ব্রেকিং:
শিক্ষক পরিষদের কোষাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ২৩ ডিসেম্বর সংকট নিরসনের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত ১৩ জন কুমিল্লা মেডিকেলে কুমিল্লায় লাগামহীন পেঁয়াজের দাম নুসরাত হত্যার ১২জন আসামি এখন কুমিল্লা কারাগারে তিন বক্তার ওয়াজ নিষিদ্ধ করেছে জেলা প্রশাসন ব্যাপক আয়োজনে যুবলীগের প্রতিষ্টা বার্ষিকী পালনের প্রস্তুতি পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ গরিব, অসহায় ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের জন্য যাতায়াত ফ্রি! খুড়িয়ে চলছে জেলা ছাত্রলীগ! শিশু উদ্যানে অপরিকল্পিত রাইড স্থাপনে দুর্ঘটনার আশংকা আইসিসি র‍্যাংকিংয়ে নেই সাকিব ধর্ষকের সাজা কমাতে কোটি টাকার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান তরুণীর মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে গাম্বিয়ার মামলা ট্রেন দুর্ঘটনা: নিহত পাঁচজনের পরিচয় পাওয়া গেছে অচেনা ফোনে পতিতাপল্লী থেকে রক্ষা পেল কিশোরী পটুয়াখালীর নিখোঁজ ১২ জেলের সন্ধান মিলেছে সিলগালা করা হাসপাতালে অস্ত্রোপচার, প্রসূতির মৃত্যু ভোলায় নিখোঁজ ৯ জেলের মরদেহ বরিশালে উদ্ধার

মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৪৫২২

প্রধানমন্ত্রী নয়, জাতির পিতার কন্যা হিসেবেই গর্ববোধ করি

প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮  

প্রধানমন্ত্রীত্ব নয়, জাতির পিতার কন্যা হিসেবেই গর্ব অনুভব করেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, এ পদটাকে কিভাবে উপভোগ করবো নেই চিন্তা আমি করি না, মানুষের কল্যাণে নিজেকে কতটুকু নিয়োজিত করতে পারলাম সেটাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার সরকারের মেয়াদেও শেষ কর্মদিবসে কার্যালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে একথা বলেন।

আবেগাপ্লুত কণ্ঠে শেখ হাসিনা বলেন, আমি কিন্তু নিজেকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চিন্তা করি না। আমি হচ্ছি বাবার কন্যা ‘ফাদারস ডটার।’ সন্তান হিসেবে আমি আমার দায়িত্ব পালন করি। আমি জাতির পিতার কন্যা।

তিনি বলেন, আমি আপনাদের কাছে এটুকুই চাইবো আপনারা সবসময় আমাকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের কন্যা হিসেবেই আপনাদের একান্ত আপনজন হিসেবে দেখবেন। সেটাই আমি চাই। সেটাইতেই আমি গর্বিত বোধ করি। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নয়।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রধানমন্ত্রীত্ব, এটা একটা দায়িত্ব পেয়েছি। কাজ করার সুযোগ পাই এর মাধ্যমে। দেশের কল্যাণ করার একটা সুযোগ পাই। সেটাই আমার কাছে বড়।

সরকারি কর্মচারীদের তাদের দায়িত্বের কথাও স্মরণ করিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আমি থাকি বা থাকি, আপনাদের কাছে আবেদন এটাই থাকবে আপনারা কিন্তু আপনাদের দায়িত্বটা যথাযথভাবে পালন করবেন, কারণ আপনারা সরকারি কর্মচারী।

তিনি বলেন, আপনাদের বেতন-ভাতা কিন্তু বাংলাদেশের ওই সাধারণ মানুষের ট্যাক্সের টাকাতেই হয়। কাজেই তাদের সেবা করা, তাদের কল্যাণ করা, এটাও আপনাদেরই দায়িত্ব।

সরকারের ধারাবাহিকতা বজায় থাকার ওপর গুরুত্বারোপ করে শেখ হাসিনা বলেন, ১০ বছর একটানা থাকায় অনেক কাজ করে যেতে পেরেছি। এখনও বহুকাজ বাকি। সেটাও নির্ভর করে বাংলাদশের জনগণের ওপর ৩০ তারিথে যদি তারা ভোট দেয় তাহলে আবার আসতে পারবো এবং কাজগুলোকে শেষ করতে পারবো।

তিনি বলেন, আর তা নইলে মানুষের ভাগ্য মানুষ বেছে নেবে। এখানে আমার কোনো ক্ষোভ বা দুঃখ নেই। কেননা আমার নিজের জীবনে চাওয়া- পাওয়ার কিছু নেই,’ যোগ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক বেগম নাসরিন আফরোজ, প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, এসএসএফ’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মুজিবুর রহমান, প্রটোকল অফিসার খুরশীদ আলম, সহকারী পরিচালক মো. মকবুল হোসেন, একান্ত সচিব (২) বক্তব্য রাখেন।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর