ব্রেকিং:
একশ’ কোটি টাকা নিয়ে ভারতে পালালেন ব্যবসায়ী মুন্সেফ কোয়ার্টার এলাকার সড়কের নামফলক অপসারণ কুমিল্লা মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটি অনুমোদন ২০ লাখ টাকার দাবিতে বন্ধুকে অপহরণ, সাতদিন পর উদ্ধার গোসল করাকে কেন্দ্র করে সৌদিতে বাংলাদেশি যুবক খুন ‘দুর্নীতি দমনে সরকার আশাবাদী’ প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি পৌঁছেছেন ব্রাহ্মণপাড়ায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠিদের মাঝে অনুদান বিতরণ কুবিতে সাংবাদিক হয়রানি ও লাঞ্ছনার বিচার চেয়ে মানববন্ধন কুমিল্লায় এ্যাম্বুল্যান্সের অবৈধ পার্কিংএ সৃষ্টি হচ্ছে যানজট লাকসাম রেলওয়ে জংশনের ষ্টেশন মাস্টারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তিতাসে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা চান্দিনায় বেতন স্কেল বৃদ্ধির দাবীতে শিক্ষকদের মানববন্ধন চৌদ্দগ্রামে ৭ দফার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন দেবিদ্বারে পুলিশের অভিযানে দুই গাঁজা ব্যবসায়ী আটক হোমনায় এনজিও কর্মীকে পিটিয়ে টাকা পয়সা ছিনতাই কুমিল্লায় নারীসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক মুরাদনগরে নিজের ড্রেজারের নৌকায় বালু ব্যবসায়ীর লাশ নাঙ্গলকোটে সরকারি খাল পাড়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বরুড়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ

রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৭১৫

কুমিল্লার পদুয়া বাজার থেকে পাঁচ মাদক ব্যবসায়ী আটক

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

কক্সবাজার থেকে কৌশলে ইয়াবা নিয়ে কুমিল্লায় আসেন পাঁচ ব্যবসায়ী। ভেবেছিলেন, তাদের কৌশল টের পাবে না পুলিশ। তবে সেই কৌশল ফাঁস হওয়ায় ধরা খেলেন তারা। 

সোমবার বিকেলে কুমিল্লা সদর দক্ষিণের পদুয়া বাজার থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। 

আটকরা হলেন-কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার হালসা গ্রামের আতিয়ার রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম, কুড়িগ্রামের রৌমারী থানার ধনারচর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে জাহিদুল ইসলাম, একই জেলার চুলিয়ারচর গ্রামের নরুজ্জামানের ছেলে মো. সুলতান, রাজিবপুর থানার চরসাজৈ গ্রামের ওসমান গনির ছেলে শরিফুল ইসলাম, একই উপজেলার চররাজিবপুর গ্রামের আবু বকর ছিদ্দিকের ছেলে ফারহজান রাজ।

কুমিল্লা ডিবি পুলিশের এসআই পরিমল দাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে পুলিশের চেকপোস্টে বিভিন্ন গাড়ি তল্লাশি করা হয়। এ সময় চেকপোস্টের আগে একটি গাড়ি রেখে পাঁচজন কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। সেই কৌশল বুঝতে পেরে পুলিশ গাড়িসহ তাদের ঘেরাও করে। পরে তাদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে ইয়াবা থাকার কথা অস্বীকার করে। এরপর পুলিশ পাশের একটি ক্লিনিকে তাদের এক্সরে করলে পাকস্থলির মধ্যে থাকা ইয়াবার সন্ধান পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিক বিশেষ কৌশলে পাকস্থলিতে থাকা ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এতে ২৬০টি প্যাকেট পাওয়া যায়। যার মধ্যে ১৩ হাজার ইয়াবা ছিল। 

তিনি আরো বলেন, ডিবি পুলিশের এসআই ইকতিয়ার উদ্দিন বাদী হয়ে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। পরে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর