ব্রেকিং:
দেশে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৬ হাজার ছাড়ালো, কমেছে আক্রান্ত এশিয়ার সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাবি ১৩৪তম বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬ কোটি ছাড়িয়েছে ম্যারাডোনা ফুটবলপ্রেমীদের হৃদয়ে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন যেভাবে মধ্যম আয়ের দেশ হতে পারে বাংলাদেশ বাংলাদেশে ‘বড় সম্ভাবনা’ দেখছে সুইজারল্যান্ড অজপাড়াগাঁয়ে বিদ্যুৎ, ঝলমলে জীবন বাজারদর সহনীয় রাখতে আরও পণ্য কিনছে টিসিবি করোনার ভ্যাকসিন পেতে ৭৩৫ কোটি টাকা ছাড় সরকার দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টির উদ্যোগ নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী চাকরিচ্যুত গণমাধ্যমকর্মীদের পুনর্বহালের উদ্যোগ নেয়া হবে বদলে যাবে ধারণা, ঢেলে সাজানো হচ্ছে বিটিভির অনুষ্ঠান আগামী মাস থেকে দেশে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা ১ শর্তে একদিনেই জোড়া লাগল ৪৭ দম্পতির সংসার নারী ও শিশু নির্যাতন রোধে সরকার বদ্ধপরিকর ম্যারাডোনা: ফুটবলের জন্যই যার জন্ম চাঁদপুর-ফরিদগঞ্জে সড়কের বিভিন্ন স্থান যেন মরণ ফাঁদ ............. কুমিল্লার চান্দিনায় পৃথক অভিযানে মাদকসহ আটক ৩ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাস-পাওয়ারটিলার সংঘর্ষে নিহত ৩ প্রশাসনের মাইকিংয়ের পরদিনই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরকারি বিল দখল
  • বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৭

  • || ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

৭৭

বিদেশে বসে কলকাঠি নাড়ছেন বিএনপি’র কায়কোবাদ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০২০  

বিদেশে বসে এখনো দলের কলকাঠি নাড়ছেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোফাজ্জল হোসাইন কায়কোবাদ। তিনি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি।

অষ্টম ও নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৩ আসনে ধানের শীষ নিয়ে জয়ী হন কায়কোবাদ। 

২০০৪ সালের একুশে আগস্ট ঢাকায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার এক সমাবেশে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা হয়। এতে ২৪ জন প্রাণ হারান। এ ঘটনায় মতিঝিল থানায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুই মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলার অন্যতম আসামি কায়কোবাদ ২০১১ সালে দুবাই পালিয়ে যান।

গত ৯ বছর ধরে তিনি দুবাই, সৌদি আরব ও মালয়েশিয়ায় ব্যবসা করছেন। আর সেখানে বসেই বিএনপি’র রাজনীতিতে কলকাঠি নাড়ছেন। তবে তিনি মালয়েশিয়া সেকেন্ড হোম হিসেবে বেছে নিয়েছেন বলে একটি সূত্র দাবি করেছে।

মুরাদনগর উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ফয়সাল আহমেদ নাহিদ বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ছক আঁকেন শাহ মোফাজ্জল হোসাইন কায়কোবাদ। তিনি বর্তমানে বিদেশে বসে কলকাঠি নাড়ছেন। তার কারণে মুরাদনগরবাসী দীর্ঘদিন ধরে এ কলঙ্ক মাথায় নিয়ে ঘুরছে।

কায়কোবাদকে দেশে ফিরিয়ে এনে শাস্তি কার্যকর করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হারুন অর রশীদ।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার পর পুলিশের একটিসহ মোট তিনটি মামলা করা হয়। তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে তদন্ত শুরু হলেও কোনো প্রতিবেদন দাখিল হয়নি। প্রথম সাত বছরে মোট ছয়বার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়। এরপর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে নতুন তদন্তে সিআইডির এএসপি ফজলুল কবীর ২০০৮ সালের ১১ জুন অভিযোগপত্র জমা দেন।

পরবর্তীতে ২০১১ সালের ৩ জুলাই সম্পূরক অভিযোগপত্র জমা দেয় পুলিশ। সম্পূরক অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে পরবর্তী সব বিচারিক ধাপ অতিক্রম শেষে ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর রায় দেন আদালত। গ্রেনেড হামলা মামলায় কায়কোবাদকেও যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর