ব্রেকিং:
ফসলের ফলন বাড়ছে তরল সার উদ্ভাবনে প্রাণ ফিরেছে পর্যটনে, জমজমাট হোটেল ব্যবসা দুর্গম চরে আশার আলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১০৯১ গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার অক্সিজেনের ন্যূনতম মূল্য ১০০-১২০ টাকা টিকা দেওয়ার ছক প্রস্তুত উন্নয়ন দেখতে বাংলাদেশে আসতে চান বেলজিয়ামের রাজা ফিলিপ মহাকাশ চর্চার যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ শিক্ষার্থীদের বাসায় রাখা নিশ্চিত করবেন প্রতিষ্ঠান প্রধানরা নতুন ৬ মেডিকেল কলেজের মাস্টারপ্ল্যান শরীয়তপুরে ধর্ষণ মামলার মীমাংসা করতে ডেকে নিয়ে ফের গণধর্ষণ সরকারি স্কুলে ২০ জানুয়ারির মধ্যে ভর্তির নির্দেশ বিএসএফের আমন্ত্রণে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষের অনুষ্ঠানে বিজিবি ৭০০০ অ্যাম্বুল্যান্স মালিক যুক্ত হয়েছেন ৯৯৯ জরুরি সেবায় হোয়াইট হাউজের শীর্ষ পদে বাংলাদেশের জায়ান স্বাভাবিক জীবনে ৯ জঙ্গি আবিদা বলল, ভুল পথে ছিলাম বিশ্বজুড়ে করোনায় ২০ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু রাজনীতি ছেড়ে দেব এমপি বাহার,কিন্তু কেন ?? রিকশা বিক্রির টাকায় কুরআন বিতরণ করলেন তারা মিয়া কুমিল্লায় কীটনাশক পানে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা
  • শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৭

  • || ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১৩৫

বি.বাড়িয়ায় লটারিতে বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেলো ১ মেয়ে!

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

দেশের সরকারি বিদ্যালয়গুলোতে লটারি পদ্ধতিতে দেয়া হয়েছে ভর্তির সুযোগ। সোমবার (১১ জানুয়ারি) ছিলো ফলাফলের তারিখ। আজ অনলাইনে ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর হুমরি খেয়ে পরে অভিভাবকরা। হন্যে হয়ে খুঁজছেন সন্তানের নাম পছন্দের স্কুলে আছে কি না দেখতে। যাদের সন্তান লটারিতে জিতেছে তারা দারুণ খুশি। যেন যুদ্ধ জয় হয়েছে। আর যাদের সন্তানের ভাগ্যে লটারির শিকে ছেড়েনি তাদের দুঃখের সীমা নেই।

এর মধ্যে দেখা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অন্নদা বালক সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ফলাফলের তালিকায় একজন মেয়ের নাম। বরশা আক্তার নামে প্রথম শ্রেণিতে মর্নিং শিফটে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে বলে ফলাফল শিট বলছে।

ছবি-প্রকাশিত তালিকা।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে বিভিন্ন সমালোচনা। কীভাবে ভর্তির সুযোগ পেলো এই মেয়ে, সেই বিষয়ে চলছে রসিকতাও। ফেসবুকে তাসলিমা নামে একজন লিখেছেন, জাতির মেধা নষ্ট করার জন্য লটারি নামক খেলার জন্য ধিক্কার জানাই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বুদ্ধিজীবীদের। এখন মেধার বিচার রইলো না, ভাগ্য যার মেধা তার।’

জামান আহমেদ নামে ফেসবুকে একজন লিখেছেন, ‘১৩০ জন ভাইয়ের মাঝে একটি মাত্র বোন। আজ লটারি ছিলো বলেই এভাবে ভাই বোন মিলেমিশে ব স্কুলে পড়ার সুযোগ পেলো।’

সানজিদা আক্তার নামে একজন লিখেছেন, ‘মায়ের নাম দিয়ালাইসে নাতো আবার।’কত সপ্ন ছিল কিন্তু কর্তৃপক্ষের অদ্ভুদ নিয়মে আমার ছেলের বদলে মেয়েরা চান্স পাচ্ছে বালক বিদ্যালয়ে।

রাসেল মিয়া নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পরিচিত একজন সমাজ সেবক লিখেছেন, ‘অন্নদায় যেই মেয়ে চান্স পাইছে তার ভর্তি নিশ্চিত করতে হবে। লটারি তাকে ছেলেদের সাথে পড়ার সুযোগ করে দিয়েছে।’

কুমিল্লার ধ্বনি
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর