ব্রেকিং:
কুমিল্লায় ঘরে ঘরে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ কুমিল্লায় প্রাইভেটকার খালে, স্বামী-স্ত্রীসহ নিহত ৩ রোগ-ব্যাধি ও বিপদ-আপদ থেকে মুক্তির দোয়া নজরদারিতে গুজব সৃষ্টিকারীরা করোনায় অর্ধশত বাংলাদেশির মৃত্যু কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ছেয়ে গেছে সাগরলতায় ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম-দুর্নীতি সহ্য করা হবে না: প্রধানমন্ত্রী করোনা নিয়ে গুজব ছড়াচ্ছে জেকে ব্রেকিং নিউজসহ বেনামি নিউজ পোর্টাল! কুমিল্লায় হোম কোয়ারেন্টাইনের সংখ্যা কমছে: আছে ১ হাজার ৬০ জন পাঁচ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নগরীর সংরাইশে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা ঘরে থাকা অসহায়-কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ সদরের নিশ্চিন্তপুরে যুবকের ঝুঁলন্ত লাশ উদ্ধার বরুড়ায় করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরণ ও জীবাণুনাশক স্প্রে প্রদান কর্মহীন পরিবারকে খাদ্য সামগ্রী দিলেন কানাডা প্রবাসী ১৫ হাজার অসহায় পরিবারকে দেয়া হবে খাদ্য সহায়তা কুমিল্লায় ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধ নিহত কুমিল্লায় গৃহপরিচারিকা ধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার ৮ হাজার পরিবারকে খাবার দিল কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন ৫০০ পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন হিরো আলম
  • মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৭ ১৪২৬

  • || ০৬ শা'বান ১৪৪১

১৫০৯

কুমিল্লায় আলুর বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২ মার্চ ২০২০  

এবার প্রায় ১৬ হাজার হেক্টর জমিতে ১২ জাতের আলুর আবাদ করেছেন কুমিল্লার চাষীরা। ৪ লক্ষাধিক টন আলু উৎপাদন হয়েছে। কয়েক দিনের মধ্যে শুরু হবে আলু তোলার মহোৎসব।

১৬ উপজেলার মধ্যে দাউদকান্দি, চান্দিনা, দেবিদ্বার, আদর্শ সদর, বুড়িচং, হোমনা, মেঘনা, তিতাস, মুরাদনগর, সদর দক্ষিণ ও বরুড়ায় ব্যাপক ফলন হয়েছে।

ফলনের দিক থেকে দাউদকান্দি এগিয়ে রয়েছে। এ উপজেলায় ৫ হাজার ৯২১ হেক্টর জমিতে আলু আবাদ হয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে চান্দিনা, ২ হাজার ৮০০ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে।

চাষীরা ডায়মন্ড, কার্ডিনাল, গ্র্যানোলা, মালটা, হীরা, অরিগো, কোস্টারিকা, পেট্রোনিজ, বেলেনী, এস্টারিক্স, সাগিতা ও রোজগোল্ড জাতের আলুর আবাদ করেছে। তবে হোয়াইট ডায়মন্ড ও কার্ডিনাল জাতের আলুর ব্যাপক ফলন হয়েছে। এছাড়াও অনেকে অন্যান্য জাতের আলুও আবাদ করেছে।

চাষীরা জানান, অনুকূল আবহাওয়া ও কৃষি উপকরণ সুলভমূল্যে পাওয়ায় এবার ফলন ভালো হয়েছে। ন্যায্যমূল্য পেলে ভালো লাভ করা যাবে। কৃষি কর্মকর্তাদের পরামর্শ মেনে চলায় শীত ও ঘনকুয়াশায়ও আলু ক্ষেতের কোনরকম ক্ষতি হয়নি। জমিতে সঠিক মাত্রার সুষম সার প্রয়োগ করা হয়েছে।

কৃষি সম্প্রারণ অধিদফতর কুমিল্লার উপ-পরিচালক সুরজিত চন্দ্র দত্ত বলেন, কুমিল্লার সবক’টি উপজেলার মাটি আলু চাষের জন্য খুবই উপযোগী। প্রতিষেধক হিসেবে ছত্রাকনাশক প্রয়োগ করে সুফল পেয়েছেন আলু চাষীরা।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর