ব্রেকিং:
দুর্ঘটনা রোধে নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন শিক্ষার্থীদের রিফাতকে হারিয়ে স্বজনদের আর্তনাদ কুমিল্লায় ফের অস্থির পেঁয়াজের দর জেএসসি’র প্রবেশপত্রে ভুল সংশোধন ২৯ অক্টোবর পর্যন্ত এবার আঙুলের রিং হবে স্মার্ট! যে মাছ দেখামাত্র মেরে ফেলার পরামর্শ! শ্বশুরকে বিষ দিয়ে হত্যা করল বড় বউ! রাজীবের সঙ্গে ভাইরাল ভিডিও নিয়ে যা বললেন মেহজাবিন একটি মিষ্টি কুমড়ার ওজন ৯৮৬ কেজি! বিসিবিতে ক্ষুব্ধ ক্রিকেটাররা! সর্বদলীয় মুসলিম ঐক্য পরিষদের দাবি মেনে নিল প্রশাসন আশ্রয়ণ প্রকল্পের নতুন ঘর পেলো তিনশ’ গৃহহীন পরিবার হা’মলা থেকে রক্ষায় মন্দিরের নিরাপত্তায় মাদ্রাসাছাত্ররা স্বাবলম্বী হতে গিয়ে ৬৯ বছরে বিয়ে, বাবা হলেন ৭১-এ পাঠাগার আছে,পাঠক কই? শিক্ষার্থীদের নির্যাতনের সময় বাজানো হয় গান কুবির প্রথম সমাবর্তন ২৭শে জানুয়ারি সূর্যের আলো ও পানি দিয়ে গ্যাস-বিদ্যুৎ উপাদান অল্পের জন্য রক্ষা পেলো ইন্টার মিলান পরিকল্পিতভাবে দাঙ্গা সৃষ্টিতে জামায়াত শিবিরের চক্রান্ত!

মঙ্গলবার   ২২ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৬ ১৪২৬   ২২ সফর ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
১০৭

কুমিল্লার বোমা হামলা মামলায় খালেদার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন পিছিয়েছে

প্রকাশিত: ১ জুলাই ২০১৯  

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার, জগমোহনপুর এলাকায় বাসে দুর্বৃত্তদের পেট্রল বোমা হামলায়, আট যাত্রী নিহতের ঘটনায় দায়ের করা হত্যা মামলায়, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন পিছিয়েছে।

গতকাল ৩০ জুন,  চার্জ গঠনের নির্ধারিত দিন থাকলেও আদালত আগামী ২১ আগস্ট ধার্য করেছেন। কুমিল্লার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আলী আকবর এ আদেশ দেন।
এ মামলায় বেগম খালেদা জিয়া জামিনে রয়েছেন। অন্য একাধিক মামলায় তিনি জেলহাজতে থাকায়, তার আইনজীবীরা সময় প্রার্থনা করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

এ মামলার প্রধান আসামি জামায়াত নেতা সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের ও অপর আসামি বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক এমপি মনিরুল হক চৌধুরী, জামিনে থেকে আইনজীবীর মাধ্যমে হাজিরা দেন। 

মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা যায়, বিএনপি-জামায়াতসহ ২০ দলীয় জোটের অবরোধ চলাকালে, গত ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে, ঢাকাগামী আইকন পরিবহনের একটি বাস চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুর এলাকায় পৌঁছালে, দুর্বৃত্তরা পেট্রল বোমা নিক্ষেপ করে। এ সময় বাসে ঘুমিয়ে থাকা ৭ যাত্রী ঘটনাস্থলে ও হাসপাতালে নেয়ার পর একজনসহ ৮ যাত্রী মারা যান। 

নারকীয় এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের এসআই নুরুজ্জামান হাওলাদার, বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি ও বিস্ফোরক আইনে একটিসহ মোট দুটি মামলা করেন।

দুটি মামলায় দুই বছর এক মাস তদন্ত ও পুলিশসহ ৬২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের এসআই ইব্রাহিম, ২০১৭ সালের ৬ মার্চ আদালতে চার্জশিট দেন।
দুই মামলায় ৭৮ জনকে চার্জশিটভুক্ত করা হয়। এদের মধ্যে উভয় মামলায় জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা, চৌদ্দগ্রামের সাবেক এমপি ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরকে প্রধান আসামি করা হয়।

এছাড়া চার্জশিটে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মনিরুল হক চৌধুরী ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক শওকত মাহমুদ, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ ও দপ্তর সম্পাদক রুহুল কবির রিজভীকে হুকুমের আসামি করা হয়।
তদন্ত শেষে দুটি চার্জশিটে মামলার এজাহারভুক্ত আটজনকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এদের মধ্যে, চৌদ্দগ্রামের চান্দিশকরা গ্রামের সাহাব উদ্দিন পাটোয়ারী বন্দুকযুদ্ধে ও জগমোহনপুর গ্রামের সোহেল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। 
পরে আদালতের নির্দেশে আট যাত্রী হত্যা মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য কুমিল্লা ডিবিতে স্থানান্তর করা হয়।

২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর জেলা ডিবির পুলিশ পরিদর্শক ফিরোজ হোসেন ওই মামলার অধিকতর তদন্ত শেষে বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী, মনিরুল হক চৌধুরী, জামায়াত নেতা ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহেরসহ ৭৭ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেন। এ মামলার আসামি বিএনপি নেতা এমকে আনোয়ার মারা যাওয়ায় তার নাম চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর