ব্রেকিং:
শিক্ষার্থীদের ওপর বহিরাগতদের হামলা পুলিশের বিলম্বে ৪ কিলোমিটার জ্যাম! এলাকাবাসীর হাতে ইয়াবা সম্রাট আটক পেঁয়াজের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে বিশেষ অভিযান সংস্কারহীন সড়কের ভোগান্তিতে যাত্রীরা কোটি টাকা নিয়ে উধাও এনজিও! ইসলামের বিরুদ্ধে কটুক্তিকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি সেতুর অভাবে ভোগান্তিতে ২০ হাজার মানুষ পুলিশের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় আত্মহত্যা নাকি পরিকল্পিত হত্যা? ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ ধর্মীয় উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রচারে গ্রেপ্তার ২ ওটিটি প্লাটফর্ম ব্লেসবিট তৈরির স্বীকৃতি পেল টিকন বাঘের দেশের সমুদ্র সৈকত শিশুদের কৃমি হবার কারণ, লক্ষণ ও প্রতিরোধে করণীয় এক মিনিটেই খোলা যাবে ‘নগদ’ অ্যাকাউন্ট কেটে গেছে? জেনে নিন রক্তপাত বন্ধের সহজ উপায় মানসিক অসুস্থ আব্দুল্লাহ মুখস্ত করলেন পুরো কোরআন! (ভিডিও) মুখোমুখি ক্রিকেটার-বিসিবি, লাভ কার? সুস্মিতা সেন আজ ঢাকায় আসছেন

বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৮ ১৪২৬   ২৪ সফর ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
২৪৮৯

কিডনি রোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ ২০১৯  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাগুলোকেও কিডনি রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বিশ্ব কিডনি দিবস উপলক্ষে বুধবার এক বাণীতে এ আহ্বান জানান।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও বিশ্ব কিডনি দিবস পালিত হচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ রেনাল অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ কিডনি ফাউন্ডেশন ও ক্যাম্পস যৌথভাবে দিবসটি পালনের উদ্যোগ গ্রহণ করায় আমি সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানাচ্ছি’।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এবারের বিশ্ব কিডনি দিবসের প্রতিপাদ্য ‘সুস্থ কিডনি, সবার জন্য- সর্বত্র’ যথার্থ হয়েছে বলে তিনি মনে করেন। সুস্থাস্থ্যের জন্য সুস্থ কিডনির বিকল্প নেই উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, কিডনি রোগের চিকিৎসা অত্যন্ত ব্যয়বহুল। তবে আশার কথা, অনেক কিডনি রোগ প্রতিরোধযোগ্য। এ জন্য জনসচেতনতা ও প্রারম্ভিক পর্যায়ে রোগ শনাক্ত করা প্রয়োজন।

তিনি উল্লেখ করেন, আওয়ামী লীগ সরকার স্বাস্থ্যখাতে যুগান্তকারী সাফল্য অর্জন করেছে যা বিশ্বব্যাপী সমাদৃত হয়েছে। কিডনি রোগের প্রতিরোধ ও চিকিৎসার বিষয়ে সরকার যথাযথ গুরুত্ব দিচ্ছে এবং এ বিষয়ে প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোর মাধ্যমে প্রাথমিক পর্যায়ে কিডনি রোগ শনাক্ত করা সম্ভব। এর ফলে দীর্ঘমেয়াদি কিডনি রোগ ও কিডনি বিকল হওয়ার ঝুঁকি হ্রাস পাবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আশা করি, সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাগুলোও বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে কিডনি রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে আরো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।’ তিনি কিডনি দিবস-২০১৯’র সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর