ব্রেকিং:
সব মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ল দুই সপ্তাহ বাংলাদেশ থেকে করোনার ওষুধ কিনতে চায় ভারত করোনায় মৃত্যু ৩০ লাখ ৩২ হাজার ছাড়াল মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলা করবেন দুই স্ত্রী হেফাজতের নেতৃত্ব বর্জনের আহ্বান ৬২ আলেমের মামুনুলের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ ৩৬ লাখ পরিবার পাবে প্রধানমন্ত্রীর `ঈদ উপহার` পুলিশের উদ্যোগে ৫ টাকায় ইফতার বাংলাদেশকে ৬০ লাখ ডোজ টিকা দেওয়ার প্রস্তাব সিনোফার্মের ব্যক্তিগত ছবি ভাইরাল: গৃহবধূকে কুপিয়ে খুন করল পরকীয়া প্রেমিক ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরো ৩০ হেফাজত কর্মী গ্রেফতার রমজানে বেড়েছে মুড়ির উৎপাদন করোনা প্রতিরোধ সামগ্রী উৎপাদনে উদ্যোক্তাদের সহায়তা দেবে সরকার সুস্পষ্ট প্রমাণের ভিত্তিতে মামুনুল হক গ্রেফতার: ডিসি হারুন দেশে একদিনে ফের সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ কোম্পানীগঞ্জে অতিরিক্ত র‌্যাব-পুলিশ মোতায়েন সেতুমন্ত্রীর বাড়ির সামনে ককটেল বিষ্ফোরণ ট্রাক্টর চাপায় মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যু ফেনীতে করোনায় দুই দিনে ষাটোর্ধ্ব ৫ ব্যক্তির মৃত্যু
  • সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

চাঞ্চল্যকর কিশোরী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৫ মার্চ ২০২০  

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লার হোমনা থানার জয়পুর গ্রামের মোঃ জয়নাল আবেদিন এর ছেলে মোঃ জুয়েল রানা (২৩) তার সহযোগীদের নিয়ে একজন কিশোরী মেয়েকে জোরপূর্বক গণধর্ষন করে। ধর্ষনের পর হতে মোঃ জুয়েল রানা (২৩) ও তার অন্যান্য সহযোগীরা পলাতক ছিল। বিষয়টি এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে এবং এ বিষয়ে কুমিল্লা হোমনা থানায় গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ইং তারিখে একটি মামলা রুজু হয়।

গত ০৪ মার্চ  রাতে র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মামলার প্রধান আসামী ও ধর্ষক মোঃ জুয়েল রানা (২৩) কে কুমিল্লা জেলার কোতয়ালি থানার আলেখারচর এলাকা হতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী স্বীকার করে যে, সে বিগত ২/৩ মাস যাবৎ ভিকটিমের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার চেষ্টা করে আসছিল এবং ভিকটিমের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করত। গত ২১ ফেব্রুয়ারি  ধৃত আসামী তার অন্যান্য সহযোগীদের সাথে পরামর্শক্রমে ভিকটিমকে ধর্ষনের পরিকল্পনা করে। পরবর্তীতে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি  ধৃত আসামী মোঃ জুয়েল রানা (২৩) ভিকটিমকে মোবাইল ফোনে তার সাথে দেখা করতে বলে। উক্ত তারিখে ভিকটিম তার দুই বোনের সাথে গ্রামের ফকির বাড়িতে অনুষ্ঠিত বাৎসরিক ওরশ দেখতে যায়। ওরশ দেখে রাত আনুমানিক ২০:০০ ঘটিকার পর ভিকটিম তার দুই বোনের সাথে বাড়ি ফেরার সময় ধৃত আসামী মোঃ জুয়েল রানা (২৩) ভিকটিমের সাথে কথা বলার অজুহাত দেখিয়ে ভিকটিমকে তার বোনদের থেকে কৌশলে মৃত মাওলানা মনিরুল ইসলাম এর ছেলে মোঃ আরিফুল ইসলামের পরিত্যাক্ত ঘরে নিয়ে যায়। এসময়ে ধৃত আসামী তার অন্যান্য সহযোগীদের সহায়তায় জুসের সাথে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে কৌশলে ভিকটিমকে খাওয়ায়। পরবর্তীতে ধৃত আসামী মোঃ জুয়েল রানা (২৩) এবং তার ৫/৬ জন সহযোগী ভিকটিমকে মৃত মাওলানা মনিরুল ইসলাম এর ছেলে মোঃ আরিফুল ইসলামের পরিত্যাক্ত ঘরে নিয়ে টিন কেটে ঘরের ভিতর প্রবেশ করে এবং তারা ভিকটিমকে পালাক্রমে ধর্ষন করে ও মোবাইল ফোনে ধর্ষনের ভিডিওচিত্র ধারণ করে। ধৃত আসামী ও তার অন্যান্য সহযোগীরা রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ শেষে ভোর রাতে ভিকটিমকে রাস্তার পার্শ্বে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গত ২৯ ফেব্রুয়ারি  হোমনা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর থেকেই ধর্ষক মোঃ জুয়েল রানা (২৩) ও তার অন্যান্য সহযোগীরা পলাতক ছিল।

পরবর্তীতে গত ০৪ মার্চ ২০২০ ইং তারিখ রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল কুমিল্লার আলেখার চর এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মামলার প্রধান আসামী ও ধর্ষক মোঃ জুয়েল রানা (২৩) কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।