ব্রেকিং:
ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে..... শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে ইন্টারনেটের ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর ফেরত পাঠানো রোগীদের মৃত্যুর বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের হাওর উন্নয়নে কোটি টাকা নয়-ছয়! দেশে করোনায় আরো ৪৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩২০১ মৃতদের পরিবহনের জন্য অ্যাম্বুলেন্স দিলেন সাকিব করোনার মধ্যেও দেশের রফতানি বাড়লো দ্বিগুণ পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতির কারণে সংকটে বিএনপি দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় ১০ হাজার টন চাল বরাদ্ধ ‘আজীবন বার্সাতেই খেলবেন মেসি’ ভাঙন ঠেকাতে হোগলার বাঁধ এখানে কেউ নমুনা পরীক্ষা, মাস্ক পরা, দূরত্ব মানার ঝামেলা পোহান না সুদের জিম্মাদার করোনা মৃতের কবর খোঁড়ায় বাধা চাঁদপুরে আরো ৮ জনের করোনা শনাক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরো ৮২ জনের করোনা পজিটিভ কুমিল্লায় আরো ৪৭ জন করোনায় আক্রান্ত ৪৩০০ পুকুরে সরকারি খরচে মাছ চাষের উদ্যোগ ফেসবুকের পাসওয়ার্ড ও তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে যে ২৫ অ্যাপ ‘স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখতে হবে’ ‘ত্রাণচোর ও অপরাধী ধরা হচ্ছে, বিএনপির নেতা-কর্মীকে নয়’
  • সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

১৩২৯

রাতের আধাঁরে সরকারি বনায়নের গাছ কর্তন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের গুংঘুর নদীর দু-পাশের সামাজিক বনায়নের গাছ কেঁটে নিয়েছে স্থানীয় একটি মহল। এ ঘটনায় সমাজিক বনায়নের সদস্যরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বুড়িচং উপজেলার বাকশীমূল ইউনিয়নের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে গুংঘুর নদী। এই নদীর দু-পাশে সরকারীভাবে বিভিন্ন প্রজাতির কাঠের গাছ লাগায় সামাজিক বনায়ন কর্তৃপক্ষ। বেশ কিছুদিন ধরে বাকশীমূল এলাকায় ফয়েজ আহাম্মদের ছেলে মীর মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন দলবল নিয়ে রাতের আধাঁরে গাছ কর্তন করতে থাকে। এতে করে নদীর তীরের বনায়ন ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সামাজিক বনায়নের সভাপতি আলহাজ্ব আবদুর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক আয়েত আলী মেম্বার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গাঁছ কাটার সত্যতা পায়। গাছ কাঁটতে বাঁধা দেয়ায় অভিযুক্ত বিল্লাল হোসেন ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ কবির হোসেনকে হুমকী ধমকী দেয়। হুমকী ধমকির বিষয়ে কবির হোসেন বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করে। গাছ কাঁটার বিষয়ে সোমবার বুড়িচং উপজেলা বন কর্মকর্তার বরাবরে একটি অভিযোগ দায়ের করে বনায়ন প্রকল্পের সদস্য একই গ্রামের হাজী মোঃ ফিরুজ মিয়া। অভিযোগের অনুলিপি জেলা বন কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সহকারী কমিশার ভূমি এর বরাবরে পাঠনো হয়।

এ বিষয়ে বুড়িচং উপজেলা বন কর্মকর্তা একে এম লুৎফুলাহ বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। বনায়ন প্রকল্পটির নদীর পারে ১০ কিলোমিটার বিস্তৃত আছে। বনায়নের গাছ কেউ কেঁটে থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর