ব্রেকিং:
স্কুল-কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন হচ্ছে অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট আগামী বছরের শুরুতেই বন্ধ হচ্ছে সুন্দরবন খুলছে নভেম্বরেই, এক জাহাজে যাবেন ৫০ জন ইলিশ প্রজনন মৌসুমে জেলেরাও হয়ে উঠছে বেপরোয়া বছরে বিক্রি হবে ১২ কোটি টাকার মাল্টা, যাবে বিদেশেও কুমিল্লায় পাঁচশ’ বছরের পুরনো পূজা মন্ডপে জীবন্ত সাপ ঘিরে চাঞ্চল্য আরো ৪৩ পণ‌্যের মান সনদ বাধ্যতামূলক করলো বিএসটিআই গরু-মহিষের নাড়ি ভুঁড়ি রপ্তানি করে ৩০০ কোটি টাকা আয় সেনাবাহিনী প্রধানের নামে কোনো ফেসবুক আইডি নেই জাতি বিভ্রান্ত হয় এমন সংবাদ পরিবেশন করবেন না: প্রধানমন্ত্রী ১৫ বছরেও হয়নি মনোহরগঞ্জের নিজস্ব পোস্টাল কোড ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৬ ডাকাত আটক নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের চূড়ান্ত অনুমোদন মেঘনায় জেলেদের হামলায় ১০ নৌ-পুলিশ আহত বিরল দৃষ্টান্ত, পুলিশের হাতে সন্তানকে তুলে দিলেন মা দেশে একদিনে আক্রান্ত এক হাজারের বেশি, মৃত্যু বেড়েছে ‘নো মাস্ক নো সার্ভিস’ নীতি বাস্তবায়ন শুরু করেছে সরকার নারীদের একাকিত্বকে টার্গেট করেই চলে কামালের ধর্ষণ আর প্রতারণা ৭ বছরের চাচাতো বোনকে ধর্ষণ করল ১৪ বছরের কিশোর! বিশ্বে একদিনে আক্রান্ত ৪ লাখের বেশি, মৃত্যু ৫৫৯৯
  • সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১১ ১৪২৭

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

১৩

পণ্যবাহী গাড়ি চালকদের জন্য বিশ্রামাগার স্থাপন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০২০  

“টেকসই ও নিরাপদ মহাসড়ক গড়ে তোলার জন্য ৪টি জাতীয় মহাসড়কের পার্শ্বে পণ্যবাহী গাড়ী চালকদের জন্য পার্কিং সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার স্থাপন” উদ্বোধন করা হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কের কুমিল্লার নিমসার এলাকার ৭৮তম কিলোমিটারে ১টি রয়েছে। গতকাল ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি এ পার্কিং সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার স্থাপন কাজের উদ্বোধন করেন। এ সময় ভিডিও কনফারেন্সের ঢাকা প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী কাজী শাহরিয়ার হোসেন এবং কুমিল্লা প্রান্তে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা সড়ক জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোঃ শওকত আলী, সড়ক সার্কেল, কুমিল্লার তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী রানাপ্রিয় বড়ুয়া, কুমিল্লা সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ড. মোহাম্মদ আহাদ উল্লাহ সহ বিভিন্ন কর্মকর্তাগণ।

উক্ত প্রকল্পের আওতায় ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কের ৭৮তম কিলোমিটারে নিমসার এলাকায় টেকসই ও নিরাপদ মহাসড়ক গড়ে তোলার জন্য জাতীয় মহাসড়কের পার্শ্বে পণ্যবাহী গাড়ী চালকদের জন্য পার্কিং সুবিধা সম্বলিত ১টি বিশ্রামাগার স্থাপন কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৬৩৯.৪৭ লক্ষ টাকা। ন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইঞ্জিনিয়ার্স লিঃ-রানা বিল্ডার্স (প্রাঃ) লিঃ-হাসান টেকনো বিল্ডার্স লিঃ জেভি নামক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ২০২১ সালের ২০ আগস্টের মধ্যে কাজটি সম্পাদন করা হবে।

প্রকল্পের কুমিল্লা অংশে রয়েছে ভূমি উন্নয়ন ৩৯৮২৯৩.৮৬ ঘন মিটার, ল্যান্ডস্কেপিং ও সবুজায়ন ১৫২৮৮.৮০ বর্গ মিটার, রিজিড পেভমেন্ট নির্মাণ ২৯১৩৬.০২ বর্গ মিটার, ফেক্সিবল পেভমেন্ট নির্মাণ ২১৯০.০০ বর্গ মিটার, ২ তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ ৪৬৫.৭৫ বর্গ মিটার, ওয়ার্কসপ নির্মাণ ৩০০.০০ বর্গ মিটার ও বাউন্ডারি ওয়াল নির্মাণ ৯২৮.৪৯ মিটার।

প্রকল্পের উদ্দেশ্যঃ মহাসড়কের পার্শ্বে যাত্রী সাধারণের জন্য বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যাত্রাবিরতি, পানাহারসহ অন্যান্য সুবিধা থাকলেও পণ্যবাহী গাড়ী চালকদের জন্য অনুরুপ কোন সুবিধা নেই বললেই চলে। একটানা ৫ ঘন্টার অধিক গাড়ি চালানোর ফলে চালকদের একঘেয়েমিসহ ঘুমঘুমভাব সড়ক নিরাপত্তার ঝুঁকি তৈরি করে। উক্ত ঝুঁকি নিরসনে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পর্যাপ্ত সংখ্যক আধুনিক সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার তৈরি করা হলে দূরপাল্লার ট্রাক চালকদের বিশ্রাম নেয়ার সুবিধা হবে। ফলে তাদের রাত্রিযাপনের সমস্যাসহ ভ্রমণজনিত কান্তি ও অবসাদ নিরসন সম্ভব হবে। এছাড়াও প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে সড়কের দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে। এই বিশ্রামাগার স্থাপনের মাধ্যমে গাড়ি চালকদের মানসিক ও শারীরিক উৎকন্ঠা দুরীভূত করে আবারও তারা পরিপূর্ণভাবে গাড়ি চালনায় মনোনিবেশ করতে পারবে। প্রকল্পের আওতায় পণ্যবাহী গাড়ির জন্য পার্কিং এরিয়া, গাড়ি চালকদের বিশ্রামের ও রাত্রিযাপনের সুবিধা, গাড়ি মেরামতের সুবিধা, বিনোদনের জন্য টিভি ও অন্তকক্ষ খেলার সীমিত ব্যবস্থা থাকবে।

উল্লেখ্য, মহাসড়কের পার্শ্বে যাত্রী সাধারনের জন্য বেসরকারী ব্যবস্থাপনায় যাত্রাবিরতি, পানাহারসহ অন্যান্য সুবিধা থাকলেও পণ্যবাহী গাড়ী চালকদের জন্য অনুরুপ কোন সুবিধা নেই বললেই চলে। একটানা ৫ ঘন্টার অধিক গাড়ি চালানোর ফলে চালকদের একঘেয়েমিসহ ঘুমঘুমভাব সড়ক নিরাপত্তার ঝুঁকি তৈরি করে। উক্ত ঝুঁকি নিরসনে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পর্যাপ্ত সংখ্যক আধুনিক সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার প্রয়োজন। উক্ত উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে চারটি জাতীয় মহাসড়কের চারটি স্থানে আধুনিক সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার নির্মাণের প্রকল্পটি ২০১৯ সালের ২৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত একনেক সভায় অনুমোদিত হয়। উক্ত প্রকল্পের আওতায় কুমিল্লা, সিরাজগঞ্জ, হবিগঞ্জ ও মাগুড়া জেলায় আধুনিক সুবিধা সম্বলিত বিশ্রামাগার স্থাপন করা হচ্ছে।

চারটি বিশ্রামাগারের মধ্যে দুইটি সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নিজস্ব ভূমিতে ঢাকা-রংপুর (ঘ-৪০৫) মহাসড়কের ১০৯তম কিলোমিটারে পাঁচিলা, সিরাজগঞ্জ নামক স্থানে এবং অন্যটি ঢাকা-চট্টগ্রাম (ঘ-১) মহাসড়কের ৭৮তম কিলোমিটারে নিমসার, কুমিল্লা নামক স্থানে অবস্থিত। উক্ত দুইটি স্থানে দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে ঠিকাদার নিয়োগ করে নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। অপর দুইটি বিশ্রামাগার ভূমি অধিগ্রহণের মাধ্যমে নির্মিত হবে যার একটি ঢাকা-খুলনা (ঘ-৭) মহাসড়কের লক্ষীকান্দর, মাগুড়া নামক স্থানে এবং অপরটি ঢাকা-সিলেট (ঘ-২) মহাসড়কের ১২৮তম কিলোমিটারে জগদীশপুর, হবিগঞ্জ নামক স্থানে নির্মিত হবে। উক্ত বিশ্রামাগার দুইটির ভূমি অধিগ্রহণ ও দরপত্র প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং অচিরেই

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর