ব্রেকিং:
এপ্রিলেই মিলবে ক্ষতিপূরণের ১২০ কোটি টাকা জাতিসংঘ শান্তিবিনির্মাণ কমিশনের সহ-সভাপতি হলো বাংলাদেশ রোজা উপলক্ষে ভারত থেকে ৩৮০০ মেট্রিক টন মসুর ডাল আমদানি বাংলাদেশ-ভারত অকৃত্রিম বন্ধু: প্রণয় ভার্মা গণতন্ত্র সূচকে দুই ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ সমৃদ্ধ রাজস্ব ভাণ্ডার গড়ে তোলার ওপর প্রাধান্য দিচ্ছে সরকার সামাজিক সংগঠন চাঁদমুখ এর কমিটি গঠন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কোয়াটার উদ্বোধন মতলব দক্ষিনে পৌর শ্রমিক লীগের পরিচিতি সভা স্মার্ট রাজনীতিতে দেশের স্বার্থ সবচাইতে আগে প্রাধান্য পাবে ফরিদগঞ্জে বৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম : আটক ১ মনোনয়ন প্রত্যাশী রেদওয়ান খান বোরহানের গণসংযোগ ১০ দফা দাবিতে বিএনপি কুমিল্লা বিভাগীয় সমাবেশ আজ জনগণের মাঝে দীপু আপার উন্নয়নের কথা পৌঁছাতে হবে -আলী এরশ্বাদ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মায়া চৌধুরীর জন্মদিন পালিত কচুয়ায় আমিনুল ইসলামকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান শেখ হাসিনা সরকার আমলে কেউ কষ্টে নেই: এমপি রুহুল শেখ হাসিনা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য কাজ করছে কচুয়ায় ৫১ বছর পর অবশেষে কাঠালিয়া গ্রামবাসীর স্বপ্ন পূরন বুড়িচংয়ে ১৬৮ হেক্টর জমিতে সরিষার চাষ বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা
  • রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৩ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

রাতের আঁধারে প্রতিবন্ধীর জন্য ফল-মিষ্টি পাঠালেন এসপি

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩  

ঘড়ির কাঁটায় তখন রাত ১০টা ৭ মিনিট। প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদ বিছানায় কম্বল গায়ে শুয়ে আছেন। স্ত্রী জাহেদা খাতুন ঘরের সামনে একচালায় রান্নাবান্না করছেন। দুইটি দৃশ্য বাহির থেকে স্পষ্ট দেখা যায়। হঠাৎ কয়েকজন পুলিশ সদস্য ব্যাগ ভর্তি খাদ্যসামগ্রী নিয়ে প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদের ঘরে হাজির।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাত ১০টা ৭মিনিটে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার (৬ নম্বর ওয়ার্ড) শিল্পী কলোনি এলাকায় এমন ঘটনা ঘটে।

এসময় প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদের ভাড়া-বাসায় এসপির পক্ষ থেকে ফল, মিষ্টি ও খাবার নিয়ে যান শহর পুলিশ ফাঁড়ির (ইনচার্জ) জহিরুল আলম।

প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদ তাঁর স্ত্রী জাহেদা খাতুন ভিক্ষাবৃত্তি করে সংসার চালান।

সম্প্রতি লক্ষ্মীপুর পুলিশ লাইন্স মাঠে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে শীতবস্ত্র (কম্বল)  বিতরণ করা হয়। ওই মাঠে প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদকে নিয়ে যান তার স্ত্রী জাহেদা খাতুন। একটি জীর্ণশীর্ণ হুইলচেয়ার ছিল তাদের সঙ্গী। তখন পুলিশ সুপারের কাছে স্বামী-স্ত্রী দুইজনে একটি নতুন হুইলচেয়ার দাবি করেন। পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ স্বামী-স্ত্রীকে দেওয়া কথা ইতোমধ্যেই পূরণ করছেন। নতুন করে টিকসই মজবুত একটি হুইলচেয়ার উপহার পৌঁছে দেন।

প্রতিবন্ধী আবদুর রশিদ ও তার স্ত্রী জাহেদা খাতুন ঢাকা মেইলকে বলেন, অনেক দিনের আশাপূরণ করছেন এসপি স্যার। আল্লাহ ওনাকে সুস্থ রাখুক। ঝড়বৃষ্টিতে অনেক কষ্ট করে দুইজনকে ভিক্ষাবৃত্তি করতে হয়েছে ভাঙাচুরা হুইলচেয়ারে। এখন আর সমস্যা নেই। নতুন হুইলচেয়ার আমাদের চলার পথের সঙ্গী। স্যার অনেক ভালো মানুষ। এজন্য এ রাতের আঁধারে আমার জন্য আপেল, মাল্টা, মিষ্টি ও খাবার পাঠালেন।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির (ইনচার্জ) জহিরুল আলম ঢাকা মেইলকে বলেন, দীর্ঘ ১৭ বছর বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে কর্মরত থাকার সুবাধে অনেক এসপির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার সুযোগ হয়েছে। মাহফুজ্জামান আশরাফ স্যার সত্যিই মানবিক মানুষ। তিনি সবসময় মানুষের সঙ্গে মিলেমিশে থাকেন। স্যার আমাকে কিছু ফলমূল ও মিষ্টি আমার মাধ্যমে ভিক্ষুকদের জন্য পাঠালেন। অসহায় মানুষগুলোর কাছে এগুলো পৌঁছে দিতে পেরে আমারও এখন ভালো লাগছে।