ব্রেকিং:
ভুল নীতিতে ডুবছে পাকিস্তান, সঠিক নীতিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ চলমান ‘লকডাউন’ ২৩ মে পর্যন্ত বাড়ছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক, শেখ হাসিনার নামে বাড়ি ফিলিস্তিনে পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন, বাংলাদেশিদের রবিবার থেকে এনওসি দেওয়া হবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের চার দশক পূর্তিতে তথ্যচিত্র ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘টাউকটে’ তিন ওয়ানডে খেলতে ঢাকায় শ্রীলংকা ক্রিকেট দল ইসরায়েলকে সমর্থন জানিয়ে বাইডেনের ফোন ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলায় নিহত বেড়ে ১৪৯ ফের বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ঈদ উপলক্ষে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার আরো সাতদিন বাড়ছে লকডাউন, রোববার প্রজ্ঞাপন করোনায় ভাই হারালেন মমতা ব্যাংক-বিমা ও শেয়ারবাজার খুলছে কাল গাজায় ৪০ মিনিটে ৪৫০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল ইসরায়েল স্বাস্থ্যবিধি পালনে সর্বোচ্চ সতর্কতার আহ্বান কাদেরের দেশেই টিকা উৎপাদনের ব্যবস্থা নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী উপকূলের ঘরে ঘরে ডিজিটাল ব্যাংক ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফেরার ব্যবস্থা ঈদের পর বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ের সর্বোচ্চ রেকর্ড
  • রোববার   ১৬ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

বান্দরবানে শ্রমিক-জনতা সংঘর্ষে আহত ৯

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৩ মে ২০২১  

বান্দরবানে রাবার ড্যাম প্রকল্প নির্মাণ নিয়ে শ্রমিক ও স্থানীয় জনতার মধ্যে সংঘর্ষে ৯ জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে সদর উপজেলার সূয়ালক ইউনিয়নের সুলতানপুরে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- প্রকল্পের সাইট ম্যানেজার দেলোয়ার হোসেন, এক্সকেভেটর চালক নূর হোসেন, মাহমুদুল হোসেন, সুমন, সুলতান, স্থানীয় কৃষক মো. ইউসুফ, শাকিল, আবু তাহের, শফি আলম। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত চারজনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএডিসি) অর্থায়নে ১১ কোটি ৪১ লাখ টাকা ব্যয়ে রাবার ড্যাম নির্মাণ প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ চলছিল। চলমান প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ তুলে কাজ থামাতে বলে স্থানীয়রা। এরপরও শ্রমিকরা কাজ চালু রাখায় দুইপক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা ও সংঘর্ষে ৯ জন আহত হন। এতে শ্রমিকদের ঘর ও এক্সকেভেটর ভাঙচুর করে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় বাসিন্দা  আব্দুস সাত্তার বলেন, কাজের মান খারাপ হওয়ায় আমরা কাজ বন্ধ রাখতে বলি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শ্রমিকরা এক্সকেভেটর দিয়ে এক কৃষককে আঘাত করে। পরে উত্তেজিত জনতা এক্সকেভেটর ও শ্রমিকদের ঘর ভাঙচুর করে।

প্রকল্পের সাইট ম্যানেজার দেলোয়ার হোসেন বলেন, স্থানীয়দের অভিযোগের পর শ্রমিকদের গুণগত মান বজায় রেখে কাজ করার নির্দেশনা দেয়া হয়। সামাজিকভাবে স্থানীয়দের সঙ্গে বৈঠকও হয়েছে। এরপরও কাজে বাধা দেয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে।

সদর থানার এসআই মিঠুন সিং বলেন, পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। আহতদের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বান্দরবান জেলা কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী আবু নাঈম বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আপাতত কাজটি বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।