ব্রেকিং:
হাজীগঞ্জ পৌরসভার ৬ ও ৮ নং ওয়ার্ডে নৌকার কর্মীসভা জঞ্জালের দেয়াল এখন ফুল বাগান সরাইলে সালিশে করা জরিমানার ৫ হাজার টাকা চাইতে গিয়ে খুন ব্যবসায়ীদরঅভিযোগের তীর হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দিকে,কিন্তু কেন? মগবাড়ী-মনোহরা রাস্তা ২০ বছর পর সংস্কার শুরু ‘আমি মতলবে এসেছি সেনাপ্রধান হিসাবে নয় মতলবের সন্তান হিসাবে’ পাবজি বিশ্বকাপ খেলতে দুবাইয়ে ৫ তরুণ, প্রাইজপুল ১৬ কোটি সারাদেশে ২৫-৩১ অক্টোবর হবে মূল জনশুমারি দুর্নীতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ায় সাড়ে ৪০০ কোটি টাকা মুনাফা এক্সপ্রেসওয়ে নেটওয়ার্কে আসবে সারাদেশ নোয়াখালীর দৃশ্যপট পাল্টে যাবে ২০২৩ সালের মধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণের বাংলাদেশ! দুটি চ্যানেলে দেখা যাবে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট সিরিজ ‘জীবনের সবচেয়ে ভয়াবহ ঘটনা, স্টেজেই শাড়ি খুলে যায়’ (ভিডিও) ১৭ বছরের ক্লাব ক্যারিয়ারে প্রথমবার লাল কার্ড পেলেন মেসি ১৭ বছরের ক্লাব ক্যারিয়ারে প্রথমবার লাল কার্ড পেলেন মেসি কারিগরি নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে পাস করবে বেসরকারি স্কুল-কলেজ-মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা বাড়ল জেএসসির সার্টিফিকেটের জন্য লাগবে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন হাত-পা ছাড়াই কারাতে চ্যাম্পিয়ন ইউসুফ
  • মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১৫৩

রংপুর থেকে ধান কাটতে ১ হাজার শ্রমিক কুমিল্লায় আসছে

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২২ এপ্রিল ২০২০  

দেশের হাওর ও দক্ষিণ অঞ্চলে আগাম বোরো ধান কাটতে রংপুর অঞ্চল থেকে শ্রমিক পাঠানোর কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনের যৌথ উদ্যোগে প্রথম দফায়  রোববার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার  লক্ষিটারী উনিয়ন থেকে শতাধিক কৃষি শ্রমিককে নিয়ে দুটি বাস কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও সুনামগঞ্জ উপজেলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।


বিষয়টি নিশ্চিত করে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রংপুর অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ আলী জানান, প্রতি বছর ধান কাটা মৌসুমে কয়েক হাজার কৃষি শ্রমিক দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় যায়।
রংপুর অঞ্চলে বোরো ধান কাটতে আরও অন্তত ১৫ দিন দেরি। অন্যদিকে দক্ষিণাঞ্চলে ধান ইতোমধ্যে পেকে যাওয়ায় কৃষি শ্রমিকের অভাবে ধান কাটা মাড়াই করা যাচ্ছে না।
এবার করোনা  ভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ায় এবং সড়কপথে যান চলাচল বন্ধ থাকাসহ বিভিন্ন কারণে রংপুর থেকে কৃষি শ্রমিকরা যেতে পারছে না।
এ অবস্থায় কৃষি শ্রমিক সংকট দূর করতে এবং কৃষি শ্রমিকদের দক্ষিণাঞ্চলে পাঠাতে  কৃষি মন্ত্রণালয় জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এ কারণে কৃষি শ্রমিকদের করোনার  মধ্যেও উদ্বুদ্ধ করতে নানানমুখী উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যারা যেতে রাজি হয়েছেন  তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় সনদপত্র সিভিল সার্জন দফতর থেকে গ্রহণ  করা হচ্ছে।
কৃষি শ্রমিকদের যাবার জন্য কোনো খরচ বহন করতে হবে না, সরকারি খরচে তাদের স্ব স্ব জেলা-উপজেলায় পৌঁছে দেয়া হবে।
তিনি আরও জানান, ইতোমধ্যে এ অঞ্চল থেকে এক হাজার কৃষি শ্রমিকের তালিকা করা হয়েছে। এরমধ্যে রোববার শতাধিক শ্রমিক পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে ওই  অঞ্চলে আরও শ্রমিক পাঠানো হবে।
এছাড়াও রংপুর থেকে তিনটি কম্বাইন হারভেস্টার ধানকাটা মেশিনও পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।
রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় কৃষি শ্রমিকদের হাওরসহ দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন উপজেলায় পাঠানোর কাজ শুরু হয়েছে।  ইতোমধ্যে যেসব শ্রমিক সেখানে গেছেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে নিশ্চিত হওয়ার পর  স্বাস্থবিধি মেনে শ্রমিক পাঠানোর কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর