ব্রেকিং:
রামগঞ্জে শাশুড়িকে শ্বাসরোধে হত্যা, ছেলের বউ আটক পিকআপের ধাক্কায় পল্লী বিদ্যুতের নারী কর্মী নিহত ছেলেদের ঘরের মেঝেতে রক্তের দাগ, মিলল অস্ত্র-রক্তমাখা কাপড় আশুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান সাবেক ভিপি নূরের বিরুদ্ধে দেবিদ্বারেও মামলা করোনা রোধে পোশাক কারখানার নতুন কৌশল বাড়ির কাছে পৌঁছে যাচ্ছে করোনার নমুনা সংগ্রহের গাড়ি করোনার মধ্যেই বাংলাদেশে উন্নতির লক্ষণ দেখছে বিশ্বব্যাংক লকডাউনেও মাছ, মাংস, দুধ, ডিম ও দুগ্ধজাত পণ্যের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় বিকাশে টাকা পাবে সাড়ে ১০ লাখ পরিবার করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু বেড়েছে অন্ধকারে সুবর্ণচর উপজেলা,বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাওয়ের হুমকি ৮ শতাধিক শতাধিক গরীব ও দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ মোবাইলে অন্যজনের সঙ্গে প্রবাসীর স্ত্রী কথা, অতঃপর... ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন কন্যা শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার লালমাই স্ত্রী নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল স্ত্রী-কন্যার সামনে স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছনা দরিদ্রদের ইফতার সামগ্রী উপহার দিলেন এএসপি সোনাগাজীতে মানববন্ধনে সন্ত্রাসী হামলা
  • শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১০ ১৪২৮

  • || ১০ রমজান ১৪৪২

মেঘনায় মাছ ধরা নিষেধ রোববার মধ্যরাত থেকে

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

মেঘনা নদী অভয়াশ্রম এলাকায় রোববার মধ্যরাত থেকে দুই মাসের জন্য মাছ ধরা নিষিদ্ধের প্রচারণা চালানো হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত হাইমচর উপজেলার নৌ সীমানায় কাটাখালি, হাইমচর, চরভৈরবী, মেঘ নদীর পশ্চিমে ভাসমান মৎস্য আড়ৎ এবং জেলে পাড়ায় মাইকিং করে মাছ ধরা থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

 

 

চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল থেকে হাইমচর উপজেলার চরভৈরবী পর্যন্ত প্রায় ৯০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে এই অভয়াশ্রম ঘোষণা করা হয়েছে।

 

নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে মার্চ-এপ্রিল মাসে এ এলাকায় বিচরণ করে ইলিশ মাছ।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি রাত ১২টার পর থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস মেঘনা নদীর অভয়াশ্রম এলাকায় জালসহ যেকোনো সরঞ্জাম দিয়ে জাটকাসহ সব ধরণের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ থাকবে। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী এ সময় কোন মাছ ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন ও মওজুদ পুরোপুরি নিষিদ্ধ থাকবে।

এ আইন অমান্য করে কেউ মাছ ধরলে মৎস্য আইনে দুই বছর কারাদণ্ড, পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হতে পারে বলে প্রচার চালানো হয়।

 

 

হাইমচর উপজেলা টাস্কফোর্সের উদ্যোগে প্রচারণা অভিযানে উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, কোস্টগার্ড হাইমচর ইউনিটের সিনিয়র পেটি অফিসার মো. লুৎফুর রহমান, নৌ পুলিশ চরভৈরবী ফাঁড়ি ইনচার্জ আবদুল জলিল, কোস্টগার্ড ও নৌ পুলিশের সদস্যরা অংশ গ্রহন করেন।

 

পরে উপজেলা টাস্কফোর্সের কর্মকর্তারা কাটাখালি মৎস্য আড়ৎ, হাইমচর মৎস্য আড়ৎ ও চরভৈরবী মৎস্য আড়ৎ এলাকায় মৎস্য ব্যবসায়ী ও জেলেদের উদ্দেশ্যে সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখেন এবং লিফলেট বিতরণ করেন।