ব্রেকিং:
বৈশ্বিক সঙ্কটে নারীদের সুরক্ষা মতিঝিলে হবে ২৫ তলাবিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু চা ভবন অতিরিক্ত ২ মাসের বেতন পাচ্ছেন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে পশু কোরবানির ব্যবস্থা করা হবে দেশের ৬৬০ ওসিকে কঠোর বার্তা ৪ হাসপাতালের তথ্য তলব দুদকের ১৪ ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ ৩১ বছর পর এবার কাঁচা চামড়া রপ্তানি! ক`জন সমালোচক মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন? সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক দুর্নীতিবাজ যেই হোক ব্যবস্থা নিচ্ছি ড্রেজার মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা মাদ্রাসা ছাত্রীর আত্মহত্যা প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে ১৩ লক্ষাধিক টাকার চেক বিতরণ গণধর্ষণের সংবাদ প্রকাশ করায় চান্দিনায় ২ সাংবাদিককে মারধর ‘পোশাক শ্রমিকদের ৮৪ কোটি টাকার সহায়তা দেয়া হয়েছে’ করোনা মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রের ৭ মিলিয়ন ডলারের খাদ্য সহায়তা পাপুল কুয়েতের নাগরিক হলে সংসদ সদস্য পদ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার্থীদের বকেয়া উপবৃত্তির টাকা ছাড় মানব পাচারের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান সরকারের :প্রধানমন্ত্রী
  • শুক্রবার   ১০ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৬ ১৪২৭

  • || ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪১

১১৭৮

গোমতী চরে শীতকালীন সবজির বাম্পার ফলন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০১৯  

কুমিল্লার গোমতীর চরে শীতকালীন সবজি উৎপাদনে ব্যাস্ত কৃষকরা। নদীর চরের উর্বর পলি মাটি আর সেচের সুবিধা থাকায় সারা বছরই সবজির ভালো ফলন হয় এখানে।

দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা বেপারীরা চরে উৎপাদিত ফসল সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে কিনে নিয়ে নিমসার, ফেনী, চট্টগ্রাম ও ঢাকার তেজগাঁও সহ বড় বড় পাইকারী বাজারে নিয়ে বিক্রি করেন।

দালাল বা ফরিয়া ব্যাবসায়ীদের দৌরাত্ম্য না থাকায় পরিশ্রমের সঠিক মূল্য পাচ্ছেন তারা। আবার কৃষকদের অনেকে নিজেরাই নিজেদের ক্ষেতের সবজি বাজারে নিয়ে বিক্রি করেন।

শীতকালীন আগাম শাক সবজির চাহিদা যেমন বেশী তেমনি দামও পাওয়া যায় ভালো, বললেন বুড়িচংয়ের কামারখারা এলাকার কৃষক জহির মিয়া। প্রায় ৩০ শতক জমিতে মুলা চাষ করেছেন এবার প্রতি কেজি মুলা ৩০ টাকা দরে বিক্রি করেছেন তিনি। তবে গত কয়েকদিন ঘুর্ণিঝড় বুলবুলের কারনে টানা বৃষ্টিপাতে সবজি ক্ষেতের কিছুটা ক্ষতি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

কৃষি কাজের আদর্শ ভূমি এই গোমতী চরে শীতকালীন শাক সবজির ভেতরে রয়েছে পাতাকপি, ফুলকপি, লাউ, সীম, লালশাক, ঢেড়স, গোলআলু, মিষ্টি আলু, কুমড়া, ডাটা, মূলা, ধনিয়া, কাঁচামরিচ ও পালংশাক সহ নানা জাতের সবজি ও ফসল।

একদিকে বিস্তীর্ণ সবুজ শাক সবজি দেখে যেমন হৃদয় জুড়িয়ে যায় তেমনি আবার, শীতকাল এলেই ইটভাটা মালিক ও মাটি কাটা দস্যুদের কোদাল আর ভেকু মেশিন এর দৌরাত্ম্যের কারনে হৃদয়ে রক্তক্ষরণও হয়।

শীতের এ শুষ্ক মৌসুমে নদীর প্রতিরক্ষা বাঁধ সড়ক ও ফসিল জমির ব্যাপক ক্ষতি করে চলে চরের মাটি কাটার মহোৎসব। কৃষি জমির মাটি কাটায় দেশের প্রচলিত আইনের বাধ্য বাধকতা ও কঠোরতা থাকলেও আইনের যথাযথ প্রয়োগ না থাকায় বন্ধ হচ্ছে না মাটি কাটা। বিক্সস ফিল্ডের মালিক, লোভী মাটি ক্রেতা ও বিক্রাতা সিন্ডিকেটের সদস্যরা স্থানীয় ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় না চাইলেও অনেক সময় নানা কারনে বাধ্য হয় কৃষকরা জমির মাটি বিক্রি করতে। আর এই মাটি কাটার ফলে হেক্টরে পর হেক্টর জমি থেকে যায় অনাবাদী। অনেক সময় দেখা যায় ফসলি জমির ওপর দিয়েই চলে ট্রাক্টর, ড্রাম ট্রাকের চাকা। কৃষি জমি, বাঁধ সড়ক ও পরিবেশের ওপর বিস্তর প্রভাব পরলেও আইন প্রয়োগকারী সংশ্লিষ্ট প্রশাসন জনবল সংকট সহ নানা অজুহাতে অপরাধীদের বিরুদ্ধে নিচ্ছেন না তেমন কোন পদক্ষেপ।

ফলে দিনদিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে গোমতী চরের মাটি খেকো সিন্ডিকেট। জলবায়ু ও পরিবেশ বিপর্যয় ঠেকানো সহ কৃষি জমি, বাঁধ ও সড়ক রক্ষায় সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও কৃষি বান্ধব বর্তমান সরকারের কর্মকর্তারা কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহনের পাশাপাশি চরের কৃষকদের পৃষ্ঠপোষকতায় এগিয়ে আসবে এমনটাই আশা করে এখানকার কৃষকরা।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর