ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেল দুই শতাধিক পথশিশু ‘করোনার শুরু থেকেই ত্রাণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন সংসদ সদস্যরা’ মোবাইল অ্যাপ ও হটলাইনে সাংসদ আসলামুল হকের অভিনব খাদ্য সহায়তা জাতীয় কবির ১২১তম জন্মদিন আজ বাঙ্গালির ঈদ উৎসবে ‘রমজানের ওই রোজার শেষে’র আগমন কিভাবে? দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের ঈদ শুভেচ্ছা করোনাকালের ৫৬ দিনে ৩ লাখ ১৯ হাজার কনটেইনার হ্যান্ডলিং ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী ২৮০ ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়াকে ঈদ সামগ্রী প্রদান করেছে বন্ধু দুর্দিনে বারো হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিলো এসএসসি ২০০০ ব্যাচ আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত ৬হাজার পরিবারকে ৩কোটি টাকা সহায়তাদেবে ব্র্যাক শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ঈদ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রেখেছে সরকার দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ১৮৭৩, মৃত্যু ২০ মুসল্লিদের সুবিধার্থে মসজিদে সর্বাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন করোনা রোগীর চিকিৎসায় ৩ হাজার পদ সৃষ্টি নগদ সহায়তা পাবে ৪৮ লাখ প্রান্তিক উদ্যোক্তা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা উপকূলবাসীদের হালদা পাড়ে হাসির ঝিলিক, ১২ বছরের মধ্যে রেকর্ড ডিম সংগ্রহ
  • মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

২৭

করোনা আতংকে রোগী নেই দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে!

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০  

করোনা ভাইরাসজনিত কারণে রোগী শুন্য হয়ে পড়েছে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। ডেলিভারী রোগী ছাড়া কেউ ভর্তি হচ্ছেন না। গত ২৪ ঘন্টায় ৬ জন প্রসূতির নরমাল ডেলিবারী হলেও ভর্তি হয়েছেন চার জন। পুরুষ, মহিলা ও শিশু ওয়ার্ডসহ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এ হাসপাতালের তিনটি ওয়ার্ডই এখন রোগী শুন্য।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ২৫ মার্চ বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় মহিলা ওয়ার্ডে ভর্তি চারজনের সবাই ডেলিভারী রোগী |  জরুরী বিভাগ এবং আউটডোরেও কমেছে রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় জরুরী বিভাগে ৫০ জন, আউটডোরে মহিলা ২৫ জন, পুরুষ ৩৫ জন ও ১৭ জন শিশু চিকিৎসা নিয়েছে বলে সূত্র জানায়। যেখানে প্রতিদিন তিন থেকে পাঁচশ রোগী চিকিৎসা সেবা নিতে আসতো এখানে।

 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহীনুল আলম সুমন বলেন, আমাদের ডাক্তার, নার্সসহ সকল স্টাফ হাসপাতালে রয়েছে। মঙ্গলাবার রাতে ৬জন প্রসূতির নরমাল ডেলিভারী করার পর দুই বাড়ীতে চলে গেছে। বাকি চারজন আজ বুধবার চলে যেতে চাচ্ছে। করোনা ভাইরাসজনিত কারনে ছোট খাটো সমস্যা নিয়ে কেউ হাসপাতালে আসছেনা, মোবাইল ফোনে পরামর্শ নিচ্ছেন। করোনা ভাইরাস নিয়ে আতংকিত না হয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, দাউদকান্দিতে এখনো করোনা ভাইরাস আক্রান্ত কোন রোগী চিহ্নিত না হলেও আইসোলেশনের জন্য শহিদনগর ট্রমা সেন্টারকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর