ব্রেকিং:
মুজিববর্ষ উপলক্ষে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচি দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়ে ছাই যুবকের স্বপ্ন কৈলাইন হাই স্কুলে গ্রন্থাগারিক নিয়োগে অনিয়ম বার্ডে এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম কুমিল্লায় বিদেশি পিস্তল উদ্ধার বিশ্বে অনাহারের মুখে ২৭ কোটি মানুষ দেশে একদিনে ৩২ মৃত্যু, শনাক্ত দেড় হাজারের বেশি ১২ টাকা কেজিতে তুরস্ক থেকে আসছে কয়েক হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ ‘ভাল উদ্যোক্তা হতে প্রয়োজন গভীর আত্মবিশ্বাস’ যেভাবে দেশসেরা আলেম হলেন আল্লামা আহমদ শফী জরুরি অভিযোগ কেন্দ্রের ফোন নম্বর জানালো তিতাস গ্যাস কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে: কাদের অ্যাপের মাধ্যমে ধান কিনবে সরকার প্রবৃদ্ধির আশা দেখাচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর মসজিদে বিস্ফোরণ মামলা: তিতাসের বরখাস্ত ৮ কর্মকর্তা গ্রেফতার একদিনেই শনাক্ত ৩ লাখের বেশি, মৃত্যু ৫৪৬৫ চীনে ছড়িয়ে পড়া নতুন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ হাই-টেক পার্কে চার হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগ সুখবর পাচ্ছে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২৫ হাজার টন পেঁয়াজ রফতানির সিদ্ধান্ত ভারতের
  • রোববার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৭

  • || ০১ সফর ১৪৪২

১৫৬

করোনা সন্দেহে দাফনে বাঁধা, অবশেষে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপে লাশ দাফন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১২ মে ২০২০  

ইউপি সদস্যের বাধাঁর মুখে মৃত ব্যক্তির মরদেহ নিয়ে স্বজনরা ৫ ঘন্টা গ্রামের মুখের রাস্তায় অবস্থান করে। পরিবারের লোকজনের আহাজারিতেও তাদের মন গলেনি। অবশেষে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপে তার মরদেহ দাফন হয়। পরে গাঁ ঢাকা দেন বাধা দানকারীরা। কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের ছিলমপুর গ্রামে এ হৃদয় বিদারক ঘটনাটি ঘটে।

ভূক্তভোগির পরিবার ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, ছিলমপুর গ্রামের মৃত রোসমত আলীর ছেলে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য নয়ন মিয়া (৬৪) পাশ্ববর্তী উপজেলা দেবিদ্বার সদরে বসবাস করতেন। বার্ধক্যজনীত কারণে তার শারিরিক সমস্যা দেখা দিলে পরিবারের লোকজন তাকে শনিবার সকালে কুমিল্লা শহরের মুন হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সকাল ৭টায় সে মারা যায়। তাকে মা-বাবার কবরের পাশে দাফন করার জন্য সে মারা যাওয়ার পূর্বেই পরিবার লোকজনকে অছিয়ত করে যায়। তাই রোববার দুপুর ১টায় এম্বুলেন্স যোগে তার মরদেহ নিয়ে গ্রামে আসে পরিবারের লোকজন।

কিন্তুু পথিমধ্যে বাঁধা দেয় ইউপি সদস্য বশির আহম্মেদ দিপুর নেতৃত্বে এলাকার রুহুল আমিন, জসিম উদ্দিন ও বাবুল ড্রাইভারসহ বেশ কয়েকজন। তাদের ভাষ্য হলো তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তাই তাকে এই গ্রামে দাফন করতে দেওয়া হবে না। স্বজনরা অনেক কাকুতি মিনতি করে হাসপাতালের চিকিৎসা পত্র দেখিয়েও তাদেরকে বুঝাতে ব্যর্থ হয়েছেন যে, তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না। তখন এম্বুলেন্স মরদেহটি রাস্তায় রেখে দিয়ে চলে গেলে স্বজনদের আহাজারিতে এলাকার বাতাশ ভারি হয়ে ওঠে। খবর পেয়ে একদল সেনাবাহিনী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে বাধাঁদানকারীরা গাঁ ঢাকা দেয়। পরে সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাকে গার্ড অফ অনার দিয়ে ছিলমপুর উত্তর পাড়া কবরস্থানে বাবা-মায়ের পাশে তার লাশ দাফন করে।
ইউপি সদস্য বশির আহম্মেদ দিপুর সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

যাত্রাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ছিলমপুর গ্রামে যে ঘটনাটি ঘটেছে এটি অত্যন্ত হৃদয় বিদারক ও ঘৃণিত কাজ। আমি বিষয়টি পরে শুনেছি। এ ধরণের ঘটনা যাতে পুনরায় না ঘটে সে বিষয়ে আমি সচেষ্ট আছি।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাশ বলেন, বিষয়টি কোন পক্ষই আমি জানায়নি। পরে শুনেছি সেনাবাহিনীর লোকজন এসে তাকে দাফন করেছে। আমি জানলে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিতাম। বর্তমান করোনা ভাইরাস মহামারিতে আমাদেরকে আরো মানবিক ও সামাজিক হতে হবে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর