ব্রেকিং:
অনির্দিষ্টকাল জনগণের আয়ের পথ বন্ধ রাখা সম্ভব নয়: প্রধানমন্ত্রী নজরুলের গান আবৃত্তি করে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেল দুই শতাধিক পথশিশু ‘করোনার শুরু থেকেই ত্রাণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন সংসদ সদস্যরা’ মোবাইল অ্যাপ ও হটলাইনে সাংসদ আসলামুল হকের অভিনব খাদ্য সহায়তা জাতীয় কবির ১২১তম জন্মদিন আজ বাঙ্গালির ঈদ উৎসবে ‘রমজানের ওই রোজার শেষে’র আগমন কিভাবে? দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের ঈদ শুভেচ্ছা করোনাকালের ৫৬ দিনে ৩ লাখ ১৯ হাজার কনটেইনার হ্যান্ডলিং ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী ২৮০ ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়াকে ঈদ সামগ্রী প্রদান করেছে বন্ধু দুর্দিনে বারো হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিলো এসএসসি ২০০০ ব্যাচ আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত ৬হাজার পরিবারকে ৩কোটি টাকা সহায়তাদেবে ব্র্যাক শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ঈদ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রেখেছে সরকার দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ১৮৭৩, মৃত্যু ২০ মুসল্লিদের সুবিধার্থে মসজিদে সর্বাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন করোনা রোগীর চিকিৎসায় ৩ হাজার পদ সৃষ্টি নগদ সহায়তা পাবে ৪৮ লাখ প্রান্তিক উদ্যোক্তা
  • মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

২০

ছেলে-মেয়ে ফিরতেই শ্বাসকষ্টে বাবার মৃত্যু, বাড়িতে উড়ছে লাল পতাকা

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০  

যশোরের বেনাপোলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে  ওজিয়ার নামে এক বৃদ্ধ মারা যাওয়ার সন্দেহে ওই বৃদ্ধের বাড়িতে লাল পতাকা টানিয়ে দেয়া হয়েছে।

ওজিয়ার রহমান বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে মারা যায়। তার বাড়ি বেনাপোল পোর্ট থানার কাগজপুকুর গ্রামে।

বৃদ্ধের পরিবারের সদস্যরা ভারতের বোম্বে শহর থেকে চোরাইপথে দেশে আসার পর ওই বৃদ্ধের শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। এর এক সপ্তাহ পর সে মারা যায়। ঘটনাস্থল বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ পরিদর্শন করেছে।

স্থানীয়রা জানান, ওজিয়ারের মেয়ে আম্বিয়া এবং ছেলে তরিকুল ইসলাম ভারতের বোম্বে শহরে দীর্ঘদিন ধরে থাকেন। সেখান থেকে তারা চোরাইপথে দেশে প্রবেশ করার পর বাড়িতে লুকিয়ে ছিলেন। এরপর তাদের বাবার মৃত্যুর পর ধারণা করা হচ্ছে যে, ওই বৃদ্ধ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

স্থানীয় বেনাপোল পৌর সভার কাউন্সিলর আমিরুল ইসলাম বলেন, ওজিয়ার রহমান একজন বৃদ্ধ লোক। তার শ্বাস কষ্ট ছিল। তবে তার পরিবারের সদস্যরা ভারত থেকে আসার পর শ্বাসকষ্ট বেশি দেখা দেওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় ডাক্তার ইদ্রিস আলী বলেন, গত রাতে রোগীর প্রেসার না পেয়ে আমি স্যালাইন ও গ্যাসের ওষুধ দিয়েছিলাম। এ ছাড়া ওই রোগী দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। সে বার্ধক্য ও হাঁপানি কাশিতে মারা যেতে পারে।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মেডিকেল অফিসার শুভাংকর কুমার রায় বলেন, ওজিয়ার রহমান কী রোগে মারা গেছে এটা এখনো আমরা নিশ্চিত না। আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবগত করা হয়েছে  আমরা তাদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি। তার শরীরে করোনাভাইরাস আছে কিনা তা পরীক্ষা নিরীক্ষা না করে বলা যাবে না।

কুমিল্লার ধ্বনি
করোনাভাইরাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর