ব্রেকিং:
রামগঞ্জে শাশুড়িকে শ্বাসরোধে হত্যা, ছেলের বউ আটক পিকআপের ধাক্কায় পল্লী বিদ্যুতের নারী কর্মী নিহত ছেলেদের ঘরের মেঝেতে রক্তের দাগ, মিলল অস্ত্র-রক্তমাখা কাপড় আশুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান সাবেক ভিপি নূরের বিরুদ্ধে দেবিদ্বারেও মামলা করোনা রোধে পোশাক কারখানার নতুন কৌশল বাড়ির কাছে পৌঁছে যাচ্ছে করোনার নমুনা সংগ্রহের গাড়ি করোনার মধ্যেই বাংলাদেশে উন্নতির লক্ষণ দেখছে বিশ্বব্যাংক লকডাউনেও মাছ, মাংস, দুধ, ডিম ও দুগ্ধজাত পণ্যের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় বিকাশে টাকা পাবে সাড়ে ১০ লাখ পরিবার করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু বেড়েছে অন্ধকারে সুবর্ণচর উপজেলা,বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাওয়ের হুমকি ৮ শতাধিক শতাধিক গরীব ও দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ মোবাইলে অন্যজনের সঙ্গে প্রবাসীর স্ত্রী কথা, অতঃপর... ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন কন্যা শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার লালমাই স্ত্রী নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল স্ত্রী-কন্যার সামনে স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছনা দরিদ্রদের ইফতার সামগ্রী উপহার দিলেন এএসপি সোনাগাজীতে মানববন্ধনে সন্ত্রাসী হামলা
  • শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১০ ১৪২৮

  • || ১০ রমজান ১৪৪২

কুমিল্লার ঠাকুরপাড়ায় বড় ভাইয়ের প্রেমের বলি ছোট ভাই !

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

আড়াই বছর আগে ভালোবেসে নিপা আক্তারকে বিয়ে করেছিলেন ইয়াছিন। তিনি জেলার মুরাদনগর উপজেলার পালাসুতা গ্রামের প্রবাসী নোয়াব মিয়ার ছেলে। পরিবারের অমতে বিয়ে করায় মানিককান্দি গ্রামের নিপার বাবা ডালিম মিয়াসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। তারা ইয়াসিনকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। এ নিয়ে ইয়াসিন ও নিপার পরিবারে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। সেই দ্বন্দ্বে খুন হন তার ছোট ভাই আমিন। ময়নাতদন্ত শেষে শনিবার দুপুরে পরিবারের কাছে আমিনের লাশ হস্তান্তর করা হয়। এ সময় পরিবারের সদস্যদের আহাজারিতে নিহতের ভাড়া বাসা নগরীর ঠাকুরপাড়া এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠে। জানাযার নামাজ শেষে টমসমব্রিজ এলাকায় আমিনের লাশ দাফন করা হয়।


সূত্র জানায়, গত শুক্রবার সকালে কুমিল্লা নগরীর শেখ ফজিলাতুন্নেছা মডার্ন হাই স্কুলের পিছনে বিসিক এলাকার ভেতর মাঠে ক্রিকেট খেলছিলো ইয়াছিনের ছোট ভাই মোহাম্মদ আমিন। এই খেলায় আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করছিলো নিপার মামাতো ভাই পারভেজ। নো বল দেয়ার দ্বন্দ্বের জের ধরে নিপার মামাতো ভাই পারভেজ ইয়াসিনের ছোট ভাইকে মোহাম্মদ আমিন ছুরিকাঘাতে খুন করে। এদিকে গতকাল ঘটনার পরে রাতে অভিযান চালিয়ে ঘাতক পারভেজকে আটক করে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ। তার দেখানো মতে হত্যার কাজে ব্যবহৃত ছোরা উদ্ধার করা হয়।


আমিনের মা শেফালী বেগম সকালে বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানার চারজনের নামোল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আসামিরা হলেন ঘাতক পারভেজ, তার ছোট ভাই আরমান, ঘাতক পারভেজের খালা নাজমা ও খালু জুয়েল।
নিহত মোহাম্মদ আমিনের বড় ভাই ইয়াছিন বলেন, আমি সম্পর্ক কইরা বিয়া করছি। এলাই¹া আমার ছোডু ভাইডারে আমার বউয়ের মামাতো ভাই পারভিজ্জা মাইরালাইছে। আমার ভাইডারে মারনের আগের সাপ্তাহ পারভিজ্জা আমার লগেও কাইজ্জা লাগছে। হেই সময় এলাকার মাইনষে কাইজ্জা থামাইছে।


আমিনের মা শেফালী বেগম বলেন, আমার পোলাডা সারাডা সাপ্তাহ কাম করতো। শুধু শুক্কুরবার আইলে খেলতো। কেউর লগে কাইজ্জা জগড়া করতো না। আমার ভালা পোলাডারে ছুরি দিয়া মাইরালাইলো।


কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল হক বলেন, ঘটনার দিন দুপুরে এজহার নামীয় আসামী নাজমা ও রাতে অভিযান চালিয়ে কুমিল্লা রেলস্টেশন এলাকা থেকে ঘাতক পারভেজকে আটক করি। তার দেখানো মতে ছোরাটাও উদ্ধার করি।