ব্রেকিং:
একশ’ কোটি টাকা নিয়ে ভারতে পালালেন ব্যবসায়ী মুন্সেফ কোয়ার্টার এলাকার সড়কের নামফলক অপসারণ কুমিল্লা মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের কমিটি অনুমোদন ২০ লাখ টাকার দাবিতে বন্ধুকে অপহরণ, সাতদিন পর উদ্ধার গোসল করাকে কেন্দ্র করে সৌদিতে বাংলাদেশি যুবক খুন ‘দুর্নীতি দমনে সরকার আশাবাদী’ প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি পৌঁছেছেন ব্রাহ্মণপাড়ায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠিদের মাঝে অনুদান বিতরণ কুবিতে সাংবাদিক হয়রানি ও লাঞ্ছনার বিচার চেয়ে মানববন্ধন কুমিল্লায় এ্যাম্বুল্যান্সের অবৈধ পার্কিংএ সৃষ্টি হচ্ছে যানজট লাকসাম রেলওয়ে জংশনের ষ্টেশন মাস্টারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তিতাসে ৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা চান্দিনায় বেতন স্কেল বৃদ্ধির দাবীতে শিক্ষকদের মানববন্ধন চৌদ্দগ্রামে ৭ দফার দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন দেবিদ্বারে পুলিশের অভিযানে দুই গাঁজা ব্যবসায়ী আটক হোমনায় এনজিও কর্মীকে পিটিয়ে টাকা পয়সা ছিনতাই কুমিল্লায় নারীসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক মুরাদনগরে নিজের ড্রেজারের নৌকায় বালু ব্যবসায়ীর লাশ নাঙ্গলকোটে সরকারি খাল পাড়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ বরুড়ায় শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ

রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৬ ১৪২৬   ২২ মুহররম ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৪৯

শিক্ষা ব্যবস্থাকে পুরোপুরি বদলে দিতে চাই: দীপু মনি

প্রকাশিত: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

মন্ত্রিত্বের নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকে পুরোপুরি বদলে দিতে চান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বর্তমানে যে পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রদান করা হয় সেখানে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন এনে দেশীয় শিক্ষাকে পৌঁছে দিতে চান আন্তর্জাতিক মানে।

রোববার ডেইলি বাংলাদেশের সঙ্গে আলাপে শিক্ষামন্ত্রী জানান, আমাদের দেশের বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা যে পর্যায়ে রয়েছে সেটিকে আরো সামনের দিকে নিয়ে যেতে হবে। গ্লোবাল র‌্যাঙ্কিংয়ে শিক্ষায় এগিয়ে থাকা দেশগুলো কোন পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রদান করছে সেটি বুঝতে হবে এবং আমাদের দেশীয় সংস্কৃতির সঙ্গে যায় এমন ভালো বিষয়গুলো গ্রহণ করতে হবে।

দীপু মনি বলেন, ইতিমধ্যেই বেশ কিছু বিষয়ে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছি। কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। অবকাঠামোগত উন্নয়ন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ ও শিক্ষাদান পদ্ধতিতে কিছু ভালো পরিবর্তন এসেছে। ক্লাসরুমগুলোকে প্রযুক্তির আওতায় আনা হচ্ছে। শিক্ষকদের দাবি-দাওয়া বিবেচনা করে সামর্থ্য অনুযায়ী পূরণ করা হচ্ছে। আমরা আশা করছি কয়েক বছরের মধ্যেই শিক্ষায় আমরা বৈশ্বিক ভাবে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবো।

এ সময় তিনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ, এমপিওভুক্তি, ডিজিটাল শ্রেণীকক্ষ নির্মাণসহ বেশ কিছু উন্নয়ন কার্যক্রমের উদাহরণ দেন। এছাড়াও ২০২০ সালের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষার ফল প্রকাশে জিপিএ-৫ এর পরিবর্তে জিপিএ-৪ প্রবর্তনের বিষয়টি উল্লেখ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, গ্রেড পয়েন্ট এভারেজ বা জিপিএ’র আন্তর্জাতিক মানের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে দেশের সব কয়টি পাবলিক পরীক্ষাতেই ধীরে ধীরে সর্বোচ্চ জিপিএ মান চার করা হবে। ২০২০ সালে জেএসসির পর ২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাতেও এ পদ্ধতি চালু করা হবে। দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও জিপিএ মান চারে নিজেদের ফলাফল প্রকাশ করে।

দীপু মনি বলেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে। বর্তমানে জিপিএ-৫ নিয়ে যে অসুস্থ প্রতিযোগিতা হচ্ছে সেটিকে বন্ধ করতে হবে। আমাদের দেশের মানুষেরা বিদেশে পড়তে গিয়ে কিংবা কাজ করতে গিয়ে যেন কোনো অসুবিধায় না পড়ে সে দিকটাও আমাদেরকে দেখতে হবে।

তিনি বলেন, কেবল শিক্ষায় ভালো পরিবর্তন আনতে পারলে গোটা জাতি ভালো দিকে পরিবর্তিত হবে। এজন্য গোটা শিক্ষা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো দরকার। কেমন শিক্ষা পদ্ধতি গ্রহণ করলে দেশের মানুষের কাজে লাগবে সেটি নিয়েও আমাদেরকে কাজ করতে হবে। কাজটি অনেক কঠিন তবে কোনোভাবেই অসম্ভব নয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর