ব্রেকিং:
দীর্ঘ দিনের জন্য রেকর্ড হচ্ছে টেলিভিশন ক্লাস করোনার মৃত্যু নিয়ে ইতালির চিকিৎসকের মর্মস্পর্শী বার্তা দেশের সব আদালতে দ্বিতীয় দফা ছুটি ‘জ্বর হলে পুলিশ ধরে নিয়ে যাবে’ গুজবে কান না দেয়ার আহ্বান নতুন ১৩ উপসর্গের কথা জানালেন করোনামুক্ত নারী সাংবাদিক এক জাতি আজীবন কোয়ারেন্টাইনেই রয়ে গেছে! তিন হাজার হাজতিকে মুক্তির প্রক্রিয়া শুরু করোনায় কেয়ামতের আলামত! ‘মিশন এক্সট্রিম’র পর আসছে সানী সানোয়ার ‘চোরের গ্রাম’ ইরাকে মার্কিন বাহিনীর তৎপরতা সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন: ইরান আজ থেকে ব্যাংক ঋণের সুদহার এক অঙ্কে করোনা মোকাবিলায় জনগণের পাশে নেই বিএনপি বজ্রবৃষ্টি হতে পারে: আবহাওয়া অফিস অধিক মানুষ মহামারীতে মারা গেলে কবর দেয়াই উত্তম: ডব্লিউএইচও পহেলা বৈশাখের সব অনুষ্ঠান স্থগিত ‘স‌্যালুট’ নিয়ে মিথ‌্যাচার করছেন মহাদুর্নীতিবাজ শামসুল আলম! অর্ধশত পরিবারে খাবার সামগ্রী পৌঁছে দিলো অন্বেষণ করোনা প্রতিরোধে ঝুঁকি নিয়ে সার্বক্ষণিক কাজ করছে পুলিশ দাউদকান্দিতে স্যানিটাইজার, স্যাভলন ও হ্যান্ড ওয়াশ উধাও ছাত্রলীগ নেতার উদ্যোগে মাস্ক ও খাদ্য বিতরণ
  • বৃহস্পতিবার   ০২ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৮ ১৪২৬

  • || ০৮ শা'বান ১৪৪১

১২৮৬

রাতের আধাঁরে সরকারি বনায়নের গাছ কর্তন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের গুংঘুর নদীর দু-পাশের সামাজিক বনায়নের গাছ কেঁটে নিয়েছে স্থানীয় একটি মহল। এ ঘটনায় সমাজিক বনায়নের সদস্যরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে গুংঘুর নদী। এই নদীর দু-পাশে সরকারীভাবে বিভিন্ন প্রজাতির কাঠের গাছ লাগায় সামাজিক বনায়ন কর্তৃপক্ষ। বেশ কিছুদিন ধরে বাকশীমূল এলাকায় ফয়েজ আহাম্মদের ছেলে মীর মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন দলবল নিয়ে রাতের আধাঁরে গাছ কর্তন করতে থাকে। এতে করে নদীর তীরের বনায়ন ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সামাজিক বনায়নের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক আয়েত আলী মেম্বার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গাঁছ কাটার সত্যতা পায়। গাছ কাঁটতে বাঁধা দেয়ায় অভিযুক্ত বিল্লাল হোসেন ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ কবির হোসেনকে হুমকী ধমকী দেয়। হুমকী ধমকির বিষয়ে কবির হোসেন বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করে। গাছ কাঁটার বিষয়ে সোমবার বুড়িচং উপজেলা বন কর্মকর্তার বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করে বনায়ন প্রকল্পের সদস্য একই গ্রামের হাজী মোঃ ফিরুজ মিয়া। অভিযোগের অনুলিপি জেলা বন কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সহকারী কমিশার ভূমি এর বরাবরে পাঠনো হয়।

এ বিষয়ে বুড়িচং উপজেলা বন কর্মকর্তা একে এম লুৎফুলাহ বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। বনায়ন প্রকল্পটির নদীর পারে ১০ কিলোমিটার বিস্তৃত আছে। বনায়নের গাছ কেউ কেঁটে থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর