ব্রেকিং:
গার্ডেন থিয়েটার কুমিল্লার একক নাট্য প্রদর্শনী ৬৫ কোটি টাকার সেতুতে উঠতে হয় মই দিয়ে শোকে স্তম্ভিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি গ্রাম, প্রস্তুত ৫ কবর বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ড, মা-মেয়েসহ কুমিল্লার ৬ জন নিহত বেইলি রোডে আগুনের ঘটনায় মামলা রমজানে ব্রয়লার মুরগি দাম ২৫০-৩০০ টাকা হওয়ার শঙ্কা ১০ রাষ্ট্রদূতকে দেশে ফেরার নির্দেশ ইঞ্জিন বিকল, উত্তরবঙ্গের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ শিল্প-পণ্য মেলা বন্ধ চেয়ে ডিসিকে ব্যবসায়ীদের চিঠি ‘বউ-শাশুড়ি বইঘর’ গড়তে ২০০ বই নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে নববধূ পুলিশের দুই মামলায় জামিন পেলেন লক্ষ্মীপুর বিএনপির সদস্য সচিব শখের মোটরসাইকেলেই প্রাণ গেল কলেজছাত্র মাহিনের সেনবাগে বৃদ্ধকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তার ৩ রমজানে নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্যদের শপথ বুধবার এসএসসি পরীক্ষায় নকল দিতে গিয়ে ৩ যুবকের ২ বছর করে কারাদণ্ড ‘হামলা’ ও হেনস্থার বিচার দাবি কুবি শিক্ষক সমিতির প্রচারণায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ বিনা টিকিটে ভ্রমণ, ট্রেনের ভাড়া পরিশোধ করলেন প্রবাসী ঘুমন্ত মা-মেয়ের ওপর দুর্বৃত্তের অ্যাসিড নিক্ষেপ, আটক ১
  • রোববার ০৩ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৯ ১৪৩০

  • || ২১ শা'বান ১৪৪৫

কানের দুল ছিনিয়ে নিতে গৃহিণীকে হত্যা, কুমিল্লায় ৩ জনকে মৃত্যুদণ্ড

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২২  

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার গৃহিনী জামিলা বেগম হত্যা মামলায় ৩ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। এ মামলায় অপর এক আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। কুমিল্লা জেলা ও দায়রা জজ মোঃ হেলাল উদ্দিন মঙ্গলবার সকালে এই আদেশ দেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন মেঘনা উপজেলার শিকিরগাঁও এলাকার সুমন ও রাকিব এবং মানিকারচর এলাকার তাছির। এদের মধ্যে তাছির পলাতক রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২০ জুন সন্ধ্যায় মেঘনা উপজেলার মানিকারচর এলাকার গৃহিনী জামিলা বেগম নিখোঁজ হন। এর ৪ দিন পর বাড়ি সংলগ্ন একটি ফসলি জমি থেকে জামিলার অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ২৫ জুন জামিলার স্বামী ভ্যানচালক আবদুল হাকিম বাদী হয়ে মেঘনা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পরে তদন্তপূর্বক ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ৪ আসামীকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করে। এদের মধ্যে ৩ আসামী আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে। এ মামলায় দীর্ঘ তদন্ত শেষে পুলিশ ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মঙ্গলবার সকালে জনাকীর্ণ আদালতে ৩ জনকে মৃত্যুদণ্ড এবং টিটু নামে একজনকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন বিচারক। রায় ঘোষনাকালে দণ্ডপ্রাপ্ত রাকিব ও সুমন এবং খালাসপ্রাপ্ত টিটু এজলাসে উপস্থিত ছিলেন। এসময় দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামী কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।
রাস্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম সেলিম বলেন, জামিলা বেগমের কানের দুল ও টাকা ছিনতাইয়ের জন্য তাকে হত্যা করা হয়। রায়ে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।