ব্রেকিং:
রামগঞ্জে শাশুড়িকে শ্বাসরোধে হত্যা, ছেলের বউ আটক পিকআপের ধাক্কায় পল্লী বিদ্যুতের নারী কর্মী নিহত ছেলেদের ঘরের মেঝেতে রক্তের দাগ, মিলল অস্ত্র-রক্তমাখা কাপড় আশুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান সাবেক ভিপি নূরের বিরুদ্ধে দেবিদ্বারেও মামলা করোনা রোধে পোশাক কারখানার নতুন কৌশল বাড়ির কাছে পৌঁছে যাচ্ছে করোনার নমুনা সংগ্রহের গাড়ি করোনার মধ্যেই বাংলাদেশে উন্নতির লক্ষণ দেখছে বিশ্বব্যাংক লকডাউনেও মাছ, মাংস, দুধ, ডিম ও দুগ্ধজাত পণ্যের ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় বিকাশে টাকা পাবে সাড়ে ১০ লাখ পরিবার করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু বেড়েছে অন্ধকারে সুবর্ণচর উপজেলা,বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাওয়ের হুমকি ৮ শতাধিক শতাধিক গরীব ও দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ মোবাইলে অন্যজনের সঙ্গে প্রবাসীর স্ত্রী কথা, অতঃপর... ইস্টার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধন কন্যা শিশুর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার লালমাই স্ত্রী নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল স্ত্রী-কন্যার সামনে স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছনা দরিদ্রদের ইফতার সামগ্রী উপহার দিলেন এএসপি সোনাগাজীতে মানববন্ধনে সন্ত্রাসী হামলা
  • শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১০ ১৪২৮

  • || ১০ রমজান ১৪৪২

সূর্যমুখীর ঝলকে বর্ণিল মাঠ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

সবুজ গাছে মাথা উচু করে হাসছে সূর্যমুখী। মাঠজুড়ে ছোট বড় সূর্যমুখী ফুলের হাসি। ফাগুনের ঝিরঝির হাওয়ায় ভ্রমর-মৌমাছির নাচানাচি। এক ফুল থেকে উড়ে গিয়ে আরেক ফুলে বসছে-ফুলের মধু আহরণ করছে। প্রকৃতি যেন এখানে তার রুপের পসরা সাজিয়ে বসেছে। এমন দৃশ্য এখন কুমিল্লার হোমনা উপজেলার বাতাকান্দি ইউনিয়নের মাছিমপুরে।
মাছিমপুরের কৃষক ওয়ালিদ সরকার। তিনি প্রথমবারের মত সূর্যমুখী ফুলের চাষ করেছেন। তার জমিতে এখন হাসছে হলুদ সূর্যমুখী।
শুক্রবার বিকেলে তার বাগানে উপচে পড়ে দর্শনার্থীরা। ফুলের সাথে দাঁড়িয়ে মুঠোফোনে নিজেকে বন্দি করা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করেন দর্শনার্থীরা।
মাছিমপুর এলাকার তরুণী তনিমা দত্ত তার ছোট ভাই বোনদের নিয়ে সূর্যমুখী বাগান দেখতে এসেছেন। তিনি জানান, এই সূর্যমুখীর কারণে মাছিমপুরে এখন দূরদুরান্ত থেকে মানুষ আসেন। ছবি তুলেন। আমরাও এসেছি। চমৎকার একটি সময় কাটিয়েছি।
বন্ধুদের নিয়ে সূর্যমুখী বাগানে ছবি তুলতে এসেছেন নিলয়। তিনি জানান, খুব বড় বড় ফুল ফুটেছে সূর্যমুখীর বাগানে। আমরা বন্ধুরা বাগান দেখেছি। চমৎকার একটি বাগান।
কৃষক ওয়ালিদ সরকারের বড় ছেলে ওমর ফারুক জানান, তিনি সম্প্রতি কৃষি ডিপ্লোমা শেষ করেছেন। সূর্যমুখী বাগান করার জন্য তিনিই তার বাবা ওয়ালিদ সরকারকে উৎসাহিত করেছেন। কারণ নব্বই দিনে ফসল ঘরে তোলা যায়। স্থানীয়ভাবে সূর্যমুখীর তেলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।
কৃষক ওয়ালিদ সরকার জানান, তার ৭৭ শতাংশ জমিতে তিনি প্রথমবারের মত সুর্যমূখী ফুলের চাষ করেছেন। ফলন ভালো হয়েছে। তিনি আরো জানান, তার সবমিলিয়ে বিনিয়োগ হয়েছে ২১ হাজার টাকা। সবকিছু ঠিক থাকলে সূর্যমুখীর তেল বিক্রি করে লক্ষাধিক টাকা মুনাফা হবে বলে জানান তিনি।
কুমিল্লা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের (ভারপ্রাপ্ত) উপ-পরিচালক শহিদুল হক বলেন, প্রথমবারের মত কুমিল্লা জেলায় ১শ ২৪ হেক্টর জমিতে সূর্যমুখী ফুলের চাষ করা হয়েছে। সে লক্ষ্য কৃষকদেরকে সার,বীজ সরবরাহ করা হয়েছে।