ব্রেকিং:
পুলিশের অভিযানে নারী সহ পলাতক আসামি আটক এমপির নামে ভুয়া নিউজ প্রকাশ করায় থানায় মামলা মামলা প্রতাহারের দাবীতে প্রাননাশের হুমকি বিশ্বরোডের ছন্দু ও বড় মিয়া হোটেলকে জরিমানা শত বছরের পুরোনো মদের কারখানা গুড়িয়ে দিয়েছে প্রশাসন আমানিয়া হোটেল’কে ২০ হাজার টাকা জরিমানা আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের আগুনে কুমিল্লার যুবকের মৃত্যু ৬ জেলার ৪৯ জন করদাতাকে সম্মাননা নুসরাত হত্যার প্রধান আসামি এখন কুমিল্লা কারাগারে ট্রাক চাপায় এসআই নিহত নকলের দায়ে পরীক্ষার্থী, শিক্ষক ও ঝাড়ুদার বহিষ্কার ড্যান্ডি`তে আসক্ত নগরীর ছিন্নমূল পথশিশুরা ডায়াবেটিস প্রতিরোধের পাঁচ উপায় আর্থিক লেনদেন করা যাবে ফেসবুকে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হচ্ছেন ৪৮ জন নারীর মন জয় করুন এই কৌশলে তাওবার ৬ উপকারিতা সাকিব না থাকায় ভারতীয় সিকিউরিটি গার্ডের আফসোস ফোকফেস্টের পর্দা উঠছে আজ সমুদ্রের জলে ভেসে এলো ১০০০ কেজি কোকেন

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৩১৪

এক নারীর ২য় বিয়েতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত: ১ নভেম্বর ২০১৯  

কুমিল্লা জেলার বি-পাড়া উপজেলার এক মহিলার দুই স্বামী! মৃত ফয়েজুল হকের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস। ১৯৯৮ সালে কুমিল্লা জেলার রত্নবতী পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল রহমানের ছেলে আলাউদ্দিন টুটুল এর সাথে সামাজিক ভাবে বিবাহ হয় তার।

মোবাইলে পরকিয়া করে চাদপুর জেলার উওর মতলব উপজেলার তাতুয়া গ্রামের আবুল হাসেমের ছেলে প্রবাসি আ: রহমান কে বিয়ে করে ২৮ সে -নভেম্বর-১০ সালে। রহমান বিয়ের পরে বিদেশ চলে গেলে ফেরদৌসী টুটুলের কাছে গিয়ে পুনরায় সংসার শুরু করে।

জান্নাতুল ফেরদৌস আগের স্বামী তালাক না দিয়ে কুমারি বলে প্রতারনার মাধ্যমে প্রবাসি আ: রহমানকে বিয়ে করে পরে এই ঘটনা যানা জানি হলে এই বছর দ্বিতীয় স্বামী আবদুর রহমান কে তালাক নোটিশ প্রদান করেছেন ।

একই ঘটনা করে আসছে জান্নাতুল ফেরদৌসির ভাসুরের মেয়ে আলাউদ্দিন টুটুলের এর ভাতিজী জান্নাতুল ফেরদাউস জলি। তার বিরুদ্ধে ৩য় অতিরিক্ত সহকারী জজ ঢাকা পারিবারিক আদালতের জলির বিরুদ্ধে ৩য় অতিরিক্ত সহকারী জজ ও পারিবারিক আদালত ঢাকায় পারিবারিক মোকদ্দমা নং ৭৭৩/২০১৯ এর আলোকে গত ২০/১০/২০১৯ তারিখে বাদীকে তালাক প্রধান না করে অন্যত্র বিয়ে ও বিদেশে গমনের বিবাদী জান্নাতুল ফেরদাউস জলির বিরুদ্ধে আগামী ধার্য তারিখ ০৩/০২/২০২০ পযন্ত একটি আদেশ প্রধান করেন ।

অন্য আরেক টি মামলায় বিজ্ঞ সি এম এম আদালত ৩২ ঢাকা মামলা নম্বর ১৩৮/১৯ গত ৩০/১০/২০১৯ তারিখে সি আই ডি পুলিশ মালিবাগ কে তদন্ত নির্দেশ প্রদান করেছেন । অন্য আরেকটি মামলা যাহার বিবাদী জলির মা এবং তার চাচা আলাউদ্দিন টুটুল যা বিজ্ঞ এ ডি এম আদালত ঢাকা মিস কাইস নাম্বার ০২/১৯ শুনানি আগামী ০৩/১১/২০১৯ ধার্য আছে ।

বোরহান উদ্দিন, তার শ্বশুরের বিরুদ্দে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানায় ২০০৭ সালে একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। তাছাড়া তথ্য গোপন করে একাধিক জন্ম নিবন্ধন সনদ গ্রহন ও ভূয়া জাতীয় পরিচয় পএ দিয়ে শক্তি ফাউন্ডেশন নামে একটি সংস্থা ঢাকাস্থ খিলগাও তিলপাড়া ব্রঞ্চ থেকে লোন নেন। জলির নামে ঢাকা রামপুরা থানা ১৭জুলাই সাধারণ ডায়রী করা হয়। জান্নাতুল ফেরদৌস জলি দুটি সন্তানের মধ্যে একটি সন্তান নিয়ে বর্তমানে তার বাবার বাড়ীতে অবস্থান করছেন , এবং আইন ও প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী অধ্য পযন্ত তালাকের কোন নোটিশ ও পাঠাচ্ছেনা ।

ইদানীং সে বিভিন্ন আদালতে একটি তালাক নোটিশ দেখাচ্ছেন যদি ও তা মুসলিম পারিবারিক আইন ১৯৬১ এর ৭ এর উপধারা মোতাবেক হয় নাই । এবং উক্ত তালাক নোটিশ ইতি পূর্বে উক্ত কাজি বাতিল করে প্রতায়ন পত্র দিয়েছেন । স্বামী বোরহান উদ্দিন এখন বিস্তত সুত্রের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে সে নতুন আরেকটা বিয়া করে সংসার করছে ।

এতে করে তাদের বড় সন্তান, বাধন ছোট ভাই এই জন্য পাগলের মত প্রহর গুনছে। জান্নাতুল ফেরদৌস জলির বিরুদ্ধে জন্মনিবন্ধন অদিধপ্তর থেকে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করার জন্য গত ৩ ফেব্রুয়ারী একটি চিঠি কুমিল্লা জেলা প্রশাসক ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এই সাস্থ্য কর্মকর্তার বরাবরে প্রেরণ করা হয়েছে স্বামী বোরহান উদ্দিন জান্নাতুল ফেরদৌসের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চান।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর