ব্রেকিং:
অফিসে মাস্ক পরা, স্বাস্থ্য বিধির ১৩ দফা মানা বাধ্যতামূলক দুর্যোগ মোকাবিলা সরকারের উদ্যোগ ইতিবাচক প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ বিমান ভাড়া করলো জাতিসংঘ জীবিকার প্রয়োজনে সীমিত পরিসরে সচল হচ্ছে সব শেখ হাসিনা দেশের ইতিহাসে বৃহত্তম ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছেন শান্তিরক্ষা মিশনে সাড়া দিতে সরকারের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে মতলব উত্তরে ১০ লকডাউন পরিবারের মাঝে খাদ্যসহায়তা বিতরণ ২৫০০ টাকার অনিয়মে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার বরখাস্ত করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত কুমেক হাসপাতাল, উদ্বোধন ৩ জুন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে চাঁদপুরে আরো ১২ জনের করোনা শনাক্ত কুমিল্লায় একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৭০ ঢাকার চারপাশে হচ্ছে ৬ স্যাটেলাইট সিটি ৬ কোটির বেশি মানুষ পেয়েছে সরকারি ত্রাণ আফ্রিকায় শ্রমবাজারের নতুন সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা ঘরে বসেই পরীক্ষা দেবে, এমন চিন্তা সরকারের ‘ডাকযোগে’ আম লিচু পৌঁছে যাবে বিভিন্ন বাজারে ‘ইভেরা টুয়েলভ’ সেবনে ১১ পুলিশ সদস্যের পাঁচদিনেই করোনা নেগেটিভ! সাত হাজার পরিবারকে উপহার দিচ্ছে বেজা শুরু হয়েছে প্রশাসনে শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযান
  • শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

১৬১

সেই নবজাতককে দত্তক নিতে কাড়াকাড়ি, পুলিশ মোতায়েন

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৫ মে ২০১৯  

রাজধানীর শিশু হাসপাতালের টয়লেট থেকে উদ্ধার করা নবজাতকটিকে দত্তক নিতে কাড়াকাড়ি লেগে গেছে। বাংলা নগর থানায় একের পর এক আসছে ফোন। ফুটফুটে মেয়ে শিশুটিকে দেখতে ও দত্তক নিতে ভিড় করছেন শতাধিক মানুষ। 

নিরাপত্তার জন্য শিশু হাসপাতালের ওই কেবিনের বাইরে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।

শেরে বাংলা নগর থানার ওসি জানে আলম বলেন, বুধবার সকাল পর্যন্ত কেউ শিশুটিকে নিজের বলে দাবি করেনি। তবে শিশুটি জন্য রাত থেকে আমার কাছে, থানার ডিউটি অফিসারের কাছে এবং ইন্সপেক্টর তদন্তের মোবাইলে শত শত ফোন আসছে। সকাল থেকে আমি নিজেই ১০০’র বেশি ফোন রিসিভ করেছি। সবাই শিশুটিকে দত্তক নিতে চাচ্ছেন। আমরা আইনি প্রক্রিয়া অনুযায়ী তদন্তের কাজ করছি।

তিনি আরো বলেন, রাত থেকেই শিশুটিকে দেখতে ও দত্তক নিতে হাসপাতালে অনেকেই ভিড় করেছেন। এতে শিশুর স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ার আশঙ্কা শিশু হাসপাতালে তার কেবিনের বাইরে পুলিশ মোতায়েন করেছি। চিকিৎসক ও তদন্ত সংশ্লিষ্ট ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না।

পুলিশের তেজগাঁও জোনের এসি মাহমুদ হাসান বলেন, শিশুটির বাবা-মাকে খুঁজতে রাতে ডিসি-তেজগাঁও-ডিএমপি ফেসবুক পেজে ছবিসহ একটি পোস্ট দেয়া হয়। এরপর থেকে অনেক ফোন আসছে শিশুটিকে দত্তক নেয়ার জন্য। অনেকে ফেসবুক পোস্টের নিচেই তাদের দত্তক নেয়ার জন্য নাম-ঠিকানা ও সিরিয়াল দিয়ে রাখছেন। আমরা তার বাবা-মাকে খুঁজে বের করতে সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। পরবর্তীতে শিশু আইনে আদালত যা সিদ্ধান্ত দেবে পুলিশ সেটা মেনেই কাজ করবে।

নবজাতকের শারীরিক অবস্থার বিষয়ে শিশু হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ হাকিম বলেন, শিশুটি এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করবে শিশু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার দুপুরে ওই নবজাতককে হাসপাতালের টয়লেটে দেখে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে খবর দেন এক রোগীর স্বজন। শিশুটির বয়স আনুমানিক তিন দিন। উদ্ধারের পর শিশুটিকে ওই হাসপাতালেই ভর্তি করা হয়েছে।

কুমিল্লার ধ্বনি
সারাবাংলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর