ব্রেকিং:
মাস্ক ছাড়া বাইরে বের হলে ৬ মাসের জেল, ১ লাখ টাকা জরিমানা করোনা প্রকল্পে বিশেষ বরাদ্দ ২০৭ কোটি টাকা এসএসসির সব সূচকেই ভাল ফল দেশে আজও দুই হাজারের অধিক আক্রান্ত, মৃত্যু ২২ করোনা আক্রান্তদের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন সেবা নারী শান্তিরক্ষীদের অবদানের কথা তুলে ধরলেন রাবাব ফাতিমা করোনা শনাক্ত করতে রাজধানীতে আরো দুটি ল্যাব চালু ভর্তুকি খাতে বরাদ্দ বাড়ছে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা মানব পাচারকারীদের গ্রেফতারে তদন্তে নেমেছে সিআইডি সিএএমএসের মাধ্যমে হচ্ছে গরিবদের ডাটাবেস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনই খোলা হবে না : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের ২০০০ কোটি টাকা সুদ মওকুফ করা হবে : প্রধানমন্ত্রী দুই মাস পর পুরোনো রূপে চাঁদপুর, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে লঞ্চ বৃদ্ধকে প্লাজমা দিলেন করোনাজয়ী চিকিৎসক বরুড়ার সেই চা বিক্রেতার স্কুলে শতভাগ পাশ চাঁদপুরে আরো ১১ জনের করোনা শনাক্ত ছেলের মরদেহ নিয়ে সাড়ে ৬ ঘণ্টা সড়কে দাঁড়িয়ে ছিলেন বাবা-মা কুমিল্লায় চিকিৎসকসহ নতুন আক্রান্ত ১০৩ করোনার অবনতি হলে এবার কঠোর লকডাউন: প্রধানমন্ত্রী এস.এস.সি-২০২০ এর ফলাফলে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের অভাবনীয় সাফল্য
  • মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

  • || ০৯ শাওয়াল ১৪৪১

৮৯৩

মায়ের পরিশ্রমের ফলে দুই মেয়ে আজ পুলিশ কনস্টেবল

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৮ জুলাই ২০১৯  

সংসারে নুন আনতে পান্তা ফুরায়। তবু থেমে থাকেনি স্বপ্ন পূরণের অদম্য ইচ্ছা। ঝিয়ের কাজ করে দুই মেয়েকে লেখাপড়া করান মা। মায়ের সেই পরিশ্রমের ফলে দুই মেয়ে আজ পুলিশ কনস্টেবল।

রোববার সন্ধ্যায় তাদের নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন হবিগঞ্জের এসপি মোহাম্মদ উল্ল্যাহ। নিয়োগপ্রাপ্তরা হলেন- জেলার আজমিরীগঞ্জের পশ্চিমভাগ গ্রামের দূর্গাচরণ দেবের মেয়ে রোমা রানী দেব ও রুনা রানী দেব। তারা বানিয়াচং সুফিয়া মতিন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী।

এসপি মোহাম্মদ উল্ল্যাহ জানান, রোমা রানী দেব ও রুনা রানী দেব হতদরিদ্র পরিবারের সদস্য। তাদের বাবা নেই। তাদের মা বাসন্তী রানী দেব বাসায় কাজ করে মেয়েদের লেখাপড়া করাচ্ছেন। মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে তারা বাংলাদেশ পুলিশের সদস্য হয়েছেন। মায়ের পরিশ্রমের ফল মিলেছে। জনগণের সেবায় দুই বোন নিজেদের নিয়োজিত রাখবে বলে আশাবাদী।

মা বাসন্তী রানী দেব জানান, পুলিশ বিভাগকে প্রথমে ধন্যবাদ জানাই। যারা বিনা টাকায় মেয়েদের চাকরি দিয়েছে। মানুষের বাসায় কাজ করে মেয়েদের লেখাপড়া শিখিয়েছি। তারা এক সঙ্গে চাকরি পেয়েছে। এর চেয়ে খুশির খবর কি হতে পারে।  

রোমা রানী দেব জানান, বাবার মৃত্যুর পর মা অনেক কষ্টে লেখাপড়া শিখিয়েছেন। কখনো ভাবিনি বিনা টাকায় চাকরি পাবো। কিন্তু মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে দুই বোন চাকরি পেয়েছি। জনগণের সেবায় নিজেদের নিয়োজিত রাখতে চাই।

এর আগে মাত্র ১০০ টাকা খরচ করে পুলিশের চাকরি পান ৯৭ মেধাবী শিক্ষার্থী। রোববার সন্ধ্যায় হবিগঞ্জ পুলিশ লাইন মাঠে চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করা হয়। এ সময় ব্রিফিংয়ে হবিগঞ্জের এসপি মোহাম্মদ উল্ল্যাহ জানান, সাধারণ কোটায় পুরুষ ২০ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুরুষ ২৯ জন, অন্যান্য কোটায় ৯ জন, সাধারণ কোটায় নারী ৩৪ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নারী চারজন, অন্যান্য কোটায় একজনসহ মোট ৯৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এসপি আরো বলেন, কোনো দালাল বা টাকার বিনিময়ে নিয়োগ হয়নি। নিয়োগপ্রাপ্তরা অত্যন্ত হতদরিদ্র ও মেধাবী। এদের মধ্যে কারো বাবা কৃষক, আইসক্রীম বিক্রেতা, অন্ধ। আবার অনেক প্রার্থী টিউশনির মাধ্যমে উপার্জন করতেন। এরা অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে থাকলেও মেধায় অনেক এগিয়ে। তাই তাদের যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ১ জুলাই থেকে ৭ জুলাই পর্যন্ত এ নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। যারা চাকরি পেয়েছেন, তারা মাত্র ১০০ টাকা ব্যাংক ড্রাফ করেছেন। এতেই তারা সফলতা অর্জন করেছেন।

কুমিল্লার ধ্বনি
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর