ব্রেকিং:
অফিসে মাস্ক পরা, স্বাস্থ্য বিধির ১৩ দফা মানা বাধ্যতামূলক দুর্যোগ মোকাবিলা সরকারের উদ্যোগ ইতিবাচক প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ বিমান ভাড়া করলো জাতিসংঘ জীবিকার প্রয়োজনে সীমিত পরিসরে সচল হচ্ছে সব শেখ হাসিনা দেশের ইতিহাসে বৃহত্তম ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছেন শান্তিরক্ষা মিশনে সাড়া দিতে সরকারের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে মতলব উত্তরে ১০ লকডাউন পরিবারের মাঝে খাদ্যসহায়তা বিতরণ ২৫০০ টাকার অনিয়মে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার বরখাস্ত করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত কুমেক হাসপাতাল, উদ্বোধন ৩ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে চাঁদপুরে আরো ১২ জনের করোনা শনাক্ত কুমিল্লায় একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৭০ ঢাকার চারপাশে হচ্ছে ৬ স্যাটেলাইট সিটি ৬ কোটির বেশি মানুষ পেয়েছে সরকারি ত্রাণ আফ্রিকায় শ্রমবাজারের নতুন সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা ঘরে বসেই পরীক্ষা দেবে, এমন চিন্তা সরকারের ‘ডাকযোগে’ আম লিচু পৌঁছে যাবে বিভিন্ন বাজারে ‘ইভেরা টুয়েলভ’ সেবনে ১১ পুলিশ সদস্যের পাঁচদিনেই করোনা নেগেটিভ! সাত হাজার পরিবারকে উপহার দিচ্ছে বেজা শুরু হয়েছে প্রশাসনে শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযান
  • শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

৩১৮৭

মানুষের কৃত্রিম ফুসফুস বানিয়ে মৌ-আঁখি-বিপাশার চমক

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৭ জুন ২০১৯  

রাজশাহীর তিন কিশোরী রুমান্তা হোসেন মৌ, নাইমা আক্তার আঁখি ও বিপাশা খাতুন মানুষের কৃত্রিম ফুসফুস বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। 

জাতীয় পর্যায়ের স্কিলস কম্পিটিশন-২০১৮ প্রতিযোগিতায় এই উদ্ভাবন নজর কাড়ছে সবার। এর আগে মানুষের কৃত্রিম ফুসফুস আবিষ্কার করে সারাবিশ্বে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন বাংলাদেশি তরুণ বিজ্ঞানী আয়েশা আরেফিন টুম্পা।  

রাজশাহী মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী মৌ-আঁখি-বিপাশা ক্লাসের ফাঁকে তিনজনে মিলে মানুষের জন্য কৃত্রিম ফুসফুস বানিয়েছেন। যেটি বাংলাদেশের  জন্য খুবই উপযোগী ও সাশ্রয়ী একটি প্রকল্প। এর মাধ্যমে চিকিৎসা ব্যয় বহুলাংশে কমিয়ে আনা সম্ভব।

এই তিন ক্ষুদে উদ্ভাবক বলেন, তাদের এই যন্ত্র রোগীর অবস্থা অনুযায়ী নলের মাধ্যমে শ্বাসনালীতে সংযুক্ত করা সম্ভব। এখানে আলাদা করে কোনো অক্সিজেন সিলিন্ডারের প্রয়োজন হবে না। কেননা প্রকৃতি থেকে এটি অক্সিজেন সংগ্রহ করবে। এদিক থেকে প্রচলিত ভেন্টিলেটরের তুলনায় এটি আধুনিক।
 
মৌ বলেন, প্রচলিত ভেন্টিলেটরের দাম ৭ থেকে ১০ লাখ টাকা। আমাদের যন্ত্রটি ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকায় ব্যবহার উপযোগী করে তৈরি করা সম্ভব। দেশের মানুষের জন্য এই সামান্য কাজটুকু করতে পেরে আমরা অনেক বেশি আনন্দিত ও গর্বিত।

আঁখি ও বিপাশা বলেন, কলেজে পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে পুরো কাজটি করেছি। এখন সবাই যেভাবে বাহবা দিচ্ছে সেটা আমাদের আরো অনেক স্বপ্ন দেখাচ্ছে। এরপর আরও নতুন কিছু উদ্ভাবনের জন্য চেষ্টা শুরু করব। 

রোববার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আয়োজিত জাতীয় পর্যায়ের স্কিলস কম্পিটিশন-২০১৮ ঘুরে দেখেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। 

কুমিল্লার ধ্বনি
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর