ব্রেকিং:
তিতাসে সিয়াম হত্যারয় দুই জনের স্বীকারোক্তি পুরো দেশকে উচ্চগতির ইন্টারনেটের আওতায় আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে এইচএসসি পাসে ডিএসসিসিতে চাকরি, আবেদন করুন দ্রুত দ্রুত তওবাকারীদের সম্পর্কে কোরআনে যা বলা হয়েছে বিমানবন্দরে সাফজয়ী নারী ফুটবলারদের লাগেজ ভেঙে ডলার-টাকা চুরি সৌদি আরবে আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় হাফেজ তাকরিম তৃতীয় কুমিল্লায় ইয়াবা বিক্রির সময় ভারতীয় নাগরিকসহ ২ জন আটক রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে জাতিসংঘের জোরালো ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী সাবিনাদের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ছাদখোলা বাস প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর: সোহাগ আলীর ১০ বছরের কারাদণ্ড শেখ হাসিনাকে পাকিস্তান সফরের আমন্ত্রণ শেহবাজ শরিফের সরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ ৪ শর্তে শিথিল জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্ক পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী কুমিল্লায় চার হাসপাতাল সিলগালা, ৩ লাখ টাকা জরিমানা মিয়ানমারের ব্যাপারে সর্বোচ্চ সংযম দেখাচ্ছে বাংলাদেশ:প্রধানমন্ত্রী সিপিডিতে ভালো পদে চাকরির সুযোগ, শুরুতেই পাবেন ৩৫০০০ ঘুমধুম সীমান্তের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের দুটি বাস দিল পুলিশ লক্ষ্মীপুরে ১৫ জুয়াড়ি আটক লন্ডন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী যেখানে সন্ধ্যার পরই জেলার সঙ্গে উপজেলার যোগাযোগ বন্ধ
  • রোববার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১০ ১৪২৯

  • || ২৭ সফর ১৪৪৪

লুঙ্গি ধরে টান দেয়ায় শ্যালিকাকে মেরে ঝুলিয়ে রাখে নতুন দুলাভাই

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

এবার কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর রাখানায় খুশি হত্যা ঘটনায় নতুন বর (জেঠাতো বোনের স্বামী) আব্দুল গনিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, দাম্পত্য কলহের জেরে খুশির মা প্রায় মাস তিনেক আগে বাবার বাড়ি মুন্সিগঞ্জে চলে যায়। তার বাবা বাবু ঢাকায় প্লাষ্টিক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করার স্বার্থে সেখানে থাকেন। এ কারণে হাফছা আক্তার খুশিসহ তিন বোন বাবুর ছোট বোন শাহিদা বেগমের বাড়িতে থাকতো।

গত ৪ সেপ্টেম্বর খুশির জেঠাতো বোন আঙ্গুয়ারার বিয়ে হয় পাশের গ্রামের আব্দুল গনির সঙ্গে। বাড়িতে ঘর সঙ্কট থাকায় নতুন বর-কনে একই ঘরে থাকায় স্বামী-স্ত্রীর একান্ত ব্যাপার দেখে ফেলে খুশি। এ সময় খুশি দুষ্টুমির ছলে আব্দুল গণির লুঙ্গি ধরে টান দেয়। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে খুশিকে শায়েস্তা করার সুযোগ খোঁজে নতুন দুলাভাই গণি।

এদিকে গতকাল রবিবার সকালের দিকে বাড়ি ফাঁকা পেয়ে খুশিকে ঘরে ডেকে নিয়ে বিছানায় ফেলে শ্বাসরোধে হত্যা করে। এবং ঘটনা ভিন্নখাতে নেয়ার জন্য লাশের গলায় ওড়না পেচিয়ে ঘরের বাঁশের ধর্নায় ঝুলিয়ে রেখে ঘর তালাবদ্ধ করে রাখে। পরে আত্মাহত্যার খবর রটালে পুলিশ খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এ সময় ঘাতক গণিকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় খুশির বাবা বাবু মিয়া বাদী হয়ে নাগেশ্বরী থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

এরপর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে বিস্তারিত জানায় আব্দুল গণি। এ বিষয়ে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নবিউল হাসান জানান, আসামি গণি মিয়াকে আদালতে পাঠালে সে আদালতেও স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। মামলার স্বাক্ষী গনির নববধূ আঙ্গুয়ারা এবং শ্বাশুরী আমিনা বেগম আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে।