ব্রেকিং:
বিয়ের দিন বাড়িতে হাজির প্রথম স্ত্রী হাসপাতালে ভর্তি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ৫০ থেকে একশ শয্যায় উন্নীত হবে সব হাসপাতাল সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ রাজমিস্ত্রির মজুতদারি করে কারসাজি করলে কঠোর ব্যবস্থা ইঞ্জিনে ওভার হিট, মহাখালীতে প্রাইভেটকারে আগুন ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন ট্রাম্প অবশেষে ঝুঁকিপূর্ণ তিন রাস্তার সংযোগস্থলে গতিরোধক স্থাপন বাঙালি বিশ্ব মোড়লদের ধার ধারে না: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী যেসব কারণে ব্যাপক চাপ থাকবে সড়কে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে সরকারের কোটা সংক্রান্ত পরিপত্র বলবৎ হয়েছে পানি নিষ্কাশনে ডিএনসিসির ৫ হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী কাজ করছে সময় টিভির সাংবাদিকদের উপর কোটা বিরোধীদের হামলা প্রধানমন্ত্রীর অন্তর্ভুক্তিমূলক সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি গাজায় ‘যুদ্ধাবসানের সময় এসেছে’: বাইডেন ন্যাটো-রাশিয়াকে সংঘাতের ব্যাপারে সতর্ক করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রাজধানীসহ সারাদেশে ভারী বৃষ্টি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুতে ইতিবাচক মিয়ানমার চীনা গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

নাম না থাকায় এমপির সামনেই ব্যানার খুলে নিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

ফুলগাজীতে একটি নবনির্মিত মাদ্রাসা ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) ও জাসদ (ইনু) নেত্রী শিরীন আখতার। কিন্তু অনুষ্ঠানের ব্যানারে লেখা ছিল না উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবদুল আলিম মজুমদারের নাম। এর জেরে সংসদ সদস্যের সামনেই অনুষ্ঠানের ব্যানার অপসারণ করেন আবদুল আলিম। পরে ব্যানার ছাড়াই ভবনটি উদ্বোধন করেন শিরীন আখতার।

ব্যানার অপসারণের ঘটনায় মাদ্রাসার শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ স্থানীয় লোকজনের মধ্যে ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করেছে।

তবে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বলছে, অনুষ্ঠানের ব্যানারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপজেলা চেয়ারম্যানের নাম ভুল করে লেখা হয়নি। এ জন্য তারা দুঃখ প্রকাশ করেছে।

মাদ্রাসা সূত্রে জানা যায়, ৩ কোটি ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ফুলগাজী উপজেলার আমজাদ হাট ইউনিয়নের নোয়াজ ফয়জুন্নেসা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার চারতলাবিশিষ্ট ভবন নির্মাণ করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর। রোববার ওই ভবন উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে আসেন ফেনী-১ আসনের (ফুলগাজী, পরশুরাম ও ছাগলনাইয়া) সংসদ সদস্য ও জাসদের (ইনু) কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল আলিম। অনুষ্ঠান শুরুর পর আবদুল আলিম ব্যানারে তাঁর নাম না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করে ওই ব্যানার অপসারণের নির্দেশ দেন। সঙ্গে সঙ্গে অনুষ্ঠানের আয়োজকেরা ওই ব্যানার অপসারণ করেন। পরে ব্যানার ছাড়াই ওই ভবন উদ্বোধন করেন অতিথিরা।

ব্যানার অপসারণের পরপরই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা অনুষ্ঠান ছেড়ে চলে যাওয়া শুরু করেন। এতে আয়োজকেরা বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন। তবে অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি।

অনুষ্ঠান চলাকালীন সময়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল আলিম মজুমদার মাদ্রাসা সুপারকে উত্তেজিত হয়ে বলেন, ‘তোরা আমাকে দাওয়াত দিছস্, ব্যানারে নাম দিস নাই কেন।’

তিনি এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে মঞ্চে থাকা তার অনুসারী লোকজন ব্যানার খুলে ফেলেন।

এ বিষয়ে আবদুল আলিম প্রতিবেদককে বলেন, ‘অনুষ্ঠানে আমাকে দাওয়াত দিয়ে বিশেষ অতিথি করা হয়েছে। কিন্তু অনুষ্ঠানের ব্যানারে নাম না দেওয়া ষড়যন্ত্রের অংশ। এমপির প্রতি আমার কোনো প্রকারের ক্ষোভ বা অসন্তোষ নেই। কিন্তু যারা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’

মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট জয়নাল আবেদীন বলেন, ব্যানারে ভুলবশত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের নামটি লেখা হয়নি। এ জন্য তাঁরা ক্ষমাপ্রার্থী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুস সালাম ভূঞা, জেলা জাসদ সভাপতি নুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, উপজেলা জাসদ সভাপতি দুলাল বৈদ্য। অনুষ্ঠানে মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মো. আবুল হাসেম বুলবুল সভাপতিত্ব করেন।

এদিকে একই অনুষ্ঠানে মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আবুল কাশেম মজুমদার তার বক্তব্যের শেষে ‘বাংলাদেশ জিন্দাবাদ’ বলায় উপস্থিত সবার মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। পরে মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা তার বক্তব্যের বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন ও ভুল-ত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য অনুরোধ করেন।