ব্রেকিং:
ভোট কেন্দ্রে ৩ ঘন্টায় একটি ভোটও পড়েনি বন্ধ রাস্তা খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটিতে কুমিল্লার ৪ তরুণ ঐতিহাসিক ‘৭ মার্চ’ উদযাপনে হঠাৎ বিএনপির বোধদয় কেন? নেশার টাকা না পেয়ে মাকে মেরেই ফেললেন পাপিয়া কুমিল্লার ঠাকুরপাড়ায় বড় ভাইয়ের প্রেমের বলি ছোট ভাই ! করোনায় আরো ৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৮৫ মেট্রোরেলের প্রথম ধাপ দৃশ্যমান ভাসানচর পরিদর্শনে যাচ্ছে ওআইসির প্রতিনিধি দল বদলে যাবে এসিআর, আসছে এপিএআর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গাড়ি ও বাড়ি ক্রয়ে নিষেধাজ্ঞা আসছে ইচ্ছেকৃত ঋণখেলাপিদের জিএসপি প্লাস সুবিধা আদায়ে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে ১৭ দিনে টিকা নিয়েছেন প্রায় ৩০ লাখ মানুষ আধুনিক বিশ্বের মতো উন্নত বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় যাচ্ছে দেশ মুজিববর্ষে অনন্য মাইলফলকে দেশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ৫ জন আহত মাদরাসাছাত্রীকে বিবস্ত্র ভিডিও ধারণ-একাধিকবার ধর্ষণ, গ্রেফতার ২ ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে দেশে মেডিকেলে ভর্তিতে আসন বাড়ছে ২৮২
  • সোমবার   ০১ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪২৭

  • || ১৬ রজব ১৪৪২

ভাষার মাসকে সম্মান জানাতে হাইকোর্টে মামলার রায় হলো বাংলায়

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলার বিচারিক আদালতের দেয়া ১০ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রেখে আজ হাইকোর্টের রায়টি বাংলায় ঘোষণা করা হয়েছে।

ডেপুটি এটর্নি জেনারেল ড. মো. বশির উল্লাহ বলেন, আজ হাইকোর্ট গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায়টি সংক্ষিপ্তাকারে প্রকাশ করেছেন আদালত। যেহেতু আমাদের গৌরবের ভাষার আন্দোলনের মাস চলছে। তাই ভাষার মাসের প্রতি সম্মান জানাতে আদালত এ মামলার রায় বাংলাতে ঘোষণা করেছেন।

বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত একটি ভার্চুয়াল হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ রায় ঘোষণা করেন।

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার মামলায় ঢাকার একটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ১০ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড দিয়ে ২০১৭ সালের ২০ আগস্ট রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন- ওয়াশিম আখতার ওরফে তারেক হোসেন, মো. রাশেদ ড্রাইভার ওরফে আবুল কালাম, মো. ইউসুফ ওরফে আবু মুসা হারুন, শেখ ফরিদ ওরফে মাওলানা শওকত ওসমান, হাফেজ জাহাঙ্গীর আলম বদর, মাওলানা আবু বক্কর, হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া, মুফতি শফিকুর রহমান, মুফতি আবদুল হাই ও মাওলানা আবদুর রউফ ওরফে আবু ওমর।

এ মামলার বিচারিক আদালতের রায়সহ সকল নথি ২০১৭ সালের ২৪ আগস্ট হাইকোর্টে পাঠানো হয়। এরপর প্রধান বিচারপতির কাছে নথি উপস্থাপন করা হলে তিনি জরুরি ভিত্তিতে এ মামলার পেপারবুক তৈরির নির্দেশ দেন। পেপারবুক তৈরি হলে হাইকোর্টে আসামিদের ডেথ রেফারেন্স ও আপিলের ওপর শুনানি হয়। ১ ফেব্রুয়ারি উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আজ রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য ছিল।

মামলায় আনা অভিযোগ বিষয়ে জঙ্গি মুফতি হান্নানের আদালতে দেয়া জবানবন্দি অনুযায়ী, ২০০০ সালের জুলাই মাসে জঙ্গি সংগঠন হুজির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে শেখ হাসিনাকে হত্যার সিদ্ধান্ত নেন তারা। ওই বছরের ২০ জুলাই কোটালীপাড়ায় শেখ হাসিনার সমাবেশস্থল ও হেলিপ্যাডের কাছে দুটি শক্তিশালী বোমা পুঁতে রাখা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, সমাবেশের আগে পুঁতে রাখা বোমা পুলিশ উদ্ধার করে। ফলে ভয়াবহ ষড়যন্ত্র নস্যাত হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি