ব্রেকিং:
কুমিল্লা সমাবেশে রুমিনের মোবাইল ছিনতাই করল যুবদল কর্মী হাইমচরে নৌকার পক্ষে প্রচারণায় মাঠে ডা:টিপু ও মেয়র জুয়েল চাঁদপুর শহরের গ্রীণ ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আজ বিশেষ মুনাজাতের মধ্যে শেষ হচ্ছে চাঁদপুর জেলা ইজতেমা মতলব উত্তর ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ রামপুরে বিষ প্রয়োগে অসহার কৃষকের মাছ নিধন ‘গুসি শান্তি পুরস্কার’ পেলেন শিক্ষামন্ত্রী মতলবের ধনাগোদা নদীতে কচুরিপানা জটে নৌ চলাচল বন্ধ মতলবের ধনাগোদা নদীতে কচুরিপানা জটে নৌ চলাচল বন্ধ ৩৫ বছরে শৈশবের স্বাদ, হতে চান উচ্চশিক্ষিত লক্ষ্মীপুরে ছাত্রদলের ১৫১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দক্ষিণ আফ্রিকায় নোয়াখালীর ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা অটোরিকশা-মোটরসাইকেল সংঘর্ষ, প্রাণ গেল ২ তরুণের মুরাদনগরের সিদল যাচ্ছে বিদেশে ট্রেনে কাটা পড়ে নারীসহ ২ জনের মৃত্যু যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত বঙ্গবন্ধু টানেলে গাড়ি চলবে জানুয়ারিতে বিদেশিদের মন্তব্যে বিরক্ত সরকার আমনের বাম্পার ফলন রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু
  • রোববার   ২৭ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

মহাসড়কে অবৈধ আড়ৎ: ঘটছে দুর্ঘটনা, লাগছে যানজট

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২২  

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ঘিরে গড়ে উঠা দেশের অন্যতম সর্ববৃহৎ তরকারি বাজার কুমিল্লার নিমসারে মহাড়কের মাঝখানের সরকারি অধিগ্রহণকৃত জমিতে অবৈধভাবে আড়ৎ ও দোকান গড়ে তুলেছে দখলদাররা। নিমসার বাজারটি মূলত মহাসড়কের দুই পাশ ঘিরে হলেও এবার এই দখলদাররা স্থাপনা গেড়েছে সড়কের দুই লেনের মাঝখানের অংশে। নিমসার স্কুলের সামনে থেকে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের আশপাশে ঢাকা ও চট্টগ্রামগামী দুই লেনের মাঝখানে গড়ে তোলা হয়েছে অর্ধশতাধিক আড়ৎ-দোকান ও খাবারের হোটেল। 

বিভিন্ন ধরনের সবজি ও তরকারি বিক্রির পাশাপাশি এসব আড়ৎ ও দোকানে বিক্রি হচ্ছে ফল ও কাঁচামাল। এছাড়াও পুরো বাজারে কয়েক শ’ অবৈধ স্থাপনা রয়েছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। নিমসার বাজারে মহাসড়কের জায়গা দখল করে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদে বেশ কিছুদিন আগে একবার অভিযান চালানো হলেও দখলদাররা ফের সেসব স্থানে স্থাপনা গড়ে তুলেছে। ফলে পুরো বাজারজুড়ে তৈরি হয়েছে বিশৃঙ্খলা, বাড়ছে যানজট, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। অপর দিকে ব্যস্ত মহাসড়কে সৃষ্ট হচ্ছে যানজট এবং ঘটছে দুর্ঘটনাও। 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলায় অবস্থিত নিমসার বাজারের এক অংশে আড়ৎ, অপর অংশে খুচরা শাক-সবজি-ফলমূল এবং আরেক অংশে আলু, মসলার পাইকারি এবং মুরগি ও মাছের খুচরা বাজার বসে। বাজারটিতে প্রতিদিন পাইকারি মালামাল বিক্রির দেড় শতাধিক আড়তের বাইরেও খুচরা চার শতাধিক শাক-সবজির দোকান বসে। 

আড়ৎগুলোতে প্রতিদিন গড়ে ৫-৬ লাখ টাকার শাক-সবজি ও তরকারি বিক্রি হয়। আড়তে যেসব শাক-সবজি বিক্রি হয় তার সিংহভাগই কুমিল্লার বাইরের জেলাগুলো থেকে আসে। কিছুসংখ্যক মালামাল আসে নিমসারের আশপাশের এলাকা ও কুমিল্লার বিভিন্ন উপজেলা থেকে। সেখান থেকে ব্যবসায়ী ও খুচরা বিক্রেতারা পণ্য ক্রয় করে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করেন। তবে বাজারের আড়তদারদের বেশিরভাগই কুমিল্লার স্থানীয়। 

এ বাজারটিতে প্রকৃত ব্যবসায়ীদের পাশাপাশি রয়েছেন কিছু অবৈধ দখলদারও। এসব দখলদারদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হলেও কিছুদিন পর ফের স্থাপনা গড়া হয় সেখানে। সবশেষ ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে নিমসার বাজারে অভিযান চালিয়ে কয়েকশ’ অবৈধ দোকান ও আড়ৎ উচ্ছেদ করা হয়েছিলো। এরপর আর কোনো অভিযানের তথ্য পাওয়া যায়নি। সাম্প্রতিক সময়ে বাজারজুড়ে কয়েক শ’ অবৈধ দোকান ও আড়ৎ গড়ে তুলে সেখানে ব্যবসায়ীক কার্যক্রম চালানো হচ্ছে বলে জানা গেছে। 

এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে মহাসড়কের দুইলেনের মাঝখানের সরকারি অধিগ্রহণকৃত অংশে গড়ে তোলা দোকান-আড়তের দৃশ্যটি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি সূত্র বলছে, বুড়িচং উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক, পরিহল পাড়া এলাকার রুহুল আমিনসহ ২০/২৫ জনের একটি প্রভাবশালী চক্র এসব স্থাপনা গড়ে ভাড়া দিচ্ছেন। সেখানে আড়ৎ ও দোকান নিয়ে বসা কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, দখলদাররা এসব দোকান বিভিন্নজন বিভিন্ন রেটে ভাড়া দেন। আর ভাড়াটিয়াদের ভাষ্য, ‘আমরা তাদের কাছ থেকে ভাড়া নিয়েছি। বৈধ নাকি অবৈধ তা বলতে পারবো না।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে বুড়িচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হালিমা খাতুন জানান, নিমসার বাজারের কিছু অবৈধ স্থাপনার বিষয়ে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর থেকে আমাদের বলা হয়েছে। সেখানে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হবে। উপজেলা সহকারী কমিশনারকে (ভূমি) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি শীঘ্রই সেখানে অভিযান চালিয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করবেন।

সড়ক ও জনপথ অধিদফতর, কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী সুনীতি চাকমা বলেন, মহাসড়কের নিমসার বাজার ও আশপাশের অংশে যেসব অবৈধ স্থাপনা আছে সেগুলো উচ্ছেদ করা হবে। অতিদ্রুতই অভিযান চালিয়ে সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার করা হবে।