ব্রেকিং:
১৪ দিন পর ঢাকায় ফেরার অনুরোধ স্বাস্থ্য অধিদফতরের রাজনীতির সীমানা পেরিয়ে শেখ হাসিনা কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক: কাদের ভুল নীতিতে ডুবছে পাকিস্তান, সঠিক নীতিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ চলমান ‘লকডাউন’ ২৩ মে পর্যন্ত বাড়ছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক, শেখ হাসিনার নামে বাড়ি ফিলিস্তিনে পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন, বাংলাদেশিদের রবিবার থেকে এনওসি দেওয়া হবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের চার দশক পূর্তিতে তথ্যচিত্র ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘টাউকটে’ তিন ওয়ানডে খেলতে ঢাকায় শ্রীলংকা ক্রিকেট দল ইসরায়েলকে সমর্থন জানিয়ে বাইডেনের ফোন ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলায় নিহত বেড়ে ১৪৯ ফের বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ঈদ উপলক্ষে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার আরো সাতদিন বাড়ছে লকডাউন, রোববার প্রজ্ঞাপন করোনায় ভাই হারালেন মমতা ব্যাংক-বিমা ও শেয়ারবাজার খুলছে কাল গাজায় ৪০ মিনিটে ৪৫০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল ইসরায়েল স্বাস্থ্যবিধি পালনে সর্বোচ্চ সতর্কতার আহ্বান কাদেরের দেশেই টিকা উৎপাদনের ব্যবস্থা নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী উপকূলের ঘরে ঘরে ডিজিটাল ব্যাংক
  • রোববার   ১৬ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

মুরাদনগরে ঈদ বাজারে করোনার থাবা

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৪ মে ২০২১  

শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবি, ফতুয়া, টুপি, সালোয়ার, ব্লাউজ, পেটিকোট, সেলাই ছাড়া থ্রিপিস ইত্যাদি থান কাপড়ের দোকানগুলো বেচাকেনা শেষ করতো রমজানের প্রথম দুই সপ্তাহের মধ্যে। করোনা প্রতিরোধে সর্বাত্মক লকডাউনের কারণে এবার ঈদবোজারে ভাটা পড়েছে। লকডাউনের মধ্যেই কয়েকদিন ধরে দোকানপাট খোলা রাখা হলেও বেচাকেনা নেই বললেই চলে। এমন চিত্র গত কয়েক দিন যাবত চোখে পড়ছে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা কোম্পানীগঞ্জ বাজার।
কোম্পানীগঞ্জ বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী দৈনিক কুমিল্লার কাগজকে বলেন, এখানে মফস্বলের অনেক দোকান পাইকারি পণ্য নিয়ে যায়। কিন্তু করোনা মন্দার কারণে এবার তা বন্ধ বললেই চলে। এতে বন্ধ রয়েছে দোকানিদের কালেকশন বা বাকি টাকা আদায়।
আলিফ ফ্যাশনের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রহিম দৈনিক কুমিল্লার কাগজকে বলেন, ঈদের বেচাকেনার জন্য প্রায় সব প্রতিষ্ঠানই পণ্যসামগ্রী সংগ্রহ করেছে। এখন বেচাকেনা খুবই খারাপ হচ্ছে। এ ভাবে চলতে থাকলে টিকে থাকাই কষ্টকর হবে।   
কোম্পানীগঞ্জ কলেজ মার্কেট সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন মজনু দৈনিক কুমিল্লার কাগজকে বলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারতে করোনা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতির খবর, তীব্র খড়তার উত্তপ্ত গরম, গণপরিবহন বন্ধ, কর্মজীবীদের বেতন-বোনাসের অপোসহ নানা কারণে বেচাকেনা  নেই বললেই চলে। তিনি আরো বলেন, কোম্পানীগঞ্জ বাজারে আড়াই হাজার ছোট-বড় দোকানে ২০ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী ঈদ বাজার নিয়ে উদ্বিগ্ন। আশা করছি, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহ  থেকে রেডিমেড পোষাক পণ্যের ঈদ বাজার চাঙা হবে। থান কাপড় বা কাটা কাপড়ের ব্যবসায়ীরা এবার লোকসানে রয়েছেন।
কোম্পানীগঞ্জ বাজার কমিটির সেক্রেটারি হাবিবুর রহমান দৈনিক কুমিল্লার কাগজকে বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিরাপদে যাতে গ্রাহকেরা কেনাকাটা করতে পারেন, তার জন্য প্রতিটি দোকানকে কড়া নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ক্রেতা-বিক্রেতার মুখে মাস্ক রাখার বিষয়টি সিরিয়াসলি মনিটরিং করছি আমরা।