ব্রেকিং:
অর্থ চোরাচালান করায় তারেক-জোবায়দার একাউন্ট আবারো জব্দ ফরিদগঞ্জ উপজেলা কেন্দ্রীয় সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা বেহাল অবস্থায় কুমিল্লা চিড়িয়াখানা মানসিক প্রতিবন্ধি হৃদয় ৬ দিন ধরে নিখোঁজ ফরিদ মিয়ার জন্য কান্না থামছে না এতবারপুর গ্রামের মানুষের তামিমার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার !!! করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আরো ৮ মৃত্যু পোশাক খাতে ভিয়েতনামকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ চা উৎপাদনে বৃহত্তর চট্টগ্রামকে ছাড়িয়ে গেছে পঞ্চগড় আলোর ফেরিওয়ালা পলান সরকারের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ আধুনিক পুলিশ মোতায়েন হবে তিন পার্বত্য জেলায় জট খুলেছে ড্রাইভিং লাইসেন্সের ঋণ নিয়ে নয়ছয় করলে কঠোর শাস্তি আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে অপরাধী শনাক্তে র‌্যাব এনেছে ওয়াইভিএস বেসরকারি ভবে বন্ধ পাটকল চালুর নীতিতে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি জেলাপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয় করে দিচ্ছে সরকার :প্রধানমন্ত্রী ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেয়া সুযোগ-সুবিধায় ওআইসি’র সন্তোষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটির আদেশ জারি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সতর্কতার সঙ্গে কাজ করতে বলেছে সংসদীয় কমিটি আজ থেকে দুই মাস ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ
  • সোমবার   ০১ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭

  • || ১৭ রজব ১৪৪২

মেয়েদের শিক্ষা ও জীবনমান উন্নয়নের প্রশংসায় এডিবি

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

মেয়েদের শিক্ষা ও জীবমান উন্নয়নে বাংলাদেশের সাফল্যের ভূয়সী প্রশংসা করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। এডিবি বলছে, বাংলাদেশ মেয়েদের শুধু স্কুলগামীই করেনি তাদের ক্যারিয়ার বা জীবনযাত্রারও উন্নতি করেছে। একটি সহজ, স্বল্পব্যয় উপবৃত্তির কর্মসূচীর মাধ্যমে একাধিক স্তরে মেয়েদের জীবনযাত্রার উন্নতি করেছে। করোনা মহামারীর সঙ্গে লড়াই করে এমন উদ্যোগ বাস্তবায়ন বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে একটা দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছে বলে জানায় এডিবি।

সোমবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা করে এডিবি। জানা গেছে, ১৯৯৪ সালে বাংলাদেশে একটি সহজ, স্বল্পব্যয় উপবৃত্তি কর্মসূচী শুরু হয়। যা পরবর্তীতে পাকিস্তান এবং কিছু উপ-সাহারান আফ্রিকান দেশে যেমন রুয়ান্ডা এবং ঘানাতে শুরু হয় এমন উদ্যোগ। শিক্ষার জন্য সামান্য আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে এ প্রোগ্রামটি তার লক্ষ্যকে ছাড়িয়ে সাফল্য অর্জন করেছে।

এ কর্মসূচীর আওতায় গ্রামাঞ্চলের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত প্রতিটি মেয়ের কিছু শর্তপূরণ করা হয়। যেমন- বিদ্যালয়ে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি, একাডেমিক দক্ষতার কিছু স্তর অর্জন, ৪৫ শতাংশ নম্বর পাওয়া ও মাধ্যমিক স্কুল শেষ না হওয়া পর্যন্ত অবিবাহিত থাকা। কর্মসূচীর উপকারভোগী সংখ্যা দ্বিগুণের বেশি ছাড়িয়ে গেছে। বছরের পর বছর ধরে নারী কল্যাণে একাধিক বিষয়ে অবদান রেখেছে এ কর্মসূচী। স্কুল অর্জন, কর্মসংস্থান, স্বামী/স্ত্রী নির্বাচন ও প্রজনন বিষয়ে।

কুমিল্লার ধ্বনি