ব্রেকিং:
‘প্রাণ-মিল্কভিটা-আড়ংসহ পাস্তুরিত সব দুধই মানহীন’ বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে লিভার প্রতিস্থাপনে সফল অস্ত্রোপচার ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্য শূন্যের কোটায় আসবে কালো সোনা সাদা করে হাজার কোটি টাকা পাচ্ছে সরকার মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি, নার্সকে পেটাল ফার্মেসির লোক ২৮ জুন বসবে পদ্মা সেতুর ১৪তম স্প্যান ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনা ; ৯৯৯-এ ফোন করে শাহান মিয়া বাঁচালো ৩০০ প্রাণ সততার পুরস্কার পেলেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের ১৫ কর্মকর্তা দুদক কার্যালয়েই হবে দুর্নীতির মামলা ভারতের চেয়ে বাংলাদেশে হজ পালনের ব্যয় কম দিনের আলোয় বৃদ্ধার টাকা ভুল হাতে দিলো ব্যাংক ‘হার কিসি কো, নেহি মিলতা’ গেয়েই গোল্ডেন গিটার মিললো নোবেলের প্রথম দিনে বৈধ হ‌লো ২৫ কোটি টাকার স্বর্ণ ট্রেন দুর্ঘটনা তদন্তে চার সদস্যের কমিটি বাংলাদেশকে জিম্বাবুয়ের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ক্রিকেটানুরাগীদের আওয়ামী লীগই দেশকে এগিয়ে নিচ্ছে: শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যূনতম বয়স নির্ধারণে হাইকোর্টের রায়ই বহাল জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রথম দুই নারী সামরিক পাইলট (ভিডিও) কমবে বৃষ্টির পরিমান, বাড়বে ভ্যাপসা গরম সজীব ওয়াজেদ জয় গুচ্ছগ্রামে আশ্রয় পেল ১৪০ পরিবার

বুধবার   ২৬ জুন ২০১৯   আষাঢ় ১১ ১৪২৬   ২২ শাওয়াল ১৪৪০

কুমিল্লার ধ্বনি
৪৪১৭

কুমিল্লায় সাক্কুর বাসায় গেলেন ইয়াসিন; দেখা করেননি সাক্কু!

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  

কুমিল্লা- (আদর্শ সদর উপজেলা, সিটি করপোরেশন কুমিল্লা সেনানিবাস) আসনে বিএনপির প্রার্থী হাজী আমিন উর রশীদ ইয়াছিনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেই কুসিক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু তাঁর অনুসারীরা। ফলে কুমিল্লা সদর আসনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান করছেন মেয়র সাক্কু।

 

গত মঙ্গলবার রাতে দলটির প্রার্থী মোহাম্মদ আমিন উর রশিদ কুসিক মেয়রের বাড়িতে গেলেও মনিরুল হক সাক্কু দেখা করেননি। এমনকি মুঠোফোনেও কল রিসিভ করছেন না।

 

আমিন উর রশিদ কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক। মনিরুল হক একই কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। কমিটি গঠনসহ নানা বিষয় নিয়ে বিরোধের জের ধরে আমিন উর রশিদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে নামছেন না বলে জানিয়েছেন মনিরুল।

 

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে আমিন উর রশিদ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া, প্রচার সম্পাদক মোস্তফা জামান শহর বিএনপির সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে নিয়ে সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুলের বাসায় যান।

 

বাসার নিচতলার দারোয়ান মেয়রকে জানান, আমিন উর রশিদসহ চারজন তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চান। মেয়র বলেন, ‘বলে দাও, আমি বাসায় নেই।পরে মেয়রের মুঠোফোন নম্বরে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা একাধিকবার কল করলেও তিনি ধরেননি। মিনিট দশেক অপেক্ষা করে ওই চার নেতা ফিরে যান।

 

জানতে চাইলে বিএনপির প্রার্থী আমিন উর রশিদ বলেন, ‘আমি গিয়েছিলাম দেখা করতে, তিনি (মেয়র) সাক্ষাৎ দেননি।

 

বিষয়ে মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, ‘ইয়াছিন সাব (আমিন উর রশিদ) কয়েকজন নেতাকে নিয়ে আমার বাসায় এসেছিলেন। আমি তাঁর লগে দেখা করিনি। জেলা এবং মহানগর যুবদল, ছাত্রদল স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটির শীর্ষপদগুলো একতরফাভাবে নিয়ে গেছেন তিনি।

 

আমার কোনো নেতা-কর্মীকে কমিটিতে পদ দেননি। দক্ষিণ জেলা বিএনপির কমিটিও হয় না বছর ধরে। গত আগস্ট দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সাংগঠনিক বিষয়ে তিনি উল্টাপাল্টা কথা বলেন।

 

তার ওপর ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে তাঁর ব্যক্তিগত রাজনৈতিক কার্যালয় ব্যবহার ছাড়া তিনি আমার জন্য কোনো কাজ করেননি। আমি তাঁর জন্য মাঠে নামব না।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর