ব্রেকিং:
দেশে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ২৪২৩, মৃত্যু ৩৫ বিজিবিতে যুক্ত হলো অত্যাধুনিক জলযান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাঠানো খাদ্যসামগ্রী টাওয়ার হেমলেটসের ফুড ব্যাংক ৮ জুন ঢাকায় আসবে চীনের করোনা বিশেষজ্ঞ দল বসুন্ধরার ২০০০ শয্যার করোনা হাসপাতালে সেবা প্রদান শুরু বাস–মিনিবাসে বাড়তি ভাড়া আদায় বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পছন্দের শিক্ষকের পাঠদান এখন মোবাইলে অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে সর্বোচ্চ রিজার্ভ করোনা ভাইরাসের মধ্যেও থেমে নেই মেগা প্রকল্প ঘরে বসে দুই মিনিটেই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ৭ উন্নয়ন সহযোগীর কাছ থেকে সহায়তা পাচ্ছে বাংলাদেশ সমুদ্র সম্পদের টেকসই ব্যবহারে প্রধানমন্ত্রীর তিন দফা প্রস্তাব পেশ জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ নির্দেশনা বাংলাদেশ থেকে শিখতে পারে বিশ্ব চাঁদপুরে জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু নবীনগরে এবার হতদরিদ্রদের ৪০ দিনের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ! কুমিল্লায় স্বাস্থ্যবিধি মানছে না অধিকাংশ পরিবহন চাঁদপুরে নতুন করে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত জন্মদিনে জমকালো আয়োজন, এসআই প্রত্যাহার কুমিল্লায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১১৬৩
  • শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪১

৩৫২

দেশের দ্রুততম মানব কুমিল্লার ইসমাইল

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০১৯  

২০১০ সালে জাতীয় অ্যাথলেটিকসে অভিষেক, ১০ বছরে লংজাম্পে ৮ টি স্বর্ণ মো. ইসমাইল হোসেনের ঝুলিতে। কুমিল্লার তিতাসের এ যুবক প্রথমবারের মতো ১০০ মিটার খেলতে নেমেই মাত করলেন জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ। রেকর্ড গড়েই হলেন দেশের দ্রুততম মানব। গত সামার অ্যাথলেটিকসে সেরা হওয়া বিকেএসপির হাসান মিয়াকে সিংহাসনচ্যুত করে ট্র্যাকের রাজা হলেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ইসমাইল। দীর্ঘদিন লংজাম্পে রাজত্ব করার পর হঠাৎ কেন ১০০ মিটার স্প্রিন্টে এলেন ইসমাইল? বৃহস্পতিবার দেশের দ্রুততম মানব হওয়ার পর সে রহস্যের ঝাপি খুললেন ইসমাইল। বললেন, রাগ থেকেই তিনি এ ইভেন্টে খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। নিজ সংস্থার হিটে ৭ বারের দ্রুততম মানব মেজবাহ আহমেদকে পেছনে ফেলে জায়গা করে নিয়েছেন চূড়ান্ত দলে। স্বপ্নের মতোই শুরু হলো ইসমাইলের ক্যারিয়ারের নতুন মিশন।

নতুন ইভেন্টে সেরা হতে ইসমাইল ভেঙেছেন ২৮ বছরের পুরোনো রেকর্ড। ১৯৯১ সালে গোলাম আম্বিয়া স্বর্ণ জিতেছিলেন ১০.৪০ সেকেন্ড সময় নিয়ে, ইসমাইলের টাইমিং ১০.২০ সেকেন্ড। ১৯৯৯ সালে মাহবুব আলমের ১০.৫৪ সেকেন্ডের ইলেকট্রনিক টাইমিংয়ের রেকর্ডও ভেঙেছেন মো. ইসমাইল।

তো কিসের উপর রাগ করে ১০০ মিটারে মনোনিবেশ করেছেন ইসমাইল? ‘আমি ৮ বার লংজাম্পে স্বর্ণ জেতার পরও দেখলাম কোনো মূল্যায়ন নেই। বুঝলাম ১০০ মিটারে স্বর্ণ না জিতলে কোনো ফোকাস নেই, কোনো মজা নেই। আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে ১০০ মিটার জয়ীরাই যান, বিদেশে ট্রেনিংয়ের সুযোগও তারা বেশি পান। তাই গত সামারের পরই আমি সংস্থাকে জানিয়ে দিয়েছিলাম লংজাম্পের পাশাপাশি ১০০ মিটারও খেলবো। তারপর থেকেই আমি নিয়মিত অনুশীলন করেছি। গত ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যে ট্রায়াল হয়েছে, সেখানে দ্বিতীয় হয়ে সুযোগ পাই চূড়ান্ত দলে।’

১৬ বছরে অ্যাথলেটিকস শুরু, ২৬ বছর বয়সে এসে ১০০ মিটারে অভিষেক। এটা বড় এক চ্যালেঞ্জ তা জানেন ইসমাইল। তবে তিনি আত্মবিশ্বাসী, ‘সব কিছু মানসিকতার ব্যাপার। জাস্টিন গ্যাটলিন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে যদি উসাইস বোল্টকে হারাতে পারেন, তাহলে আমি কেন পারবো না? ভালো অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা পেলে সাফল্য ধরে রাখতে পারবো।’

শুরুতে একটু পেছনে ছিলেন, তারপর আস্তে আস্তে সবাইকে পেছনে ফেলেছেন। শুরুটা যদি আরো ভালো হতো তাহলে তো.....। ‘আসলে স্ট্যার্টিংয়ে একটু সমস্যা আছে। কারণ স্প্রিন্টের স্পেশাল ট্রেনিং আমার নেই। সেগুলো বাড়াতে হবে। আগামীতে এ দূর্বলতা কেটে যাবে আশা করি’-বলছিলেন ইসমাইল।

লং জাম্প থেকে ১০০ মিটারে নেমেই সফল হওয়া ইসমাইল আরও ভালো প্রশিক্ষণের দাবি জানালেন। “১০০ মিটার স্প্রিন্টে প্রথমবার; তবে আগে রিলে করতাম। ১০০ মিটারে খেলাটা আমার রাগবশত। রাগটা হচ্ছে লং জাম্পে ভাল করা সত্ত্বেও সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায় না। আমি এখন ১০০ মিটারে জিতেছি। এখন সুযোগ সুবিধাটা আমি নেবো। কারণ এটাকে সবাই গুরুত্ব দেয়।”

ফেডারেশন যদি সেরকম সুযোগ সুবিধা দেয়, তাহলে এসএ গেমসে যে কোন কিছুই করা সম্ভব। সুযোগ সুবিধা বলতে বিদেশি কোচের অধীনে লম্বা সময়ের ট্রেনিং। অথবা দেশের বাইরে ট্রেনিংয়ে পাঠালে অবশ্যই এই লেভেলে ভাল করা সম্ভব। ২ মাস আগে ক্যাম্প করালে তো সম্ভব নয়।”

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর