ব্রেকিং:
জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা ও পুরুষের দায়িত্ব বিষয়ক সভা শীতকালীন প্রতিযোগিতা উপলক্ষে শিক্ষা বোর্ডের প্রস্তুতি বিজয় দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচী উদ্বোধন দুদিন পর গোমতী থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার রিয়েলিটি শো উদ্ভাবকের খোঁজে- সিজন ২পুরস্কার বাহরাইনে কুমিল্লার যুবককে ৭ তলার ছাদ থেকে ফেলে হত্যা মধ্যরাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনে অনিয়মের অভিযোগ পুলিশ পরিচয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা ব্যাংকের ভল্টের তালা ভেঙ্গে টাকা লুট ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে আগ্রহ নেই পথচারিদের নিমসার বাজার উচ্ছেদে হাইকোর্টের নির্দেশ ছয়টি নিয়ম মানলেই সিজার এড়ানো সম্ভব! স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ও পরিচালককে হাইকোর্টে তলব ঢাবিতে স্যানিটারি ন্যাপকিনের ভেন্ডিং মেশিন উদ্বোধন জটিল প্রশ্নের জবাব দিতে সহায়তা করবে ফেসবুক বাংলাদেশ ব্যাংককে সহযোগিতা করবে ফিলিপাইন শীতে ক্ষুদে সদস্যদের আরামদায়ক পোশাক নির্বাচন ঘুষ না খেলে চাকরি চলে যাবে, করণীয় কী? আইপিএল খেলতে আগ্রহী যে ছয় বাংলাদেশি

বৃহস্পতিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৬   ০৭ রবিউস সানি ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
১০৩

মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পর্যাপ্ত নয়: জাতিসংঘ

প্রকাশিত: ১৯ জুলাই ২০১৯  

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে মিয়ানমারের সেনা কর্মকর্তাদের উপর যুক্তরাষ্ট্র যে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তা যথেষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের দূত ইয়াংহি লি।

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

লি বলেন, সেনাপ্রধান মিন অং হলাইং, উপ সেনা প্রধান সোয়ে উইন এবং ব্রিগেডিয়ার জেনারেল থান ও এবং অং অং ছাড়াও রোহিঙ্গা নিপীড়ন বিষয়ে ২০১৮ সালে প্রকাশিত জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে অন্য যে দুইজন সেনা কর্মকর্তার নাম এসেছে তাদের সবাইকে গণহত্যার অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি করা উচিত।

ওয়াশিংটন এ সপ্তাহে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর প্রধান মিন অং হলাইং এবং আরো তিন জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের উপর যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মাত্র। যেটি এখন পর্যন্ত ওয়াশিংটনের সবচেয়ে কঠোর শস্তিমূলক পদক্ষেপ। যদিও এই নিষেধাজ্ঞা একেবারেই যথেষ্ট নয় বলে লি বলেছেন, জাতিসংঘ একে ‘জাতিগত নিধন’ বলে বর্ণনা করলেও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এখনো একে গণহত্যা বলেনি; মিয়ানমারের উপর কঠোর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে এ স্বীকৃতি প্রয়োজন।

২০১৭ সালে মিয়ানমারের কয়েকটি সীমান্তপোস্টে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলার পর রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযানে হত্যা, ধর্ষণ এবং বাড়িঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। প্রাণ বাঁচাতে প্রায় সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। যদিও মিয়ানমার সেনাবাহিনী এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। 

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর