ব্রেকিং:
নৌকায় লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে নিহত ১০, জীবিত ৩০ বাংলাদেশি মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা চামড়া সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি ঈদে ট্রেনে মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ খাদ্যসামগ্রী ও দেড় শতাধিক মানুষ নিয়ে জাহাজ গেল সেন্ট মার্টিন কুমিল্লায় বেতন-বোনাসের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ
  • মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

বরুড়ায় ‘খাবারে বিষক্রিয়ায়’ ভাই বোনের মৃত্যু

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৮ জুন ২০২৪  

কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার পয়ালগাছা ইউনিয়নে দুপুরের খাবার খাওয়ার পর বমি করে অসুস্থ হয়ে মারা গেছে দুই আপন ভাই বোন। তারা পয়ালগাছা ইউনিয়নের হাটপুকুরিয়া গ্রামের দিঘীরপাড়ের হাফেজ নেছার আহমেদের ছেলে ও মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী জানান, নিহত শিশুদের বাবা-মায়ের দাবি খাবারে বিষক্রিয়ায় শিশুদের মৃত্যু হয়েছে। তবে যেহেতু দুইজন শিশু একই সাথে মারা গিয়েছে আমরা তাদের ময়নাতদন্ত করার জন্য বলেছি।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, হাটপুকুরিয়া গ্রামের হাফেজ নেছার আহমেদের স্ত্রী তার দুই বছরের ছেলে আবদুর রহমান ও চার বছরের মেয়ে খাদিজাকে সকালের নাস্তায় কাঁঠাল ও রুটি খাওয়ায়। দপুরের খাবারে ডাল ও ভাত খাবার পর পর ছেলে ও মেয়ে দু'জনেই বমি করে। তাদের অবস্থা খারাপ হতে থাকলে প্রথমে তাদেরকে বরুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নেয়া হয়, সেখান থেকে পাঠানো হয় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। হাসপাতালে নেওয়ার পথেই শিশু আব্দুর রহমানের মৃত্যু হয়। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেবার পথে মারা যায় খাদিজাও। একই সাথে দুই ভাই বোনের মৃত্যু কি কারণে হয়েছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।