ব্রেকিং:
কুমিল্লা সমাবেশে রুমিনের মোবাইল ছিনতাই করল যুবদল কর্মী হাইমচরে নৌকার পক্ষে প্রচারণায় মাঠে ডা:টিপু ও মেয়র জুয়েল চাঁদপুর শহরের গ্রীণ ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আজ বিশেষ মুনাজাতের মধ্যে শেষ হচ্ছে চাঁদপুর জেলা ইজতেমা মতলব উত্তর ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ রামপুরে বিষ প্রয়োগে অসহার কৃষকের মাছ নিধন ‘গুসি শান্তি পুরস্কার’ পেলেন শিক্ষামন্ত্রী মতলবের ধনাগোদা নদীতে কচুরিপানা জটে নৌ চলাচল বন্ধ মতলবের ধনাগোদা নদীতে কচুরিপানা জটে নৌ চলাচল বন্ধ ৩৫ বছরে শৈশবের স্বাদ, হতে চান উচ্চশিক্ষিত লক্ষ্মীপুরে ছাত্রদলের ১৫১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দক্ষিণ আফ্রিকায় নোয়াখালীর ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা অটোরিকশা-মোটরসাইকেল সংঘর্ষ, প্রাণ গেল ২ তরুণের মুরাদনগরের সিদল যাচ্ছে বিদেশে ট্রেনে কাটা পড়ে নারীসহ ২ জনের মৃত্যু যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত বঙ্গবন্ধু টানেলে গাড়ি চলবে জানুয়ারিতে বিদেশিদের মন্তব্যে বিরক্ত সরকার আমনের বাম্পার ফলন রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু
  • রোববার   ২৭ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

দেবিদ্বারে রাহিম হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২২  

এলাকাবাসী। বুধবার সকাল ১০ টায় কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের জাফরগঞ্জ বাজারে মানববন্ধন  ও বিক্ষোভ করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নিহত রাহিমের বাবা জীবন মিয়া, প্রতিবেশী  মো. আজিজুর রহমান খাঁন, করম আলী, আনোয়ার হোসেন, আবদুস সাত্তার, শহিদুল্লাহ আলম মিয়া, আবুল হোসেন, জয়দল মিয়া, নজির আহমেদসহ স্থানীয় এলাকাবাসী।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রাহিম অত্যান্ত নিরীহ প্রকৃতির ছেলে। দুই পক্ষের মারামারি থামাতে যাওয়ায় তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। তারা আরও বলেন, রাহিমের বাবা একজন শ্রমিক। রাহিমও রাজমেস্ত্রীর কাজ করত। তুচ্ছ একটি ঘটনায় রাহীমকে জীবনকে দিতে হল। রাহিমকে হারিয়ে তার পরিবার আজ দিশেহারা। রাহিমের বাবা জীবন মিয়া বলেন,  স্থানীয় মেম্বার হালিম এ হত্যাকাণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি পুরোপুরি এ হত্যার সাথে জড়িত। এছাড়াও মামলায় যাদেও আসামী করা হয়েছে তারা আমার ছেলেকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমার ছেলের সাথে কারও কোন শত্রুতা নেই, আমার ছেলে দুই পক্ষের মারামারি থামাতে গিয়েছে, তাকে কেন পিটিয়ে হত্যা করা হলো ? আমি হালিম মেম্বারসহ সব আসামী গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবি করছি। 

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, শুক্রবার বিকাল তিনটার দিকে জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিণ নারায়নপুর (ছগুরা) গ্রামে সিয়াম নামে এক কিশোর তাঁর মায়ের সাথে দুর্ব্যবহার করায় মামুন নামে এক যুবক সিয়ামকে শাসনের নামে একটি চর মারেন। ওই চর মারাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে রাহিম নামায শেষে বাড়ি ফেরার পথে সংঘর্ষ থামাতে গেলে উত্তেজিত লোকজন তাকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। পরে কয়েকজন রাহিমকে উদ্ধার করে প্রথমে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে কুমেক মেডিকেল নিয়ে যান গেলে অবস্থার আরও অবনতি দেখে রাহিমকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। রাত ১১ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাহিমের মৃত্যু হয়।    

দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, রাহিম হত্যাকাণ্ডে জড়িত এজহারনামীয় ছয়জনকে  গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রাহিমের বাবা জীবন মিয়া ২০জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১৫/২০ জনের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে। প্রকৃত আসামীদের  গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।