ব্রেকিং:
মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ একদিনে পদ্মাসেতুর আয় পৌনে ৫ কোটি টাকা চামড়া সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি ঈদে ট্রেনে মানুষের নির্বিঘ্নে বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ খাদ্যসামগ্রী ও দেড় শতাধিক মানুষ নিয়ে জাহাজ গেল সেন্ট মার্টিন কুমিল্লায় বেতন-বোনাসের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ আফজাল খান পত্নী বীর মুক্তিযোদ্ধা নার্গিস আফজালের ইন্তেকাল
  • মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিপুল পরিমাণ নকল জুস, ড্রিংক জব্দ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিষাক্ত ক্যামিকেল দিয়ে জুস ও ড্রিংক তৈরি করার দায়ে মের্সাস সাইফুল ফুড প্রোডাক্ট নামে এক প্রতিষ্টানের মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও ১০ দিনের সাজা দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

সোমবার দুপুরে জেলা শহরের খৈয়াসার এলাকায় মের্সাস সাইফুল ফুড প্রোডাক্ট নামক প্রতিষ্টানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে জেলা শহরের খৈয়াসার এলাকায় দুটি কারখানায় বিএসটিআই’র সীল নকল করে বিষাক্ত কেমিক্যাল ব্যবহার করে লিচু জুস, ড্রিংকো জুস, চানাচুর, মটর বিহীন ডাল, চিপস ও বরো ড্রিংকসহ বিভিন্ন প্রকার শিশু খাদ্য তৈরি করে আসছিলেন কারখানার মালিক মো. হোসাইন। 

সোমবার দুপুরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কারখানা দুটিতে অভিযান চালায় জেলা প্রশাসনের নির্বিহী ম্যাজিষ্ট্র্যাট মো. তৌহিদুল ইসলামের নেতৃত্বাধীন ট্রাস্কফোর্স সদস্যরা। অভিযানে কারখানায় গিয়ে দেখেন বিষাক্ত কেমিক্যাল ব্যবহার করে শিশুদের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ নকল খাদ্য সামগ্রী তৈরি করা হচ্ছে। পরে বিএসটিআইয়ের অনুমোদন না থাকা, কারখানা পরিচালনার কোন ধরনের বৈধতা না থাকায় মো. হোসাইনকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অভিযানের নেতৃত্বে থাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্যাট মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, পরিমাণ মানদণ্ড আইন ২০১৮-এর ২৪(১) এর ৪১ ধারা ভঙ্গ করার কারণে কারখানার মালিক মো. হোসাইনকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।

বিএসটিআই কুমিল্লা জেলা অফিসের ইন্সপেক্টর (মেট্রোলজি) মো. লুৎফুর রহমান জানান, তারা বিএসটিআই'য়ের মোড়ক নকল করে খাদ্য সামগ্রী তৈরি করে আসছিলেন। শিশু খাদ্যগুলো বিষাক্ত ক্যামিকেল ব্যবহার ও নোংরা পরিবেশে তৈরি, স্বাস্থ্যের জন্যে মারাত্নক ঝুঁকিপূর্ণ। তাই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। অবৈধ নকল কারখানার বিরুদ্ধে তাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।