ব্রেকিং:
মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা চামড়া সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি ঈদে ট্রেনে মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ খাদ্যসামগ্রী ও দেড় শতাধিক মানুষ নিয়ে জাহাজ গেল সেন্ট মার্টিন কুমিল্লায় বেতন-বোনাসের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ আফজাল খান পত্নী বীর মুক্তিযোদ্ধা নার্গিস আফজালের ইন্তেকাল
  • মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

এক পরীক্ষায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর ২০২৩  

আসন্ন শিক্ষা বর্ষেই শুরু হচ্ছে এক ভর্তি পরীক্ষায় সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম। আইনি প্রক্রিয়ায় দেশের ৫৪টি বিশ্ববিদ্যালয়কে এক পরীক্ষায় ভর্তির বাধ্যবাধকতার মধ্যে আনতে, নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরুর আগেই নতুন অধ্যাদেশ জারির প্রক্রিয়া চলছে। অধ্যাদেশ জারি হলে কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এ বিষয়ে অপারগতা প্রকাশ করতে পারবে না। অধ্যাদেশ তৈরির কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

ইউজিসি সূত্র জানায়, শিগগিরই অধ্যাদেশ জারির প্রস্তাবনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর তথা রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠাবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। প্রস্তাবনা তৈরির কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আচার্যের অভিপ্রায় অনুযায়ী শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে গত ১৫ এপ্রিল সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একক ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থী ভর্তির প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে একক ভর্তি পরীক্ষা নিতে ১৫ সদস্যের একটি উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন কমিটিও গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। কমিটির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ইউজিসি চেয়ারম্যান। সদস্য সচিব হিসেবে আছেন ইউজিসি সচিব। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের উপাচার্য এই কমিটিতে সদস্য হিসেবে রয়েছেন। আসন্ন ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ থেকেই এই প্রক্রিয়ায় একক ভর্তি কার্যক্রম শুরু করতে গত সপ্তাহেও কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জানা যায়, সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এককভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের নতুন অধ্যাদেশে ‘ন্যাশনাল টেস্টিং অথরিটি’ (এনটিএ) নামে পৃথক একটি প্রতিষ্ঠান গঠনের বিধান রাখা হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠান শুধুই ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করবে।

 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সচিব ড. ফেরদৌস জামান গতকাল এই প্রতিবেদককে বলেন, উন্নত বিভিন্ন দেশ এমনকি পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির জন্য এমন আলাদা কর্তৃপক্ষ রয়েছে। বাংলাদেশের জন্য এনটিএ গঠনে যাবতীয় বিষয় আমলে নেওয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, এনটিএ গঠন কার্যক্রম সময়সাপেক্ষ হওয়ার কারণে শিগগিরই জারি করা হবে একটি অধ্যাদেশ। এই অধ্যাদেশ জারি করা গেলে আসন্ন ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষাও নেওয়া যাবে একক পরীক্ষার মাধ্যমে। ইউজিসি চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর এই প্রতিবেদককে বলেন, আসন্ন শিক্ষাবর্ষ থেকে দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একক ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন বিষয়ে দ্রুত একটি অধ্যাদেশ জারির সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। প্রস্তাবিত ন্যাশনাল টেস্টিং অথরিটি (এনটিএ) গঠনের আগ পর্যন্ত এই অধ্যাদেশ অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় আইনে যাই থাকুক না কেন এই অধ্যাদেশই প্রাধান্য পাবে। এর আগে সমন্বিত ভর্তি প্রক্রিয়া সংক্রান্ত এক সভায় ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেছিলেন, রাষ্ট্রপতি দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য। তাঁর অভিপ্রায় অনুযায়ী একক ভর্তি পরীক্ষা নিতে যে আদেশ জারি করা হয়েছে সেটি বাস্তবায়নে কাজ করতে হবে। বিভিন্ন উপাচার্যদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি বা আচার্যের আদেশের বাইরে কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের কোনো সুযোগ নেই। বর্তমানে দেশের ৫৪টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বতন্ত্রভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে থাকে। এর মধ্যে ২২টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একটি গুচ্ছে; তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট, কুয়েট ও রুয়েট) আরেকটি গুচ্ছে এবং কৃষি ও কৃষিশিক্ষা প্রধান সাতটি বিশ্ববিদ্যালয় অপর একটি গুচ্ছে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে থাকে। এ ছাড়া বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করে থাকে। দেশে ১১২টি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় আছে।