ব্রেকিং:
মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা চামড়া সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি ঈদে ট্রেনে মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ খাদ্যসামগ্রী ও দেড় শতাধিক মানুষ নিয়ে জাহাজ গেল সেন্ট মার্টিন কুমিল্লায় বেতন-বোনাসের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ আফজাল খান পত্নী বীর মুক্তিযোদ্ধা নার্গিস আফজালের ইন্তেকাল
  • মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

চেষ্টা করলে কেউ বিফলে যায় না : এমপি প্রাণ গোপাল

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২৪  

কুমিল্লাস্থ চান্দিনা সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি বলেছেন, চেষ্টা করলে কেউ বিফলে যায় না। আমি বিশ^াস করি আমি খালি হাতে এসেছি, আবার খালি হাতে যাব। কিছু নিয়ে যেতে পারবনা। আমাদের সকলের অনেক দু:খ থাকে, ক্ষত থাকে, ব্যথা থাকে, বেদনা থাকে। সেগুলোকে যদি আমরা ভুলতে চাই- তাহলে আমরা আমাদের হাসিটাকে ছড়িয়ে দিবো; হৃদয়ের ক্ষত-দুঃখ লুকিয়ে রাখবো।
তিনি বলেন, যার হৃদয়টা যতো বড়; তার হৃদয়টা ততো শক্ত। অনেকে সত্যবাদী সেজে মিথ্যা কথা বলে- এটাই সবচেয়ে বড় বিষাক্ত। তারা নিজেকে প্রচন্ড চালাক মনে করে। কিন্তু তারা বুঝে না আমি তাদের চালাকি বুঝে গেছি।
গতকাল শুক্রবার কুমিল্লা মহানগরীর নজরুল ইনস্টিটিউটে কুমিল্লাস্থ চান্দিনা সমিতির ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় অধ্যাপক ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি আরো বলেন, আমি চান্দিনা সমিতির জন্য চেষ্টা করবো। তবে চেষ্টা করলে কেউ বিফলে যায়না। আর সমিতিতে যারা আছেন তারা বাড়িতে যাবেন। যেহেতু আপনারা সকলেই সচেতন তাই আপনাদের দ্বারা সমাজটা পরিবর্তন হবে।
তিনি বলেন, এডুকেশন মানে শিক্ষা, মেডিকেশন মানে চিকিৎসা, ইলেকট্রিফিকেট মানে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা এবং কমিউনিকেশন মানে যোগাযোগ ব্যবস্থা। এই চারটা ছাড়া কোন জাতির উন্নতি হয়না। ইলেকট্রিফিকেশন এবং কমিউনিকেশন হচ্ছে রাষ্ট্রের দায়িত্ব। শিক্ষা এবং চিকিৎসার ব্যাপারে আমি এমপি হিসেবে কিছুটা অধিকারও রাখি। ইচ্ছে থাকলে সেটা করাও যায়।  
কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য অধ্যাপক বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন কুমিল্লাস্থ্য চান্দিনা সমিতির সভাপতি মো: লুৎফুর রেজা খোকন, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ এমদাদুল হক, ঢাকা সাপ্পোরো ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মহিউদ্দিন আহমেদ, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের সাবেক পরিচালক ডা. মুজিবুর রহমান, ডেনিম প্রসেসিং প্লান্টের স্বত্তাধিকারী মো: জাহাঙ্গীর আলম, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জমির উদ্দিন খান জম্পি। মাইজখার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শাহ সেলিম প্রধান, গল্লাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক দর্জি, মাধাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমানসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত চেয়ারম্যানবৃন্দ।
আরো উপস্থিত ছিলেন ও আগত অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান, অধ্যক্ষ মো: আবুল কাশেম, এডভোকেট মজিবুর রহমান লিটন, মো: আব্দুল জলিল, মামুনস ইজি ইংলিশ কেয়ারের প্রতিষ্ঠাতা মো: আল মামুন, মাহাবুবুর রহমান পনির, এড. শরীফ আহমেদ ভূইয়া, তৈয়ব আলী পাঠান, শাহ সেলিম প্রমুখ।