ফি ২ হাজার ৩৬৭ টাকা। অভিযোগের বিষয়ে কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. জামাল নাছের বলেন, সরকারের পরিপত্র মেনেই আমরা একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি নিচ্ছি। পরিবহন, অত্যাবশ্যকীয় কর্মচারী ও নৈশ প্রহরী, অতিথি শিক্ষক এবং মসজিদ ফিসহ আরও একাধিক খাত মিলিয়ে ভর্তি ফি এর সাথে ২ হাজার ৪২০-৫২০ টাকা নেয়া হচ্ছে। এর বাহিরে অতিরিক্ত কোন ফি নেয়া হচ্ছে না।

কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুস সালাম বলেন, পরিপত্র ও নীতিমালা লঙ্ঘন করে শিক্ষার্থী ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অনেক অভিযোগই আসছে। কোন শিক্ষার্থী বা অভিভাবক সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগ করলে আমরা তাদের বিরুদ্ধে নীতিমালা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর