ব্রেকিং:
এলপিএলের নিলামে পাঁচ টাইগার ক্রিকেটার, আছেন সাকিবও দেশে একদিনে ২২ মৃত্যু, শনাক্ত দেড় হাজারের বেশি ‘পাত্র চাই’ বিজ্ঞাপনে ৩০ কোটি টাকা আত্মসাত করল সাদিয়া নারায়ণগঞ্জে মসজিদে আবারো বিস্ফোরণ, নিহত ১ এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে যা জানালো আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়ন্ত্রণে আসছে কঠোর আইন প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগকে সম্মাননা প্রদ নাইজেরিয়ায় ধর্ষককে খোজাকরণ আইন পাস চাকরির বয়স ১০ বছর হলে উচ্চতর গ্রেডে বাধা নেই অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রির অপরাধে ব্যবসায়ীদের জরিমানা আশুগঞ্জ মোকামে ধান সংকট, লোকসানে চাতাল মালিকরা বাসে তরুণীকে পালাক্রমে ধর্ষণ, অভিযুক্ত চালক-হেলপার গ্রেফতার রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘের ভূমিকায় হতাশ বাংলাদেশ বাড়লো একাদশে ভর্তির সময় সাত দেশ থেকে আসছে ৭৯ হাজার টন পেঁয়াজ বিশ্বে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৯ লাখ ছাড়াল আখাউড়া স্থলবন্দরে বিএসএফ মহাপরিচালক মাদকের বড় চালানসহ বাবা ছেলে আটক দূর্গাপূজায় থাকছে না বর্ণিল আলোকসজ্জা স্বামী হত্যায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত সুফিয়া গ্রেপ্তার
  • শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৪ ১৪২৭

  • || ৩০ মুহররম ১৪৪২

১৭

বিদেশি নাগরিকরা বাংলাদেশের ভিসা পান যেভাবে

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বাংলাদেশে প্রবেশ করতে বিদেশি নাগরিকদের ভিসার প্রয়োজন হয়। বিশ্বের প্রায় সব দেশের সঙ্গেই বাংলাদেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক বিদ্যমান। আর বেশিরভাগ দেশেই সরকার দূতাবাস প্রতিষ্ঠা করেছে। কিছু সংখ্যক দূতাবাসের আঞ্চলিক ভিসা অফিস এবং প্রধান শহরগুলোতে কনস্যুলেট অফিস রয়েছে। বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নে বলা হয়েছে, ভিসার বিধিবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকার বিদেশিদের জন্য ৩৩ ক্যাটাগরিতে ভিসা দিয়ে থাকে।

কার জন্য কোন ক্যাটাগরির ভিসা

বাংলাদেশের ভিসার বিধিবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্র বা সরকার প্রধান, মন্ত্রী বা সমমর্যাদার ব্যক্তিরা ‘এ’ ক্যাটাগরির ভিসা পান। সরকারি প্রতিনিধিদলের সদস্যদের ‘এ১’ ভিসা দেয়া হয়। ‘এ২’ ক্যাটাগরির ভিসা পান জাতিসংঘ বা আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সংস্থার কর্মকর্তারা। তাদের পরিবারর কোনো সদস্যদের দেয়া হয় ‘এফএ২’ ভিসা।

বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে কর্মরত বিশেষজ্ঞদের ‘এ৩’ ভিসা দেয়া হয়। তবে উন্নয়ন সংস্থা ছাড়া অন্য বিশেষজ্ঞদের ‘ই’ ক্যাটাগরির ভিসা দেয়া হয়। এছাড়া পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের ‘পিআই’ এবং ব্যবসায়ীদের ‘বি’ ভিসা দেয়া হয়। কূটনীতিকদের ‘ডি’ এবং দাতের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যারা কাজ করে তাদে ‘ডিএ’ ভিসা দেয়া হয়।

বিশেশি শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশে পড়াশোনা করতে চাইলে তাদেরকে ‘এস’ ভিসা নিতে হবে। তবে বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদিত যেকোনো প্রতিষ্ঠানে গবেষণা, ইন্টার্নশিপ বা প্রশিক্ষণের জন্য আসতে চাইলে ‘আর’ ভিসা নিতে হবে। এছাড়া সাধারণ পর্যটকদের ‘টি’, সাংবাদিকদের ‘জে’ এবং খেলোয়াড়দের দেয়া হয় ‘পি’ ভিসা।

ভিসা পাওয়া ও বাংলাদেশে প্রবেশ

আবেদন করে বিদেশি নাগরিকরা বাংলাদেশের ভিসা নাও পেতে পারে। ভিসা না দিলে কেন দেয়া হয়নি সে ব্যাখ্যা দিতেও সরকার বাধ্য নয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, অনেক ক্ষেত্রে কাগজপত্রের ঘাটতি থাকলে ভিসা আবেদনকারীকে বলা হয় ওই কাগজ জমা দেয়ার জন্য।

ভিসা পেলেও বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন বিদেশি নাগরিককে বের হবার অনুমতি নাও দিতে পারে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা বলেন, পাকিস্তান থেকে একজন সংগীতশিল্পী সার্ক ভিসা নিয়ে ঢাকায় এসেছিল। তার কাছে ভ্রমণের উদ্দেশ্য জানতে চাইলে সে জানায়, গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গে দেখা করতে এসেছে। তাকে পরের ফ্লাইটেই ফেরত পাঠানো হয় পাকিস্তানে।

কুমিল্লার ধ্বনি