ব্রেকিং:
জিম্বাবুয়েকে বহিষ্কার করল আইসিসি রোহিঙ্গা নির্যাতন: আইসিসি’র অনুমতি পেলে তদন্তে নামবে দল ক্রিকইনফোর একাদশেও সাকিব, নেই কোহলি রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের উদ্বেগ রিফাত হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে মিন্নি জেলা হাসপাতালগুলো দালালমুক্ত করার নির্দেশ জঙ্গি-চরমপন্থীদের আবির্ভাব যেন না হয়: ডিসিদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাছ উৎপাদনে আমরা প্রথম হতে চাই: প্রধানমন্ত্রী নয়ন বন্ডের ঘনিষ্ঠ রিশান ফরাজী গ্রেফতার ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের স্বজনদের হজ করাবে সৌদি কঙ্গোতে ইবোলা সংক্রমণ: ‘বৈশ্বিক জরুরি অবস্থা’ ঘোষণা মাটির নিচে মিলল অনন্ত জলিলের ২০ লাখ টাকা (ভিডিও) রিফাত হত্যায় মিন্নি জড়িত থাকার ভয়ংকর তথ্য জানালেন তদন্ত কর্মকর্তা বাংলাদেশে খাদ্য-নিরাপত্তা বেড়েছে পাসের হারে সারা দেশে কুমিল্লা বোর্ড প্রথম দুদকের অভিযানে সরকারি ওষুধ বেচতে গিয়ে ধরা খেল নার্স বাংলাদেশে বিলুপ্তি’র পথে শতাধিক দেশীয় মাছ কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে সবার উপরে চাঁদপুর, নিচে ফেনী মিন্নির ১০দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ বাংলাদেশে গুগল ম্যাপে যুক্ত হলো নতুন ফিচার

শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৩ ১৪২৬   ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪০

কুমিল্লার ধ্বনি
৯২৩

ছেলে ধরা, মাথা কাটার গুজব ছড়ানো সেই ব্যক্তি আটক!

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৯  

অবশেষে মাথা কাটা এবং ছেলে ধরা ব্যক্তির নামে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টির অভিযোগে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। সম্প্রতি মুঠোফোনে কল, ফেসবুকে পোস্ট ও ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে এসব গুজব ছড়ানো হয়।

বুধবার বিকেল ৩টার দিকে আব্দুল সহিদ হাওলাদার নামে ওই ব্যক্তিকে চরফ্যাশনের চর মাদ্রাজ থেকে আটক করে পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত একটি স্মার্ট ফোন উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, আটক আব্দুল সহিদ হাওলাদার ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চর মাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. আলী হাওলাদারের ছেলে।

এ ব্যাপারে চরফ্যাশন থানা পুলিশের ওসি সামছুল আরেফিন জানান, আব্দুল সহিদ অনেকদিন ধরেই ভোলা জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও গ্রামের মানুষকে শিশুদের মাথা কেটে নেয়া হচ্ছে ও ছেলে শিশুদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে, এমন গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছিল। গেল ২ থেকে ৩ দিন ধরে তাকে ধরার চেষ্টা চালিয়ে অবশেষে ধরা হয়েছে।

এ ব্যাপারে তিনি আরো জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালিয়ে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্ট ফোনসহ তাকে আটক করা হয়।

ভোলার এসপি সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে দোষ স্বীকার করেছে। এ কাজে তার সঙ্গে আরো দুই জন জড়িত রয়েছে বলেও জানিয়েছেন। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর