ব্রেকিং:
সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে পরিবহন ধর্মঘট,পণ্যের দাম বৃদ্ধির পাঁয়তারা! কয়েদি পোষাকে ফাঁসির অপেক্ষায় দিন গুণছেন সিরাজউদ্দৌলা দুর্ধর্ষ চোর ইসমাইল গ্রেফতার তিন ফার্মেসীকে জরিমানা মেকআপ এন্ড নেইল আর্ট বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা চাঁদা না পেয়ে ব্রিকফিল্ড ম্যানেজারকে পিটিয়ে আহত অসহ্য যন্ত্রনা নিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছে তাহসিন পেট্রোল বোমা মামলায় মালামাল ক্রোকের আদেশ পেছাল শক্তিশালী দল গড়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ চিকিৎসকের জীবন বাঁচাতে সাহায্যের আবেদন ১০ লাখ টাকার সেগুন কাঠ আটক আবর্জনার স্তূপে ৭০ বস্তা পেঁয়াজ! সাজেকে চান্দের গাড়ির ভাড়া নির্ধারণ দৃশ্যমান হচ্ছে পদ্মা সেতুর আড়াই কিলোমিটার বেড়েছে ডলারের দাম ফোনের স্টোরেজ বাড়াবেন যেভাবে রোহিঙ্গাদের জন্য নেদারল্যান্ডের ৩৯ লাখ পাউন্ড অনুদান ক্যানসারের বিরুদ্ধে লড়তে সক্ষম কাঁচা মরিচ! র‌্যাবের ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমকে হাইকোর্টে তলব

মঙ্গলবার   ১৯ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
১৮৭৫

ব্রাহ্মণদের দাবি বাস্তবায়নের আহ্বান

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

সনাতন ধর্মীয় উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার দাবিসহ বেশ কিছু  উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়। এ সময় বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ সরকারকে তাদের কয়েকটি উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সহযোগী মনোভাব প্রকাশের আহ্বান জানান। উদ্দেশ্যগুলো হল-

বাংলাদেশ সনাতন ধর্মীয় উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা। বর্তমান সংস্কৃত টোল চতুষ্পাঠী ও কলেজে নিয়োজিত শিক্ষকদের মাসিক বেতন বৃদ্ধি। পাশাপাশি  অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত বাধ্যতামূলক সংস্কৃত শিক্ষা ব্যবস্থার প্রচলন ও সংস্কৃত ভাষা চর্চা। দেশের সরকারি আধা সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মীয় পণ্ডিত নিয়োগ করা। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেব-দেবীর পূজা ব্রাহ্মণদের দিয়ে করানো। এছাড়া মন্দিরের পুরোহিতের সরকারি কোষাগার থেকে সম্মানি প্রদান করা ও মাসিক ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করা।

সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা লেফটেন্যান্ট কর্নেল নিরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, প্রায় ৮শ বছর আগে ভারতবর্ষে রাজা বল্লাল সেনের শাসনামলে ব্রাহ্মণ সম্মেলন হয়েছিল। এরপরে ব্রাহ্মণদেরকে নিয়ে আর কোন সম্মেলন হয়েছে কি না, এ ব্যাপারে কোনো তথ্য প্রমাণও নেই। সনাতন ধর্মালম্বীদের কল্যাণে বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ আজ ব্রাহ্মণ সম্মেলন করতে সক্ষম হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদের মহাসচিব বিজয় কৃষ্ণ ভট্টাচার্য বলেন, মানুষদের শিক্ষা-দীক্ষা সামাজিক ও ধর্মীয় উন্নয়নে গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রাখায় এদেশের জনগণ ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়কে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসিয়েছে। পৃথিবীর অন্য দেশগুলোতে যখন মানুষ উচ্ছৃঙ্খল জীবন-যাপন করতো তখন ব্রাহ্মণরা গৃহে গৃহে সংস্কৃত কলেজ, মহাবিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে সমগ্র বিশ্বকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে ব্রতী ছিল।

তিনি আরো বলেন, এক সময় প্রতিটি ব্রাহ্মণ পরিবার ছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো। সংস্কৃত শিক্ষা ব্যবস্থা বিলুপ্তির ফলে আমাদের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও শাশ্বত ধর্মগ্রন্থ শুদ্ধরূপে চর্চা করতে পারছি না। এসবের ফলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সন্তানও আজ ধর্ম বিমুখ নাস্তিকে পরিণত হচ্ছে। 

সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণ সংসদের উপদেষ্টা জীবন লাল গোস্বামী, প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সুব্রত চক্রবর্তী, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ অহিভূষণ চক্রবর্তী, নির্বাহী সভাপতি অসিত কুমার মুকুটমণি, সিনিয়র সহ-সভাপতি সাগর কৃষ্ণ চক্রবর্তী, সিনিয়র সহ-সভাপতি নেপাল চক্রবর্তী,  রংপুর বিভাগীয় যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ উদয় শংকর চক্রবর্তী, খুলনা বিভাগের মহাসচিব অধ্যাপক অখিল চক্রবর্তীসহ বাংলাদেশ ব্রাহ্মণ সংসদ কমিটির সারা দেশের বিভিন্ন সদস্য।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর