ব্রেকিং:
অনির্দিষ্টকাল জনগণের আয়ের পথ বন্ধ রাখা সম্ভব নয়: প্রধানমন্ত্রী নজরুলের গান আবৃত্তি করে দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেল দুই শতাধিক পথশিশু ‘করোনার শুরু থেকেই ত্রাণ কার্যক্রম চালাচ্ছেন সংসদ সদস্যরা’ মোবাইল অ্যাপ ও হটলাইনে সাংসদ আসলামুল হকের অভিনব খাদ্য সহায়তা জাতীয় কবির ১২১তম জন্মদিন আজ বাঙ্গালির ঈদ উৎসবে ‘রমজানের ওই রোজার শেষে’র আগমন কিভাবে? দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের ঈদ শুভেচ্ছা করোনাকালের ৫৬ দিনে ৩ লাখ ১৯ হাজার কনটেইনার হ্যান্ডলিং ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধ মেরামতের কাজ শুরু করেছে সেনাবাহিনী ২৮০ ট্রান্সজেন্ডার ও হিজড়াকে ঈদ সামগ্রী প্রদান করেছে বন্ধু দুর্দিনে বারো হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিলো এসএসসি ২০০০ ব্যাচ আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত ৬হাজার পরিবারকে ৩কোটি টাকা সহায়তাদেবে ব্র্যাক শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ঈদ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ সহায়তা অব্যাহত রেখেছে সরকার দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন শনাক্ত ১৮৭৩, মৃত্যু ২০ মুসল্লিদের সুবিধার্থে মসজিদে সর্বাধিক ঈদের জামাতের আয়োজন করোনা রোগীর চিকিৎসায় ৩ হাজার পদ সৃষ্টি নগদ সহায়তা পাবে ৪৮ লাখ প্রান্তিক উদ্যোক্তা
  • মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

২১৩

প্রেম করতে মমতার বিশাল ছাড়!

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৫ মে ২০১৯  

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী এবং সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা-সভানেত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, বিয়ের আমন্ত্রণপত্রে মুসলিম নাম লিখতে লজ্জা পেলে আমার নামে করে দেবেন। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতার টালিগঞ্জ ফাঁড়ি এলাকায় একটি নির্বাচনী জনসভায় উপস্থিত হয়ে মমতা বলেন, ‘আমার কাছে একদিন খুব পরিচিত এসে বলল মনটা খুব খারাপ। আমি বললাম কি হয়েছে? সে বলল আর বলবেন না, আমার মাইয়াটা বাংলাদেশের একটা মুসলিম ছেলের সঙ্গে প্রেম করছে। আমার পরিবার পরিজনেরা তো খুব গালি দিতেছে। আমি কি করি বলুন তো, আমি ধর্ম সংকটে পইড়া গেছি। 

আমি তাকে বললাম, ওরা দুইজনে কোথায় দেখা হয়েছিল? সে বলল লন্ডনে পড়তে গিয়েছিল, দুইজনের দেখা হয়েছিল এবং তাদের মধ্যে প্রেম হয়। আমি তাকে বলেছিলাম ছেড়ে দিন না, ওরা যা ভাল বুঝবে তাই করবে। আপনার এ ব্যাপারে মাথা খারাপ করার কি দরকার? আর যদি মনে করেন যে আমন্ত্রণপত্রে এটা লিখতে লজ্জা পাচ্ছেন, তবে আমন্ত্রণপত্র আমার নামে করে দেবেন।’ 

এ সময় সভায় জনগণের উদ্দেশ্যে মমতা বলেন, আপনারা যদি ওই ভদ্রলোকের নাম জিজ্ঞাসা করেন, আমি বলবো আমাদের মন্টুদা।  জাত-পাত, ধর্ম নিয়ে বিজেপিকে খোঁচা দিতে গিয়ে নিজের এই পরিচিত ব্যক্তির উদাহরণ তুলে ধরেন মমতা। 

মমতা আরো বলেন, দেখুন আমি খুব লিবারেল (স্বাধীন)। একটা অল্পবয়সী ছেলে কো-এডুকেশন স্কুলে পড়ে, কো-এডুকেশন কলেজে পড়ে। এক সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করে। একটা ছেলে-মেয়ে যদি গল্প করে, এক সঙ্গে বেড়াতে যায়-সেটাতে আমি খারাপ দেখি না। মনটা ভাল থাকলে সবটাই ভাল থাকে। বরং আমি নব প্রজন্মের এই যে অ্যাটিটিউড বা স্বাধীনভাবে মেলামেশা-এটাকে আমি পছন্দ করি। 

তিনি আরো বলেন, আমাকে আপনারা অনেকে বলতে পারেন আপনি কি এতটা নমনীয়? আমি বলবো হ্যাঁ, আমি এতটাই নমনীয়। আপনারা হয়তো জানেন না যে আমি একসময় বাড়ির বউদের বলতাম যে, তোমরা যদি মনে করো কারো সঙ্গে প্রেম করবে, করতে পারো। আমার তোমাদের অনুমতি দেয়া থাকলো। কারণ আমাদের যতগুলো বিয়ে হয়েছে-তার একটাও দেখে করিনি। তার কারণ হচ্ছে আমার মা কখনও বাধা দেয়নি। যে যেটা পছন্দ করেছে, ঠিক করেছে-সেটা তার মতো করতে দেয়া উচিত। 

কুমিল্লার ধ্বনি
আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর