ব্রেকিং:
এতিম শিশুদের সাথে ইফতার লক্ষ্মীপুরে শাড়ি, লুঙ্গি ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ মাদ্রাসা ছাত্রীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার জুমাতুল বিদায়ে লক্ষাধিক মুসুল্লির আগমন ওয়ান শুটার গান গুলিসহ সন্ত্রাসী মুন্না আটক ছিন্নমূল মানুষের পাশে ফের অধ্যক্ষ এম সাত্তার ট্রাস্ট ক্ষোভ থেকেই চাচাত বোন তানিশাকে হত্যা যুবলীগের আহবায়ক মাসুদ ইকবালের উদ্দ্যেগে মিলাদ ও দোয়া বাংলাদেশে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত দেশে একদিনে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে, কমেছে শনাক্ত স্বপ্নের পথে আরও এগিয়ে কর্ণফুলী টানেল দুই বাংলাকে আমরা সাফল্যের শিখরে পৌঁছে দেবো: শেখ হাসিনাকে মমতা চীনা রকেটের অংশ পড়তে পারে ইতালিতে, ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ খালেদাকে রাজনীতির পুতুলে পরিণত করেছে তারেক আল-আকসায় মুসল্লিদের ওপর ইসরায়েলি হামলা, আহত ২০৫ বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হলেন তিন মেয়ে চিকিৎসা নয়, খালেদাকে বিদেশে নেয়াই বিএনপির লক্ষ্য করোনায় ভারতে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদকাসক্ত ছেলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পুলিশে দিলেন মুরাদনগরে শ্রমিক সংকটে কৃষকের ধান কেটে দিল কৃষকলীগ
  • রোববার   ০৯ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৬ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

নাঙ্গলকোটে উপজেলা আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ঐতিয্যবাহী এক পরিবারের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম’সহ নানা ভাবে কুৎসা রটনা ও ষড়যন্ত্রের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপপ্রচারের শিকার ওই পরিবার উপজেলার পেরিয়া ইউনিয়নের কাজী জোড়পুকুরিয়া গ্রামের উপজেলা আওয়ামীলীগ সিনিয়র সহসভাপতি এম এ হামিদ চেয়ারম্যানের পরিবার।


সরেজমিনে জানা যায়, পেরিয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জননন্দিত আ’লীগ নেতা এম এ হামিদের প্রতিবেশী মৃত আমির হোসেন ও তার ৪ ভাই-বোনের মধ্যে ওয়ারিশি সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘ দিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। জনপ্রতিনিধি ও সামাজিক ব্যক্তি হওয়ার কারণে চেয়ারম্যান বিষয়টি বার বার নিষ্পত্তি করার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। কিন্তু আমির হোসেনের পরিবারের অসহযোগীতার কারণে বিষয়টি দীর্ঘদিনেও সমাধান করা সম্ভব হয়নি। 

সর্বশেষ গত ১৯ ফেব্রæয়ারী আমির হোসেনের পরিবারের সদস্যরা অন্য ৪ পরিবারের চলাচলের রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে অন্য ওয়ারিশের দখলিয় সম্পত্তিতে ঘর নিমার্ণের চেষ্ট করে। এ সময় আমির হোসেনের বৃদ্ধা বোন আয়শা বেগম (৭০) তাদের বাধা দিলে তারা তাকে অকথ্য গালমন্দ’সহ মারধর করার জন্য উদ্যত হয়। আয়শা বেগম শোর চিৎকার করতে করতে চেয়ারম্যানের নিকট গিয়ে বিষয়টি জানালে চেয়ারম্যান এসে বিরোধ নিষ্পত্তি ছাড়া ঘর নিমার্ণ করতে নিষেধ করে। পরবর্তিতে বিষয়টি নিয়ে আমির হোসেনের মেয়ে মারজাহান বেগম চেয়ারম্যান ও তার ছেলেদেরকে গালমন্দ ও নানাবিধ খারাপ আচরণ করে। আমির হোসেনের ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী মাসুদ রানা দীর্ঘদিন থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চেয়ারম্যান, তার ছেলে উপজেলা যুবলীগ সহসভাপতি এ এইচ এম মহিন উদ্দিন মিয়াজী’সহ পরিবারের বিরুদ্ধে কৎসা রটিয়ে আসছে। এ ব্যাপারে রবিবার সকালে ওই গ্রামের শতশত মানুষ এক সামাজিক বৈঠকে বসে। 

বিস্তারিত আলোচনার পর সামাজিক নেতৃবৃন্দ ঐক্যমত পোষণ করেন আমির হোসেনের পরিবারের সদস্যরা কাগজপত্র ও হিস্যা অনুযায়ী জমি সংক্রান্ত বিরোধ সমাধান না করলে এবং চেয়ারম্যানের পরিবারকে নিয়ে মিথ্যা অপপ্রচার ও দোসারোপ বন্ধ না করলে তাদের বিরুদ্ধে সামাজিক ও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এ ব্যাপারে এম এ হামিদ চেয়ারম্যান বলেন, আমি দীর্ঘদিন থেকে সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করে আসছি। জনপ্রতিনিধি হওয়ার কারণে নিজ ইউনিয়ন তথা পুরো উপজেলায় মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কাজ করে থাকি। এরা আমার প্রতিবেশী তাদের সমস্যা আমাকে জানালে আমি বার বার সমাধানের চেষ্ট করে আসছি। কিন্তু আমির হোসেনের পরিবারের অসহযোগীতা ও একগুয়েমীর কারণে বিষয়টি অধ্যবধি সমাধান করা সম্ভব হয়নি। আমি আগামী ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা পোষণ করছি। একটি কুচক্রি মহল আমার প্রতিবেশীদের এ বিরোধকে পুঁজি করে তাদেরকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে নানান ভাবে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র চালিয়ে আসছে।