ব্রেকিং:
‘মুজিব বর্ষ ভিক্টোরিয়ান্স টি-২০’র ফাইনাল আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারী কালেক্টরেট কর্মচারীদের ২য় দফায় কর্মবিরতি শুরু সরকারি খাল দখল করে সড়ক নির্মাণে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমান কলাগাছের ঝোঁপ থেকে দিনমজুরের লাশ উদ্ধার ইপিজেডের নারী শ্রমিককে পালাক্রমে ধর্ষণ মাত্র ৩শ’ টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে খুন হয় জনি সমঝোতা করেও ফারজানাকে বাঁচাতে পারলো না পরিবার! কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ ৫ দফা দাবিতে কুবি’র প্রশাসনিক ভবন অবরুদ্ধ করাতকলের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টের অভিযান শুরু বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মসজিদের জায়গা আত্মসাতের অভিযোগ দুই বছরেও নির্মাণ হয়নি ২০ হাত দৈর্ঘ্যের ব্রিজ! মেরিন ড্রাইভে চালু হচ্ছে দেশের প্রথম টুরিস্ট ক্যারাভ্যান গর্ভবতী মায়েদের যেসব টিকা ভুলেও নেয়া যাবে না সালমান শাহ’র মৃত্যুর প্রতিবেদন জমা দিয়েছে পিবিআই প্রাথমিকে বৃত্তি পেল ৮২ হাজার ৪২২ জন ঘরে বসেই পুলিশের যেসব সেবা পাবেন বিবাহিত নারীদের পরকীয়ায় জড়ানোর পাঁচ কারণ অতীত জীবনের গোনাহ মাফের আমল জিম্বাবুয়ে সিরিজের পরেও অধিনায়ক থাকছেন মাশরাফী!
  • বুধবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪২৬

  • || ০২ রজব ১৪৪১

৪৬২

ব্রাহ্মণপাড়ায় বেড়ে গেছে আত্মহত্যার প্রবণতা

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২০ জানুয়ারি ২০২০  

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় বেড়ে গেছে আত্মহত্যার প্রবণতা। প্রাই এ উপজেলায় আত্মহননের ঘটনা গুলো ঘটছে অহরহ। এরমধ্যে তরুণ তরুণীর সংখ্যাই বেশি। এর মধ্যে গত এক বছরে তরুণ তরুণী ও বিভিন্ন বয়সী নারী পুরুষ সহ প্রায় ৩০ জন। এর মধ্যে থানায় রেকর্ডকৃত অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে ১৪ টি। আত্মহননকারীদের মধ্যে কেউ কেরির ট্যাবলেট, কেউ কিটনাশক এবং গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৯ ইং সালের ২৭ ডিসেম্বর উপজেলার শিদলাই গ্রামের রাসেল মিয়ার স্ত্রী হালিমা বেগম (২৩) আত্মহত্যা করে মারা যায়। এছাড়াও গত বছর ২৮ জানুয়ারি উপজেলার উত্তর তেতাভূমি গ্রামের মো. ইব্রাহীমের স্ত্রী ফিমা আক্তার (২০), কান্দুঘর পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুল্লাহ আল মুহিতের স্ত্রী রাবেয়া বেগম (২৭), ২১ জুন জিরুইন গ্রামের মৃত আব্দুল গনির ছেলে মো. আব্দুল হান্নান (৪৬), ২৬ জুন জামতলী গ্রামের মো. জাকির হোসেনের মেয়ে সানজিদা আক্তার (১৩), ১৭ জুলাই পূর্ব পোমকাড়া গ্রামের গ্রামের মৃত আব্দুল মোনাফের ছেলে মো. জাসিম উদ্দিন (৩২), ২১ জুলাই ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (২৬), ১৮ আগষ্ট দক্ষিণ নাগাইশ গ্রামের মৃত ছায়েব আলীর ছেলে ইকবাল হোসেন (৪৭), ২৫ আগষ্ট অলুয়া গ্রামের গ্রামের মো. গিদু মিয়ার স্ত্রী রহিমা বেগম (৩৩), ৭ ডিসেম্বর ব্রাহ্মণপাড়া গ্রামের সুমন মিয়ার মেয়ে জুমা আক্তার (১৪), ১৭ ডিসেম্বর জিরুইন গ্রামের মৃত নোয়াব আলী ভূইয়ার ছেলে মো. মোতালেব ভূইয়া (৬০) এবং ২৩ ডিসেম্বর মহলক্ষীপাড়া গ্রামের মো. শহীদুল্লাহ  এর ছেলে সজিব আলম আত্মহত্যা করেছেন। তাদের মধ্যে কেউ গলায় ফাঁস লাগিয়ে এবং কেউ কিটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করেন।

আত্মহত্যার প্রবণতা বৃদ্ধির বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আবু হাসনাত মো. মুহিউদ্দিন মুবিন বলেন, মাদক, প্রেমে ব্যর্থতা, পারিবারিক কলহ, অতিরিক্ত উচ্চাকাঙ্খার কারণে তরুণ-তরুণীরা বেশি হারে আত্মহত্যা করছেন। আত্মহত্যার দুটি ধরন আছে- পরিকল্পিতভাবে এবং আবেগতাড়িত হয়ে আত্মহত্যা। বাংলাদেশে অধিকাংশ তরুণ-তরুণীদের আত্মহত্যার ঘটনা আবেগতাড়িত। হতাশা, প্রেমে ব্যর্থ, পরীক্ষার ফল খারাপ, বাবা মায়ের সঙ্গে ঝগড়াসহ ছোটখাটো বিষয়েই আবেগতাড়িত হয়ে অনেকে আত্মহননের পথ বেছে নেন। নারীদের মধ্যে আত্মহত্যার হার বেশি। এ পেছনে রয়েছে আমাদের আর্থ সামাজিক অবস্থা, নির্যাতন, ইভটিজিং, যৌতুক, সম্ভ্রমহানি, অবমাননা, অর্থনৈতিক সক্ষমতা না থাকা ইত্যাদি।

তিনি আরো বলেন, যারা আত্মহত্যা করেন তাদের ৯৫ ভাগই কোনো না কোনো মানসিক রোগে ভোগেন। এ মানসিক রোগের সঠিক চিকৎসা করা গেলে আত্মহত্যা কমবে। মানসিক রোগীদের মধ্যে আত্মহত্যার হার বেশি থাকে, যেমন- বিষ্ণণতা, বাইপোলার মুড ডিজঅর্ডার, সিজোফ্রেনিয়া, পার্সোনালিটি ডিজঅর্ডার, মাদকাসক্ত, উদ্বেগে আক্রান্ত ইত্যাদি রোগীরা বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আত্মহত্যা করে থাকে। তাদেরকে সঠিক সময়ে চিকিৎসা দিলে এর থেকে পরিত্রণ পাওয়া সম্ভব। এছাড়াও মাদকাসক্তি আত্মহত্যা প্রবণতার জন্য একটি বড় কারণ।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর