ব্রেকিং:
মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা চামড়া সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি ঈদে ট্রেনে মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ খাদ্যসামগ্রী ও দেড় শতাধিক মানুষ নিয়ে জাহাজ গেল সেন্ট মার্টিন কুমিল্লায় বেতন-বোনাসের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ আফজাল খান পত্নী বীর মুক্তিযোদ্ধা নার্গিস আফজালের ইন্তেকাল
  • মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

কুমিল্লায় কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৩ লাখ গবাদিপশু

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৯ জুন ২০২৪  

আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে কুমিল্লায় শেষপর্যায়ে গরু প্রস্তুতে ব্যস্ত সময় পার করছেন খামারিরা। জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগ বলছে, কুমিল্লায় এবার চাহিদার তুলনায় ৯ হাজারের অধিক কোরবানির পশু বেশি আছে। ১৭ উপজেলায় বেড়েছে গরু, মহিষ ও ছাগলের সংখ্যা।
ঈদুল আজহায় এবার কুমিল্লার ১৭ উপজেলায় এবার ২ লাখ ৭৯ হাজার ১২০টি কোরবানির পশুর চাহিদার বিপরীতে ২ লাখ ৮৮ হাজার ৭৮৮টি গবাদিপশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত করেছেন স্থানীয় খামারিরা। জেলা-উপজেলার বিভিন্ন খামারে এসব পশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে এখন পশু পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন কুমিল্লার খামারিরা।

পরিচর্যাকারীরা জানান, ঈদের জন্য তারা পশুর বাড়তি যত্ন নিচ্ছেন, নিয়মিত পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতাসহ পুষ্টিকর খাবারের যোগান দেওয়া হচ্ছে পশুকে।

জেলা প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের তথ্যমতে, জেলায় কোরবানির জন্য যে পরিমাণ পশু রয়েছে তাতে চাহিদা মিটিয়ে প্রায় ৯ হাজার ৬৬৮টি পশু উদ্বৃত্ত থাকবে।

জেলা প্রশাসন তথ্যমতে, কুমিল্লায় স্থায়ী পশুরহাট ৭৫টি। কোরবানি ঈদকে কেন্দ্র করে এ পর্যন্ত অস্থায়ী হাটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে ৩১০টি। তবে অস্থায়ী হাটের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

আদর্শ সদরের ডুমুরিয়া চান্দপুর গরুবাজার সংলগ্ন এসআইএফ এগ্রো ফার্মের মো. শরিফ বলেন,  আমার খামারে ৩০টি বিক্রি উপযোগী গরু রয়েছে, যা আমি এবারের ঈদে বিক্রি করবো। দেড় লাখ  থেকে সাড়ে ৫ লাখ টাকা মূল্য পর্যন্ত গরু রয়েছে। গরুগুলোকে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি খাবার খাওয়ানো হচ্ছে। এবার এসব গুরু বিক্রি করে ভালো মুনাফার আশা করছেন তিনি।

দেবিদ্বার আছানপুর গ্রামের খামারি মাহাবুব আলম বলেন, গো-খাদ্য এবং শ্রমিকের মজুরি অধিক হওয়ায় এখন গরুর দাম বেশি। খাবারের দাম কমিয়ে আনা হলে কিছুটা কমতে পারে মাংসের দাম।

খামারগুলোয় পশু ক্রয় করতে আসা ক্রেতারা বলছেন, অস্থায়ী হাট বাজারের তুলনায় খামারে ভালো মানের গবাদিপশুর মজুদ থাকায় সেখান থেকে দরদাম করে দেখেশুনে তারা পছন্দের পশু নিতে পারছেন। বাজারের ভিড় এড়িয়ে সুস্থ-সবল ভালো গরু কিনতে খামারগুলোতে নজর রাখছেন তারা।

কুমিল্লা জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা চন্দন কুমার পোদ্দার বলেন, কোরবানির ঈদকে ঘিরে এ বছর আমাদের পর্যাপ্ত পশু মজুত রয়েছে। উদ্বৃত্তও থাকবে। ভারতীয় গরু দেশে ঢুকতে দেওয়া হবে না।