ব্রেকিং:
কুবিতে সাংবাদিক মারধরের ঘটনায় ৩ শিক্ষার্থী বহিষ্কার পূর্ব যে কোন সময়ের তুলনায় এই সময়ে এসিড সন্ত্রাস কমে এসেছে বসন্তের আগেই বাসন্তী সাজে কুমিল্লা ইপিজেড! পুলিশকে ভয় পাবেন না বরং তাদেরকে বন্ধু ভাবুন ছাত্রলীগ নেতার সাহসিকতায় মাদক সম্রাট আটক সরু রাস্তার কারণে লাশের খাটিয়া বহনে বিড়ম্বনা একে একে বেরিয়ে আসছে কুমিল্লায় আলোচিত ৬ হত্যাকাণ্ডের ক্লু ছাড়পত্র আনতে ক্লিনিকগুলোকে সিভিল সার্জনের চিঠি কুমিল্লা জেলা পুলিশের ৮টি সেরা পুরস্কার অর্জন মহাসড়কের সৌন্দর্য ফেরাতে ময়লা-আবর্জনা অপসারণ কুবি`র পাঁচ শিক্ষার্থী পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক কৃষিতে বেকারত্ব নিরসনের সম্ভাবনা কুমিল্লার তরুনদের ফেব্রুয়ারিতেই চালু হচ্ছে কক্সবাজার থেকে সেন্টমার্টিনের জাহাজ নোট-গাইড পড়ানো ও বাড়তি ফি আদায় বন্ধের নির্দেশ আউটসোর্সিংয়ে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে বাংলাদেশ পণ্য কিনে প্রতারিত হলে অভিযোগ করুন এভাবে সালাত ও জাকাতে অলসতাকারীর পরিণতি ১ম পর্ব নামের মিল থাকায় জেল খাটছেন চা দোকানি বাংলাদেশের সফরের আগে লাহোরে ৩ সন্ত্রাসী গ্রেফতার অধ্যক্ষের নগ্ন ভিডিও ফাঁস, ফেসবুকে তোলপাড়

বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৪৭২৯

কুমিল্লায় সাক্কুর বাসায় গেলেন ইয়াসিন; দেখা করেননি সাক্কু!

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  

কুমিল্লা- (আদর্শ সদর উপজেলা, সিটি করপোরেশন কুমিল্লা সেনানিবাস) আসনে বিএনপির প্রার্থী হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেই কুসিক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু তাঁর অনুসারীরা। ফলে কুমিল্লা সদর আসনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান করছেন মেয়র সাক্কু।

 

গত মঙ্গলবার রাতে দলটির প্রার্থী মোহাম্মদ আমিন উর রশিদ কুসিক মেয়রের বাড়িতে গেলেও মনিরুল হক সাক্কু দেখা করেননি। এমনকি মুঠোফোনেও কল রিসিভ করছেন না।

 

আমিন উর রশিদ কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক। মনিরুল হক একই কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। কমিটি গঠনসহ নানা বিষয় নিয়ে বিরোধের জের ধরে আমিন উর রশিদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে নামছেন না বলে জানিয়েছেন মনিরুল।

 

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে আমিন উর রশিদ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া, প্রচার সম্পাদক মোস্তফা জামান শহর বিএনপির সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে নিয়ে সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুলের বাসায় যান।

 

বাসার নিচতলার দারোয়ান মেয়রকে জানান, আমিন উর রশিদসহ চারজন তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চান। মেয়র বলেন, ‘বলে দাও, আমি বাসায় নেই।পরে মেয়রের মুঠোফোন নম্বরে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা একাধিকবার কল করলেও তিনি ধরেননি। মিনিট দশেক অপেক্ষা করে ওই চার নেতা ফিরে যান।

 

জানতে চাইলে বিএনপির প্রার্থী আমিন উর রশিদ বলেন, ‘আমি গিয়েছিলাম দেখা করতে, তিনি (মেয়র) সাক্ষাৎ দেননি।

 

বিষয়ে মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, ‘ইয়াছিন সাব (আমিন উর রশিদ) কয়েকজন নেতাকে নিয়ে আমার বাসায় এসেছিলেন। আমি তাঁর লগে দেখা করিনি। জেলা এবং মহানগর যুবদল, ছাত্রদল স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটির শীর্ষপদগুলো একতরফাভাবে নিয়ে গেছেন তিনি।

 

আমার কোনো নেতা-কর্মীকে কমিটিতে পদ দেননি। দক্ষিণ জেলা বিএনপির কমিটিও হয় না বছর ধরে। গত আগস্ট দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সাংগঠনিক বিষয়ে তিনি উল্টাপাল্টা কথা বলেন।

 

তার ওপর ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে তাঁর ব্যক্তিগত রাজনৈতিক কার্যালয় ব্যবহার ছাড়া তিনি আমার জন্য কোনো কাজ করেননি। আমি তাঁর জন্য মাঠে নামব না।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর